নিয়োগ পরিক্ষার জন্য ১০০% কমন সমাস এক সাথে, যেকোন চাকরির পরীক্ষায় বার বার আসা কিছু গুরুত্বপূর্ণ সমাস, সমাস ব্যাংক বিসিএস সরকারি চাকরির জন্য কমন উপযোগী গুরুত্বপূর্ণ, নিয়োগ পরিক্ষা আসা গুরুত্বপূর্ণ সমাস এক সাথে, বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা ৫০০+ গুরুত্বপূর্ণ সমাস

নিয়োগ পরিক্ষার জন্য ১০০% কমন সমাস এক সাথে, যেকোন চাকরির পরীক্ষায় বার বার আসা কিছু গুরুত্বপূর্ণ সমাস, সমাস ব্যাংক বিসিএস সরকারি চাকরির জন্য কমন উপযোগী গুরুত্বপূর্ণ, নিয়োগ পরিক্ষা আসা গুরুত্বপূর্ণ সমাস এক সাথে, বিভিন্ন পরীক্ষায় আসা ৫০০+ গুরুত্বপূর্ণ সমাস

জানা অজানা নিয়োগ পরীক্ষা পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

সমাস শব্দটির অর্থ হল- সংক্ষেপ, মিলন এবং একাধিক শব্দ বা পদকে একপদীকরণ। সমাসের রীতিটি সংস্কৃত ভাষা থেকে বাংলা ভাষার ব্যাকরণে (grammar) এসেছে। সমাস ভাষাকে সংক্ষেপ করে। যেমন:- বই ও পুস্তক = বইপুস্তক, নেই পরোয়া যার = বেপরোয়া ইত্যাদি।

সমাসবদ্ধ বা সমাস নিষ্পন্ন পদটিকে সমস্তপদ বলে।
সমস্তপদকে ভাঙলে যে বাক্যাংশ পাওয়া যায়, তাকে ব্যাসবাক্য বা বিগ্রহবাক্য বা সমাসবাক্য বলা হয়।
যে যে পদ মিলে সমাস হয়, তাদের প্রত্যেকটিকে সমস্যমান পদ বলে।
সমাসবদ্ধ পদের প্রথম অংশ(শব্দ)-কে পূর্বপদ এবং পরবর্তী অংশ(শব্দ)-কে পরপদ বা উত্তরপদ বলা হয়।

সমাসের প্রকারভেদ: সমাস প্রধানত ছয় প্রকার। যথা:- ১. দ্বন্দ্ব সমাস, ২. কর্মধারয় সমাস, ৩. তৎপুরুষ সমাস, ৪. বহুব্রীহি সমাস, ৫. দ্বিগু সমাস ও ৬. অব্যয়ীভাব সমাস।

১. দ্বন্দ্ব সমাস: এখানে দ্বন্দ্ব মানে হল জোড়া। যে সমাসে সমস্যমান প্রত্যেক পদের অর্থ প্রধান রূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে দ্বন্দ্ব সমাস বলা হয়। যেমন:- অহি ও নকুল = অহিনকুল, মা ও বাবা = মা-বাবা, আলো ও ছায়া = আলোছায়া।

দ্বন্দ্ব সমাসউদাহরণ
সাধারণ দ্বন্দ্বমা ও বাবা = মা-বাবা
মিলনার্থক দ্বন্দ্বভাই ও বোন = ভাই-বোন
বিরোধার্থক দ্বন্দ্বসাদা ও কালো = সাদা-কালো
সমার্থক দ্বন্দ্বহাট ও বাজার = হাট-বাজার
বহুপদী দ্বন্দ্বসে , তুমি ও আমি = আমরা
ইত্যাদি অর্থে দ্বন্দ্বকাপড় ও চোপড় = কাপড়চোপড়
অলুক দ্বন্দ্বদুধে ও ভাতে = দুধেভাতে
একশেষ দ্বন্দ্বজায়া ও পতি = দম্পতি

২. কর্মধারায় সমাস: বিশেষণ ও বিশেষ্য পদ বা শব্দ মিলে যে সমাস হয়; এবং বিশেষ্যের বা পরপদের অর্থই প্রধান রূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে কর্মধারয় সমাস বলা হয়। যেমন:- নীল যে পদ্ম = নীলপদ্ম, নীল যে আকাশ = নীলাকাশ।

কর্মধারায় সমাসউদাহরণ
মধ্যপদলোপী কর্মধারায়পল মিশ্রিত অন্ন = পলান্ন,
জ্যোৎস্না শোভিত রাত = জ্যোৎস্নারাত
পল মিশ্রিত অন্ন = পলান্ন
হাসি মাখা মুখ = হাসিমুখ
চালে ধরে যেন কুমড়া = চালকুমড়া
ক্ষুধিত যে পাষাণ = ক্ষুধিত পাষা
উপমান কর্মধারায়মিশির ন্যায় কালো = মিশকালো
তুষারের ন্যায় শুভ্র = তুষারশুভ্র
উপমিত কর্মধারয়কুমারী ফুলের ন্যায় = ফুলকুমারী
রুপক কর্মধারয়আঁখি রূপ পাখি = আঁখিপাখি
চাঁদ রূপ মুখ= চাঁদমুখ
বিষাদ রূপ সিন্ধু = বিষাদসিন্ধু

৩. তৎপুরুষ সমাস: যে সমাসে পূর্বপদের বিভক্তি লোপ পায় এবং পরপদের অর্থ প্রধান রূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে তৎপুরুষ সমাস বলা হয়। যেমন:- ঢেঁকিতে ছাঁটা = ঢেঁকিছাঁটা।

তৎপুরুষ সমাসউদাহরণ
দ্বিতীয়া তৎপুরুষসাহায্যকে প্রাপ্ত = সাহায্যপ্রাপ্ত
বইকে পড়া = বইপড়া
তৃতীয়া তৎপুরুষমন দ্বারা গড়া = মনগড়া
চতুর্থী তৎপুরুষদেবকে দত্ত = দেবদত্ত
পঞ্চমী তৎপুরুষস্কুল থেকে পালানো = স্কুলপালানো
ষষ্ঠী তৎপুরুষপিতার তুল্য = পিতৃতুল্য
সপ্তমী তৎপুরুষগাছে পাকা= গাছপাকা
নঞ তৎপুরুষজল দেয় যে= জলদ
অলুক তৎপুরুষবনে চরে যে= বনচর

৪. বহুব্রীহি সমাস: যে সমাসের সমস্তপদে পূর্বপদ ও পরপদের অর্থ প্রধান রূপে প্রতীয়মান না হয়ে, বরং অন্য একটি পদের অর্থ প্রধান রূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে বহুব্রীহি সমাস বলা হয়। যেমন:- বহু ব্রীহি (ধান) আছে যার = বহুব্রীহি।

বহুব্রীহি সমাসউদাহরণ
সমানাধিকরণ বহুব্রীহি নীল কন্ঠ যার = নীলকন্ঠ
ব্যাধিকরণ বহুব্রীহি বীণা পাণিতে যার = বীণাপাণি
মধ্যপদলোপী বহুব্রীহি গোঁফে খেজুর যার = গোঁফখেজুর
ব্যতিহার বহুব্রীহিকানে কানে যে কথা = কানাকানি,
লাঠিতে লাঠিতে যে যুদ্ধ = লাঠালাঠি।
অলুক বহুব্রীহিগায়ে হলুদ দেয়া হয় যে অনুষ্ঠানে = গায়ে হলুদ
নঞ বহুব্রীহিনয় জানা যা = অজানা
প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি দো (দুদিকে) টান যার = দোটানা
দ্বিগু বা সংখ্যাবাচক বহুব্রীহি দশ আনন যার = দশানন

৫. দ্বিগু সমাস: যে সমাসে পূর্বপদটি সংখ্যাবাচক বিশেষণ হয়ে সমাহার বা সমষ্টি বুঝায় এবং পরপদের অর্থ প্রধান রূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে দ্বিগু সমাস বলা হয়। যেমন:-

তিন প্রান্তরের সমাহার = তেপান্তর

তিন পদের সমাহার = ত্রিপদী।

৬. অব্যয়ীভাব সমাস: যে সমাসের সমস্যমান পদদ্বয়ের পূর্বপদ অব্যয় হয়ে অর্থের দিক প্রাধান্য লাভ করে, তাকে অব্যয়ীভাব সমাস বলা হয়। যেমন:-

কূলের সমীপে = উপকূল

দিন দিন = প্রতিদিন।

বিশেষ অর্থে কতিপয় সমাস

 সমাসউদাহরণ
অলুক সমাস যুদ্ধে স্থির যে = যুধিষ্ঠির
নিত্য সমাস অন্য গ্রাম = গ্রামান্তর
প্রাদি সমাসপ্র (প্রকৃষ্ঠ) যে বচন = প্রবচন
সুপসুপা সমাস পূর্বে দৃষ্ট = দৃষ্টপূর্ব

[ বি:দ্র:এই সাজেশন যে কোন সময় পরিবতনশীল ১০০% কমন পেতে পরিক্ষার আগের রাতে সাইডে চেক করুন এই লিংক সব সময় আপডেট করা হয় ]

সমাস শব্দের অর্থ মিলন। অর্থ সম্বন্ধ আছে এমন একাধিক শব্দের মিলিত হয়ে একটি নতুন শব্দ তৈরির ব্যাকরণ সম্মত প্রক্রিয়াকেই বলা হয় সমাস।
১. দ্বন্দ্ব সমাসঃ
চেনার উপায় – ক) পূর্বপদ ও পরপদের অর্থ স্বাধীন হবে ।
খ) বিভক্তি সমান থাকবে ।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + ও + পরপদ
উদাহরণ
কুশীলব = কুশ ও লব
দম্পতি = জায়া ও পতি
আমরা = তুমি, আমি ও সে
জন মানব = জন ও মানব
সত্যাসত্য = সত্য ও অসত্য
ক্ষুৎপিপাসা = ক্ষুধা ও পিপাসা
হিতাহিত = হিত ও অহিত
অহি নকুল = অহি ও নকুল
তরু লতা = তরু ও লতা
লাভালাভ = লাভ ও অলাভ
অলুক দ্বন্দ্ব সমাস
চেনার উপায় – ক) পূর্বপদ ও পরপদের অর্থ স্বাধীন হবে ।
খ) উভয় পদে (এ ) বিভক্তি থাকবে ।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + ও + পরপদ
উদাহরণ
দুধে ভাতে =দুধে ও ভাতে
ঘরে বাইরে = ঘরে ও বাইরে
দেশে বিদেশে = দেশে ও বিদেশে
বনে বাদাড়ে = বনে ও বাদাড়ে
২. দ্বিগু সমাসঃ
চেনার উপায় – ক) পূর্বপদে সংখ্যাবাচক শব্দ থাকবে।
খ) পরপদে বিশেষ্য থাকবে।
গ) সমস্তপদের অর্থ হবে সমষ্টি বা সমাহার।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + ও + পরপদ
উদাহরণ
তেপান্তর = তে (তিন) প্রান্তরের সমাহার
সেতার = সে (তিন ) তারের সমাহার
ত্রিফলা = ত্রি (তিন) ফলের সমাহার
নবরত্ন = নব (নয়) রত্নের সমাহার
পঞ্চবটী = পঞ্চ (পাঁচ) বটের সমাহার
পঞ্চনদ =পঞ্চ ( পাঁচ ) নদীর সমাহার
পশুরী = পাঁচ সেরের সমাহার
সপ্তর্ষি = সপ্ত (সাত) ঋষির সমাহার
সপ্তাহ = সপ্ত (সাত ) অহের সমাহার
শতাব্দী = শত অব্দের সমাহার
ষড়ভুজ = ষড় (ছয়) ভুজের সমাহার
৩.কর্মধারয় সমাসঃ
চেনার উপায় – ক) বিশেষ্য ও বিশেষণ দ্বারা গঠিত।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + যে + পরপদ
যিনি + পূর্বপদ + তিনি-ই + পরপদ
যে + পূর্বপদ + সে-ই + পরপদ
যা + পূর্বপদ + তা-ই + পরপদ
উদাহরণ
জজসাহেব = যিনি জজ তিনি–ই সাহেব
চলচ্চিত্র = চলে যে চিত্র
কাঁচা মিঠা = যা কাঁচা তা-ই মিঠা
চালাক চতুর = যে চালাক সে-ই চতুর
আলুসিদ্ধ = সিদ্ধ যে আল
কাপুরুষ = কু যে পুরুষ
প্রাণচঞ্চল = চঞ্চল যে প্রাণ
হলুদবাটা = বাটা যে হলুদ
রাজর্ষি = যিনি রাজা তিনি–ই ঋষি
মহাকীর্তি = মহান যে কীর্তি
মহানবী = মহান যে নবী
বেগুনভাজা = ভাজা যে বেগুন
অথবা , বেগুনকে ভাজা – ২য়া তৎপুরুষ সমাস
নবযৌবন = নব যে যৌবন
নবান্ন = নব যে অন্ন
খাসমহল = খাসমহল
ক্রীতদাস = ক্রীতদাস
কর্মধারয় সমাস ৪ প্রকার
ক) উপমান কর্মধারয়ঃ
চেনার উপায় –
ক) ‘বিশেষ্য + বিশেষণ’ দ্বারা গঠিত হবে। ( ১ম পদ ‘বিশেষ্য’ ও ২য় পদ ‘বিশেষণ’ )
খ) তুলনা বোঝাবে।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – (বিশেষ্য+ র/এর) + ন্যায় + বিশেষণ
উদাহরণ-
কাজলকালো = কাজলের ন্যায় কালো
বকধার্মিক = বকের ন্যায় ধার্মিক
বজ্রকঠিন = বজ্রের ন্যায় কঠিন
কুসুমকোমল = কুসুমের ন্যায় কোমল
কচুকাটা = কচুর ন্যায় কাটা – উপমান কর্মধারয়
তুষারসাদা = তুষারের ন্যায় সাদা
ভ্রমরকালো = ভ্রমরের ন্যায় কালো
খ) উপমিত কর্মধারয়ঃ
চেনার উপায় – ক) ‘বিশেষ্য + বিশেষ্য’ দ্বারা গঠিত হবে।
খ) তুলনা বোঝাবে।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – বিশেষ্য + ( বিশেষ্য + র/এর) + ন্যায়
( ১ম বিশেষ্য-যাকে তুলনা করা হবে, ২য় বিশেষ্য-যার সাথে তুলনা করা হবে)
উদাহরণ-
মুখচন্দ্র = মুখ চন্দ্রের ন্যায়
গ) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়ঃ
চেনার উপায় – ক) মধ্যপদ লোপ পেয়ে এই সমাস হয়।
খ) উভয় পদের মধ্যে পদ আসবে। যেমন- আশ্রিত, মিশ্রিত, চিহ্নিত , বিষয়ক, সূচক, ওপর , রাখার , শোভিত , প্লাবিত, মাখানো , রক্ষার , রক্ষার্থে , ঘেরা ইত্যাদি ।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + মধ্যপদ + পরপদ
উদাহরণ-
জ্যোৎস্নারাত =জ্যোৎস্না শোভিত রাত
আয়কর = আয়ের ওপর কর
বিজয় পতাকা = বিজয় সূচক পতাকা
ধর্মঘট = ধর্ম রক্ষার ঘট
প্রাণভয় = প্রাণ যাওয়ার ভয়
শিক্ষামন্ত্রী = শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী
সিংহাসন = সিংহ চিহ্নিত আসন
পলান্ন = পল মিশ্রিত অন্ন
দুধভাত = দুধ মিশ্রিত ভাত
ঘ) রূপক কর্মধারয়ঃ
চেনার উপায় – ক) অবাস্তব বা অতিবাস্তব অর্থের শব্দ থাকবে । যেমন- মনমাঝি , বিষাদসিন্ধু ইত্যাদি।
ব্যাসবাক্য লেখার নিয়ম – পূর্বপদ + রূপ + পরপদ
উদাহরণ-
মোহনিদ্রা = মোহ রূপ নিদ্রা
জীবন প্রদীপ = জীবন রূপ প্রদীপ
বিষাদ সিন্ধু = বিষাদ রূপ সিন্ধু
চন্দ্রমুখ = মুখ চন্দ্রের ন্যায়
চাঁদমুখ = মুখ চাঁদের ন্যায়
সিংহপুরুষ = সিংহ পুরুষ ন্যায়
পুরুষসিংহ = সিংহ পুরুষ ন্যায়

সাজেশন সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

১. ‘হাসাহাসি’ কোন সমাস?
ক) ব্যতিহার বহুব্রীহি
খ) ব্যধিকরণ বহুব্রীহি
গ) নঞ্ বহুব্রীহি
ঘ) মধ্যপদলোপী বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ক)
২. ‘প্রগতি’ কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) নিত্য সমাস
খ) অব্যয়ীভাব সমাস
গ) অলুক সমাস
ঘ) প্রাদি সমাস
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩. কোনটি পঞ্চমী তৎপুরুষ সমাস?
ক) শ্রমলব্ধ
খ) জলমগ্ন
গ) ছাত্রবৃন্দ
ঘ) ঋণমুক্ত
সঠিক উত্তর: (ক)
৪. ‘কাজলকালো’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) কাজলের ন্যায় কালো
খ) কাজল রূপ কালো
গ) কাজল ও কালো
ঘ) কালো যে কাজল
সঠিক উত্তর: (ক)
৫. “জীবননাশের আশঙ্কায় যে বীমা = জীবনবীমা” কোন কর্মধারয় সমাস?
ক) উপমান
খ) উপমিত
গ) রূপক
ঘ) মধ্যপদলোপী
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৬. কয়টি সমাসের সাথে ‘অলুক’ কথাটি যুক্ত আছে?
ক) ৩
খ) ২
গ) ৪
ঘ) ৬
সঠিক উত্তর: (ক)
৭. ‘জলচর’ কোন তৎপুরুষ সমাস?
ক) সপ্তমী
খ) পঞ্চমী
গ) উপপদ
ঘ) তৃতীয়া
সঠিক উত্তর: (ক)
৮. ‘উপনদী’ সমস্তপদের ‘উপ’ কী অর্থে ব্যবহৃত হয়েছে?
ক) ক্ষুদ্র
খ) অভাব
গ) সামীপ্য
ঘ) সাদৃশ্য
সঠিক উত্তর: (ক)
৯. ‘রূপক কর্মধারয়’ – এর সমস্তপদ কোনটি?
ক) মহাপুরুষ
খ) ঘনশ্যাম
গ) বিষাদসিন্ধু
ঘ) তুষারশুভ্র
সঠিক উত্তর: (গ)
১০. ‘পঙ্কজ’ কোন তৎপুরুষ নিষ্পন্ন শব্দ?
ক) অলুক
খ) উপপদ
গ) সপ্তমী
ঘ) দ্বিতীয়া
সঠিক উত্তর: (ক)
১১. কোন সমাসবদ্ধ পদটি দ্বিগু সমাসের অন্তর্ভুক্ত?
ক) দেশান্তর
খ) গ্রামান্তর
গ) তেপান্তর
ঘ) লোকান্তর
সঠিক উত্তর: (গ)
১২. সমাস কত প্রকার?
ক) সাত প্রকার
খ) ছয় প্রকার
গ) পাঁচ প্রকার
ঘ) তিন প্রকার
সঠিক উত্তর: (খ)
১৩. ‘চিরসুখী’ – এর ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) চিরকাল ব্যাপিয়া সুখী
খ) চিরকাল ব্যাপিয়া সুখ
গ) চিরদিনের জন্য সুখী
ঘ) চিরদিন ধরে সুখী
সঠিক উত্তর: (ক)
১৪. কর্মধারয় সমাসে কোন পদ প্রধান?
ক) পূর্বপদ
খ) উভয়পদ
গ) অন্যপদ
ঘ) পরপদ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৫. অর্থ প্রাধান্যের দিক থেকে কর্মধারয় – এর বিপরীত সমাস কোনটি?
ক) তৎপুরুষ
খ) দ্বন্ধ
গ) অব্যয়ীভাব
ঘ) বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (গ)
১৬. উপমান কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ কোনটি?
ক) মুখচন্দ্র
খ) ক্রোধানল
গ) কাজলকালো
ঘ) চিরসুখী
সঠিক উত্তর: (গ)
১৭. দ্বন্ধ সমাসের বিপরীত অর্থ প্রাধান্য সমাস কোনটি?
ক) কর্মধারয় সমাস
খ) বহুব্রীহি সমাস
গ) দ্বিগু সমাস
ঘ) তৎপুরুষ সমাস
সঠিক উত্তর: (খ)
১৮. ‘কানে কানে যে কথা = কানাকানি’ – এটি কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) অব্যয়ীভাব
খ) সপ্তমী তৎপুরুষ
গ) অলুক বহুব্রীহি
ঘ) ব্যতিহার বহুব্রীতি
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৯. ‘চাঁদমুখ’ – এর ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) চাঁদ মুখ যার
খ) চাঁদের ন্যায় মুখ
গ) মুখের ন্যায় চাঁদ
ঘ) চাঁদ যে মুখ
সঠিক উত্তর: (খ)
২০. দ্বিগু সমাস নিষ্পন্ন পদটি কোন পদ হয়?
ক) বিশেষ্য
খ) বিশেষণ
গ) সর্বনাম
ঘ) কৃদন্ত
সঠিক উত্তর: (ক)
২১. ‘আশীবিষ’ – কোন সমাস?
ক) সমানাধিকরণ বহুব্রীহি
খ) ব্যতিহার বহুব্রীহি
গ) নঞ্ বহুব্রীহি
ঘ) ব্যাধিকরণ বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ঘ)
২২. কোনটি উপমান কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ?
ক) সিংহাসন
খ) অরুণরাঙা
গ) বিষাদসিন্ধু
ঘ) মুখচন্দ্র
সঠিক উত্তর: (খ)
২৩. সমাসের রীতি বাংলায় এসেছে কোন ভাষা থেকে?
ক) হিন্দি
খ) সংস্কৃত
গ) প্রাকৃত
ঘ) ফারসি
সঠিক উত্তর: (খ)
২৪. মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস কোনটি?
ক) পলান্ন
খ) ঘনশ্যাম
গ) নরাধম
ঘ) খেচর
সঠিক উত্তর: (ক)
২৫. নিপাতনে সিদ্ধ বহুব্রীহি সমাসের উদাহরণ কোনটি?
ক) দ্বিপ
খ) দীপ
গ) দ্বীপ
ঘ) দিপ
সঠিক উত্তর: (গ)
২৬. কোনটিতে উপমান ও উপমেয়ের মধ্যে অভিন্নতা কল্পনা করা হয়?
ক) উপমান কর্মধারয়
খ) উপমিত কর্মধারয়
গ) রূপক কর্মধারয়
ঘ) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (গ)
২৭. কোন উদাহরণটি অলুক তৎপুরুষ সমাসের?
ক) গায়ে পড়া
খ) চা-বাগান
গ) খাঁচা ছাড়া
ঘ) মাল গুদাম
সঠিক উত্তর: (ক)
২৮. ‘ফুলকুমারী’ সমস্তপদটির সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) ফুলের ন্যায় কুমারী
খ) কুমারী ফুলের ন্যায়
গ) ফুলের ন্যায় সুন্দর কুমারী
ঘ) ফুলের কুমারী
সঠিক উত্তর: (ক)
২৯. ‘কমলাক্ষ’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য হলো-
ক) কমল অক্ষির ন্যায়
খ) কমল অক্ষের ন্যায়
গ) কমলের ন্যায় অক্ষি যার
ঘ) কমলের ন্যায় অক্ষ যার
সঠিক উত্তর: (গ)
৩০. ‘নীল যে পদ্ম = নীলপদ্ম’ কোন সমাস?
ক) দ্বিগু সমাস
খ) প্রাদি সমাস
গ) বহুব্রীহি সমাস
ঘ) কর্মধারয় সমাস
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩১. তৃতীয়া তৎপুরুষ সমাসের ‘সমস্তপদ’ কোনটি?
ক) গা-ঢাকা
খ) তালকানা
গ) মনগড়া
ঘ) দেশসেবা
সঠিক উত্তর: (গ)
৩২. রূপক কর্মধারয় সমাসের ব্যাসবাক্যে কোনটি থাকে?
ক) ও
খ) এ
গ) ই
ঘ) ন্যায়
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩৩. ‘হাট-বাজার’ কোন অর্থে দ্বন্ধ সমাস?
ক) মিলনার্থে
খ) বিরোধার্থে
গ) বিপরীতার্থে
ঘ) সমার্থে
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩৪. সমাস সাধিত পদ কোনটি?
ক) চাষী
খ) বোনাই
গ) মানব
ঘ) দম্পতি
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩৫. ‘পঞ্চনদ’ সমস্তপদটির সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) পঞ্চ ও নদ
খ) পঞ্চ নামক নদ
গ) পঞ্চ নদের সমাহার
ঘ) পঞ্চ নদীর সমাহার
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৩৬. দ্বিগু সমাসকে অনেক ব্যাকরণবিদ কোন সমাসের অন্তর্ভুক্ত করেছেন?
ক) তৎপুরুষ
খ) দ্বন্ধ
গ) কর্মধারয়
ঘ) অব্যয়ীভাব
সঠিক উত্তর: (গ)
৩৭. ‘মহারাজ’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) রাজা যে মহৎ
খ) মহান যে রাজা
গ) মহতের রাজা
ঘ) মহা যে রাজা
সঠিক উত্তর: (খ)
৩৮. ‘চন্দ্রমুখ’ – শব্দের ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) চন্দ্রের ন্যায় মুখ
খ) চন্দ্র রূপ মুখ
গ) মুখ চন্দ্রের ন্যায়
ঘ) মুখ ও চন্দ্র
সঠিক উত্তর: (গ)
৩৯. ‘মন মাঝি’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) মন যে মাঝি
খ) মন মাঝির ন্যায়
গ) মনরূপ মাঝি
ঘ) মন ও মাঝি
সঠিক উত্তর: (গ)
৪০. বহুব্রীহি সমাসের পূর্বপদ এবং পরপদ কোনোটিই যদি বিশেষণ না হয় তবে তাকে কী বলে?
ক) সমানাধিকরণ বহুব্রীহি
খ) ব্যধিকরণ বহুব্রীহি
গ) ব্যাতিহার বহুব্রীহি
ঘ) প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (খ)
৪১. কোনটি খাঁটি বাংলা কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ?
ক) সিংহাসন
খ) মনমাঝি
গ) নরাধম
ঘ) অনল
সঠিক উত্তর: (গ)
৪২. দিল্লীশ্বর কিসের উদাহরণ?
ক) কর্মধারয়
খ) তৎপুরুষ
গ) অলুকদ্বন্ধ
ঘ) দ্বন্ধ
সঠিক উত্তর: (খ)
৪৩. পরবর্তী ক্রিয়ামূলের সঙ্গে কৃৎপ্রত্যয় যুক্ত হয়ে কোন সমাস গঠিত হয়?
ক) তৎপুরুষ
খ) উপপদ তৎপুরুষ
গ) উপমিত কর্মধারয়
ঘ) উপমান কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (খ)
৪৪. সাধারণ ধর্মবাচক পদের সাথে উপমানবাচক পদের যে সমাস হয় তাকে কোন কর্মধারয় বলে?
ক) সাধারণ কর্মধারয়
খ) রূপক কর্মধারয়
গ) উপমিত কর্মধারয়
ঘ) উপমান কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৪৫. তৎপুরুষ সমাস কয় প্রকার?
ক) আট
খ) নয়
গ) দশ
ঘ) এগার
সঠিক উত্তর: (খ)
৪৬. কোনটি সমার্থক দ্বন্ধ সমাস?
ক) দুধে-ভাতে
খ) কাগজ-পত্র
গ) ভাই-বোন
ঘ) জমা-খরচ
সঠিক উত্তর: (খ)
৪৭. ‘বিশ্ববিখ্যাত’ সমস্তপদটি কোন সমাস নির্দেশ করে?
ক) মধ্যপদলোপী বহুব্রীহি
খ) সপ্তমী তৎপুরুষ
গ) চতুর্থী তৎপুরুষ
ঘ) উপমান কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (খ)
৪৮. কর্মধারয় সমাস নয় কোনটি?
ক) কদাচার
খ) মহারাজ
গ) মুখচন্দ্র
ঘ) মধুমাখা
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৪৯. পূর্বপদের প্রাধান্য থাকে কোন সমাসে?
ক) দ্বন্ধ সমাসে
খ) বহুব্রীহি সমাসে
গ) কর্মধারয় সমাসে
ঘ) অব্যয়ীভাব সমাসে
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৫০. যে সমাসে প্রত্যেকটি সমস্যমান পদের অর্থের প্রাধান্য থাকে তাকে কী বলে?
ক) দ্বন্ধ সমাস
খ) কর্মধারয়সমাস
গ) দ্বিগু সমাস
ঘ) বহুব্রীহি সমাস
সঠিক উত্তর: (ক)
৫১. কোনটিতে পূর্বপদের অর্থ প্রাধান্য পায়?
ক) দ্বিগু সমাস
খ) অব্যয়ীভাব সমাস
গ) পঞ্চ নদের সমাহার
ঘ) পঞ্চ নদীর সমাহার
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৫২. ‘হংসডিম্ব’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) হংসের ডিম্ব
খ) হংস ও ডিম্ব
গ) হংস হতে যে ডিম্ব
ঘ) হংসীর ডিম্ব
সঠিক উত্তর: (খ)
৫৩. নিচের কোনটি উপমিত কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ?
ক) ঘনশ্যাম
খ) স্নেহনীড়
গ) কুসুমকোমল
ঘ) করপল্লব
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৫৪. ‘ঈষৎ’ অর্থে অব্যয়ীভাব সমাস কোনটি?
ক) আগাছা
খ) আজীবন
গ) আগমন
ঘ) আরক্তিম
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৫৫. ‘অন্তরীপ’ কোন বহুব্রীহি সমাসের সমস্ত পদ?
ক) প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি
খ) নিপাতনে সিদ্ধ বহুব্রীহি
গ) ব্যধিকরণ বহুব্রীহি
ঘ) সমানাধিকরণ বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (খ)
৫৬. ‘উদ্বেল’ কী অর্থে অব্যয়ীভাব সমাস?
ক) আবেগ অর্থে
খ) অতিক্রম অর্থে
গ) বীপ্সা অর্থে
ঘ) সামীপ্য অর্থে
সঠিক উত্তর: (খ)
৫৭. ব্যাসবাক্যের অপর নাম কী?
ক) পূর্ণ বাক্য
খ) বিগ্রহ বাক্য
গ) বিস্তৃত বাক্য
ঘ) নতুন বাক্য
সঠিক উত্তর: (খ)
৫৮. ‘বিদ্যাহীন’ শব্দটি কোন ধরনের সমাস হবে?
ক) তৃতীয়া তৎপুরুষ
খ) পঞ্চমীতৎপুরুষ
গ) সমানাধিকরণ তৎপুরুষ
ঘ) ব্যাধিকরণ বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ক)
৫৯. কোনটি ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাসের উদাহরণ?
ক) রাজপুত্র
খ) অভাব
গ) রান্নাঘর
ঘ) প্রাণপ্রিয়
সঠিক উত্তর: (খ)
৬০. সত্য বলে যে = সত্যবাদী – এটি কোন সমাসের অন্তর্গত?
ক) উপপদ তৎপুরুষ
খ) প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি
গ) অলুক তৎপুরুষ
ঘ) দ্বিগু
সঠিক উত্তর: (ক)
৬১. নিচের কোনটি ‘বিপরীতার্থক দ্বন্ধ’?
ক) অহি-নকুল
খ) জমা-খরচ
গ) মাসি-পিসি
ঘ) হাট-বাজার
সঠিক উত্তর: (খ)
৬২. উপকরণবাচক বিশেষ্য পদ পূর্বপদে বসে কোন তৎপুরুষ সমাস হয়?
ক) ৩য়া
খ) ২য়া
গ) ৪র্থী
ঘ) ৫মী
সঠিক উত্তর: (ক)
৬৩. কোনটি নিত্য সমাস?
ক) অনুতাপ
খ) দর্শনমাত্র
গ) উপকূল
ঘ) পীতাম্বর
সঠিক উত্তর: (খ)
৬৪. ‘হাট-বাজার’ কোন সমাস?
ক) তৎপুরুষ
খ) কর্মধারয়
গ) বহুব্রীহি
ঘ) দ্বন্ধ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৬৫. কোনটি দ্বন্ধ সমাস?
ক) বেতাল
খ) মাতা-পিতা
গ) রাতকানা
ঘ) অঘাট
সঠিক উত্তর: (খ)
৬৬. পরপদে রাজি, গ্রাম, বৃন্দ, যূথ প্রভৃতি কোন সমাসে আছে?
ক) পঞ্চমী তৎপুরুষ
খ) ষষ্ঠী তৎপুরুষ
গ) তৃতীয়া তৎপুরুষ
ঘ) অলুক তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (খ)
৬৭. ‘রাজপথ’ – এর ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) রাজার পথ
খ) রাজা নির্মিত পথ
গ) রাজাদের পথ
ঘ) পথের রাজা
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৬৮. ‘চিরকাল ব্যাপীয়া সুখী = চিরসুখী’ =- এটি কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
খ) রূপক কর্মধারয়
গ) দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
ঘ) বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ক)
৬৯. ‘বিরানব্বই’ কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) দ্বিগু
খ) সংখ্যাবাচক বহুব্রীহি
গ) অব্যয়ীভাব
ঘ) নিত্য
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৭০. দ্বিগু সমাসের উদাহরণ কোনটি?
ক) সাতসমুদ্র
খ) প্রতিদিন
গ) নীলকন্ঠ
ঘ) মুখেভাত
সঠিক উত্তর: (ক)
৭১. ‘তুষারশুভ্র’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) তুষারের ন্যায় শুভ্র
খ) তুষার শুভ্রের ন্যায়
গ) তুষার ও শুভ্র
ঘ) শুভ্র যে তুষার
সঠিক উত্তর: (ক)
৭২. তৎপুরুষ সমাসে কোন পদ প্রধান?
ক) পূর্বপদ
খ) পরপদ
গ) অন্যপদ
ঘ) উভয়পদ
সঠিক উত্তর: (খ)
৭৩. নিচের কোন সমস্ত পদটি দ্বিগু সমাস?
ক) তেপায়া
খ) চৌচালা
গ) তেমাথা
ঘ) চারহাতি
সঠিক উত্তর: (গ)
৭৪. দ্বন্ধ সমাসে পূর্বপদ ও পরপদের সম্বন্ধ বুঝাতে ব্যাসবাক্যে কয়টি অব্যয়পদ ব্যবহৃত হয়?
ক) একটি
খ) দুটি
গ) তিনটি
ঘ) চারটি
সঠিক উত্তর: (গ)
৭৫. কোনটি রূপক কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ নয়?
ক) বিষাদসিন্ধু
খ) ক্রোধানল
গ) মনমাঝি
ঘ) তুষারশুভ্র
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৭৬. খাঁটি বাংলা উপপদ তৎপুরুষ কোনটি?
ক) মাছিমারা
খ) সত্যবাদী
গ) পাদান
ঘ) নীরদ
সঠিক উত্তর: (ক)
৭৭. ‘প্রতিদ্বন্ধী’ অর্থে অব্যয়ীভাব সমাস কোনটি?
ক) প্রতিবাদ
খ) প্রত্যুত্তর
গ) প্রতিচ্ছবি
ঘ) প্রতিদ্বন্ধী
সঠিক উত্তর: (খ)
৭৮. উপপদ তৎপুরুষ সমাস কোনটি?
ক) পকেটমার
খ) গৃহান্তর
গ) প্রভাত
ঘ) আরক্তিম
সঠিক উত্তর: (ক)
৭৯. ‘বিষাদসিন্ধু’ সমস্তপদটির ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) বিষাদ যেন সিন্ধু
খ) বিষাদ রূপ সিন্ধু
গ) বিষাদ যেমন সিন্ধু
ঘ) বিষাদময় সিন্ধু
সঠিক উত্তর: (খ)
৮০. উপমান কর্মধারয় সমাসের সমস্তপদ কোনটি?
ক) পান্নাসবুজ
খ) বীরসিংহ
গ) কালস্রোত
ঘ) রক্তকমল
সঠিক উত্তর: (ক)
৮১. প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি সমাস কোনটি?
ক) একঘরে
খ) হাতে খড়ি
গ) গায়ে হলুদ
ঘ) মুখে ভাত
সঠিক উত্তর: (ক)
৮২. ‘জায়া’ শব্দের স্থলে বহুব্রীহি সমাসে কোনটি ব্যবহৃত হয়?
ক) দম
খ) জানি
গ) যুবতী
ঘ) পত্নী
সঠিক উত্তর: (খ)
৮৩. অব্যয়ীভাব সমাসে কোন পদ প্রধান?
ক) ভিন্নপদ
খ) উভয় পদ
গ) পরপদ
ঘ) পূর্বপদ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৮৪. নিচের কোনটি ব্যতিহার বহুব্রীহি সমাসের ব্যাসবাক্য?
ক) ধীর বুদ্ধি যার
খ) নীল যে আকাশ
গ) দশ আনন যার
ঘ) লাঠিতে লাঠিতে যে লড়াই
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৮৫. ‘বহুব্রীহি’ শব্দের অর্থ কী?
ক) বহুমুখী
খ) বহুবৃদ্ধি
গ) বহু ধান
ঘ) বহু ধন
সঠিক উত্তর: (গ)
৮৬. ‘মনগড়া’ কোন সমাস?
ক) বহুব্রীহি
খ) কর্মধারয়
গ) তৎপুরুষ
ঘ) দ্বিগু
সঠিক উত্তর: (গ)
৮৭. খাতা-পত্র কোন অর্থে দ্বন্ধ সমাস?
ক) মিলনার্থক
খ) সমার্থক
গ) বিপরীতার্থক
ঘ) বিরোধার্থক
সঠিক উত্তর: (খ)
৮৮. নিচের কোনটি দ্বিগু সমাসের উদাহরণ?
ক) উপজেলা
খ) রাজপথ
গ) শতাব্দী
ঘ) চৌচালা
সঠিক উত্তর: (গ)
৮৯. ‘বালিকা বিদ্যালয়’ কোন সমাস?
ক) সাধারণ কর্মধারয়
খ) ষষ্ঠী তৎপুরুষ
গ) ব্যধিকরণ বহুব্রীহি
ঘ) চতুর্থী তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৯০. সাধারণত চ্যুত, জাত, ভীত, গৃহীত অর্থে যে সমাস হয়তার নাম -�
ক) খাঁটি বাংলা তৎপুরুষ
খ) চতুর্থী তৎপুরুষ
গ) তৃতীয়া তৎপুরুষ
ঘ) পঞ্চমী তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৯১. ‘মাদক দ্বারা আসক্ত = মাদকাসক্ত’ – এটি কোন সমাস?
ক) তৎপুরুষ
খ) দ্বন্ধ
গ) অব্যয়ীবাব
ঘ) বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ক)
৯২. “মহৎমন যার” – এর সঠিক সমাসবদ্ধ পদ কোনটি?
ক) মহামনা
খ) মহৎমনা
গ) মহানমনা
ঘ) মহৎমন
সঠিক উত্তর: (খ)
৯৩. ‘যথাযোগ্য’ – শব্দটি কী অর্থে অব্যয়ীভাব সমাস হয়েছে?
ক) অনিতক্রম্যতা
খ) বিরোধ
গ) সাদৃশ্য
ঘ) পশ্চাৎ
সঠিক উত্তর: (ক)
৯৪. সমাস শব্দের অর্থ কী?
ক) মিলন, সংক্ষেপ ও বিপরীতকরণ
খ) সংক্ষেপ, মিল ও নির্দিষ্টকরণ
গ) সংক্ষেপ, একপদীকরণ ও পদের ধারণা
ঘ) সংক্ষেপ, মিলন ও একপদীকরণ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৯৫. কোনটি নিত্য সমাসের উদাহরণ?
ক) উপনদী
খ) মনমাঝি
গ) নরপশু
ঘ) গ্রমান্তর
সঠিক উত্তর: (ঘ)
৯৬. যেখানে বিশেষণ বা বিশেষণভাবাপন্ন পদের সাথে বিশেষ্য বা বিশেষ্যভাবাপন্ন পদের সমাস হয় এবং পরপদের অর্থই প্রধানরূপে প্রতীয়মান হয়, তাকে কোন সমাস বলে?
ক) দ্বন্ধ সমাস
খ) কর্মধারয় সমাস
গ) তৎপুরুষ সমাস
ঘ) বহুব্রীহি সমাস
সঠিক উত্তর: (খ)
৯৭. কোনটি নিত্য সমাসের সমস্তপদ?
ক) দেশান্তর
খ) সেতার
গ) বেতার
ঘ) সহোদর
সঠিক উত্তর: (ক)
৯৮. ‘জনৈক’ এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) এক যে জন
খ) জন যে এক
গ) এক এবং জন
ঘ) এক জন পর্যন্ত
সঠিক উত্তর: (খ)
৯৯. ‘স্মৃতিসৌধ’ – কোন সমাসের সমস্তপদ?
ক) কর্মধারয়
খ) দ্বন্ধ
গ) দ্বিগু
ঘ) নিত্য
সঠিক উত্তর: (ক)
১০০. ‘মুখচন্দ্র’ এর ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) মুখ চন্দ্রের ন্যায়
খ) চন্দ্র মুখের ন্যায়
গ) চন্দ্রের ন্যায় মুখ
ঘ) মুখের ন্যায় চন্দ্র
সঠিক উত্তর: (ক)
১০১. দ্বিগু সমাসের উদাহরণ –
ক) তিন কালের সমাহার – ত্রিকাল
খ) দু’দিকে অপ যার = দ্বীপ
গ) একদিকে চোখ যার = একচোখা
ঘ) অক্ষির অগোচরে = পরোক্ষ
সঠিক উত্তর: (ক)
১০২. যে যে পদে সমাস হয় তাদের প্রত্যেকটির নাম কী?
ক) সমস্যমান পদ
খ) ব্যাসবাক্য
গ) সমাসবাক্য
ঘ) নতুন বাক্য
সঠিক উত্তর: (ক)
১০৩. নিত্য সমাসের উদাহরণ কোনটি?
ক) উপনদী
খ) মনমাঝি
গ) নরপশু
ঘ) গ্রামান্তর
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১০৪. ‘দা-কুমড়া’ কোন দ্বন্ধ সমাসের উদাহরণ?
ক) বিপরীতার্থক দ্বন্ধ
খ) মিলনার্থক দ্বন্ধ
গ) বিরোধার্থক দ্বন্ধ
ঘ) সমার্থক দ্বন্ধ
সঠিক উত্তর: (গ)
১০৫. কোনটি প্রাদি সমাসের উদাহরণ?
ক) গৃহস্থ
খ) ছা-পোষা
গ) উপকূল
ঘ) প্রগতি
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১০৬. কোনটি ব্যধিকরণ বহুব্রীহি সমাসের উদাহরণ?
ক) কোলাকুলি
খ) ঊনপাঁজুরে
গ) হাতেখড়ি
ঘ) কথাসর্বস্ব
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১০৭. ‘জনৈক’ কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) কর্মধারয়
খ) বহুব্রীহি
গ) অলুক দ্বন্ধ
ঘ) নঞ্ বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (ক)
১০৮. কুলার আকৃতিবিশিষ্ট কান যে রমণীর = কুলাকানী – কোন সমাস?
ক) মধ্যপদলোপী বহুব্রীহি
খ) দ্বন্ধ সমাস
গ) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
ঘ) নিত্য সমাস
সঠিক উত্তর: (ক)
১০৯. ‘গজনীর রাজা = গজনীরাজ’ এটি কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) পঞ্চমী তৎপুরুষ সমাস
খ) ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস
গ) উপপদ তৎপুরুষ সমাস
ঘ) বহুব্রীহি সমাস
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১১০. পূর্বপদ বিশেষণ ও পরপদ বিশেষ্য হলে কেন বহুব্রীহি সমাস হয়?
ক) ব্যধিকরণ
খ) সমানাধিকরণ
গ) প্রত্যয়ান্ত
ঘ) মধ্যপদলোপী
সঠিক উত্তর: (খ)
১১১. ‘গাছপাকা’ কোন সমাস?
ক) ষষ্ঠী তৎপুরুষ
খ) সপ্তমী তৎপুরুষ
গ) চতুর্থী তৎপুরুষ
ঘ) পঞ্চমী তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (খ)
১১২. ‘অহি-নকুল’ কোন শ্রেণির দ্বন্ধ সমাসের উদাহরণ?
ক) বিরোধার্থক
খ) বিপরীতার্থক
গ) সমার্থক
ঘ) মিলনার্থক
সঠিক উত্তর: (ক)
১১৩. কোনটি প্রাদি ও অব্যয়ীভাব এই উভয় সমাসই হয়?
ক) পরিভ্রমণ
খ) প্রভাব
গ) অতিমানব
ঘ) উদ্বেল
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১১৪. ‘বেসুর’ কোন সমাস?
ক) অব্যয়ীভাব
খ) কর্মধারয়
গ) বহুব্রীহি
ঘ) তৎপুরু৯ষ
সঠিক উত্তর: (গ)
১১৫. পূর্বপদে বিভক্তি লোপে কোন সমাস হয়?
ক) অব্যয়ীভাব
খ) তৎপুরুষ
গ) কর্মধারয়
ঘ) দ্বিগু
সঠিক উত্তর: (খ)
১১৬. ‘অভাব’ অর্থে অব্যয়ীভাব সমাসের উদাহরণ কোনটি?
ক) নির্ভাবনা
খ) উচ্ছৃঙ্খল
গ) অনুক্ষণ
ঘ) প্রতিপক্ষ
সঠিক উত্তর: (ক)
১১৭. ‘উপশহর’ কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) বহুব্রীহি
খ) প্রাদি
গ) অব্যয়ীভাব
ঘ) নিত্য সমাস
সঠিক উত্তর: (গ)
১১৮. সমাসবদ্ধ বা সমাসনিষ্পন্ন পদটির নাম কী?
ক) ব্যাসবাক্য
খ) বিগ্রহবাক্য
গ) সমস্যমান পদ
ঘ) সমস্তপদ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১১৯. ক্রিয়ার পারস্পরিক অর্থে কোন বহুব্রীহি সমাস হয়?
ক) সমানাধিকরণ বহুব্রীহি
খ) ব্যতিহার বহুব্রীহি
গ) ব্যধিকরণ বহুব্রীহি
ঘ) প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি
সঠিক উত্তর: (খ)
১২০. ‘দশানন’ সমস্তপদটির সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) দশ ও আনন
খ) দশ সংখ্যক আনন
গ) দশ আননের সমাহার
ঘ) দশ আনন আছে যার
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১২১. বিশেষণের সাথে বিশেষ্যের যে সমাস হয়, তাকে কী বলে?
ক) দ্বন্ধ
খ) বহুব্রীহি
গ) তৎপুরুষ
ঘ) কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১২২. ‘স্মৃতিসৌধ’ কোন কর্মধারয় সমাস?
ক) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
খ) উপমান কর্মধারয়
গ) রূপক কর্মধারয়
ঘ) উপমিত কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (ক)
১২৩. সমাসের সাথে কোনটির কিছুটা মিল আছে?
ক) কারক
খ) ধাতু
গ) প্রকৃতি
ঘ) সন্ধি
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১২৪. ব্যাপ্তি অর্থে কোন সমাস হয়?
ক) ২য়া তৎপুরুষ
খ) তৃতীয়া তৎপুরুষ
গ) ৫মী তৎপুরুষ
ঘ) ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (ক)
১২৫. ‘মেহেদীরাঙা’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) রাঙা যে মেহেদী
খ) মেহেদী যে রাঙা
গ) মেহেদী ও রাঙা
ঘ) মেহেদী রূপ রাঙা
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১২৬. ‘পকেটমার’ কোন তৎপুরুষ সমাসের উদাহরণ?
ক) অলুক তৎপুরুষ
খ) উপপদ তৎপুরুষ
গ) সপ্তমী তৎপুরুষ
ঘ) তৃতীয়া তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (খ)
১২৭. ‘সামীপ্যে’ অর্থে কোথায় অব্যয়ীভাব সমাস হয়েছে?
ক) উপকূল
খ) আগত
গ) গরমিল
ঘ) উপদ্বীপ
সঠিক উত্তর: (ক)
১২৮. সমপ্তপদকে ভেঙে যে বাক্যাংশ করা হয় তার নাম কী?
ক) সরলবাক্য
খ) মিশ্রবাক্য
গ) ব্যাসবাক্য
ঘ) জটিলবাক্য
সঠিক উত্তর: (গ)
১২৯. উপমান কর্মধারয় সমাস কোনটি?
ক) মুখচন্দ্র
খ) ক্রোধানল
গ) তুষারশুভ্র
ঘ) মনমাঝি
সঠিক উত্তর: (গ)
১৩০. কোন সমাসে সাধারণ ধর্মের উল্লেখ থাকে?
ক) উপমান কর্মধারয়
খ) উপমিত কর্মধারয়
গ) রূপক কর্মধারয়
ঘ) মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (ক)
১৩১. ‘বিপদাপন্ন’ সমস্তপদটি কোন সমাসের উদাহরণ?
ক) অলুক দ্বন্ধ
খ) দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
গ) তৃতীয়া তৎপুরুষ
ঘ) চতুর্থী তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (খ)
১৩২. কোনটি অব্যয়ীভাব সমাসের উদাহরণ?
ক) আমৃত্যু
খ) দর্শনমাত্র
গ) জীবন্মৃত
ঘ) সফল
সঠিক উত্তর: (ক)
১৩৩. ‘সমাস’ শব্দের অর্থ কী?
ক) বিশ্লেষণ
খ) সংক্ষেপণ
গ) সংযোজন
ঘ) সংশ্লেষণ
সঠিক উত্তর: (খ)
১৩৪. কোনটি মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাসের উদাহরণ?
ক) শিশু সাহিত্য
খ) সাহিত্য সভা
গ) অরুণ রাঙ্গা
ঘ) সকাল সন্ধ্যা
সঠিক উত্তর: (খ)
১৩৫. ‘সুকাজ’ শব্দটির ‘সু’ কোন প্রকার উপসর্গ?
ক) হিন্দি
খ) তৎসম
গ) আরবি
ঘ) খাঁটি বাংলা
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৩৬. ‘অকেজো’ সমস্তপদটি কোন সমাসেরউদাহরণ?
ক) নঞ্ তৎপুরুষ
খ) নঞ্ বহুব্রীহি
গ) প্রত্যয়ান্ত বহুব্রীহি
ঘ) সবগুলো সঠিক
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৩৭. ‘মহাকীর্ত’ – এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) মহান যে কীর্তি
খ) মহা যে কীর্তি
গ) মহতী যে কীর্তি
ঘ) মহা কীর্তি যার
সঠিক উত্তর: (গ)
১৩৮. বহুব্রীহি সমাসের নিষ্পন্ন পদটি কোন পদ প্রধান?
ক) পূর্বপদ
খ) অন্যপদ
গ) পরপদ
ঘ) উভয়পদ
সঠিক উত্তর: (খ)
১৩৯. বহুব্রীহি কত প্রকার?
ক) ৮
খ) ৯
গ) ৬
ঘ) ৭
সঠিক উত্তর: (ক)
১৪০. কৃদন্ত পদের সাথে উপপদের যে সমাস হয় তার নাম কী?
ক) অলুক তৎপুরুষ
খ) উপপদ তৎপুরুষ
গ) নিত্য সমাস
ঘ) নঞ্ তৎপুরুষ
সঠিক উত্তর: (খ)
১৪১. কোন সমাসে ‘সমাহার’ ব্যাসবাক্য থাকে?
ক) দ্বন্ধ
খ) প্রাদি
গ) নিত্য
ঘ) দ্বিগু
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৪২. ‘পদ্ম নাভিতে যার = পদ্মনাভ’ – এটি কোন সমাস?
ক) কর্মধারয়
খ) তৎপুরুষ
গ) বহুব্রীহি
ঘ) দ্বিগু
সঠিক উত্তর: (গ)
১৪৩. জমা-খরচ কোন শব্দযোগে দ্বন্ধ সমাস?
ক) সমার্থক
খ) বিরোধার্থক
গ) বিপরীতার্থক
ঘ) মিলনার্থক
সঠিক উত্তর: (গ)
১৪৪. ‘জমা-খরচ’ এর সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) জমার খরচ
খ) জমাকে খরচ
গ) জমা ও খরচ
ঘ) জমা হতে খরচ
সঠিক উত্তর: (গ)
১৪৫. ‘মহানবি’ শব্দটি কোন সমাস?
ক) তৎপুরুষ
খ) অব্যয়ীভাব
গ) বহুব্রীহি
ঘ) কর্মধারয়
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৪৬. ‘ছাগদুগ্ধ’ এ সমস্তপদটির সঠিক ব্যাসবাক্য কোনটি?
ক) ছাগের দুগ্ধ
খ) ছাগ ও দুগ্ধ
গ) ছাগী হতে দুগ্ধ
ঘ) ছাগীর দুগ্ধ
সঠিক উত্তর: (ঘ)
১৪৭. উপমান কর্মধারয় সমাস কাকে বলে?
ক) দৃশ্যমান বস্তুর সাথে অদৃশ্যমান বস্তুর মিল থাকলে
খ) অদৃশ্য বস্তুর সাথে দৃশ্যমান বস্তুর মিল থাকলে
গ) সাধারণ গুণের উল্লেখ থাকলে
ঘ) দুটি বিশেষ পদের একটিকে বুঝায়
সঠিক উত্তর: (ক)

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

v দ্বন্দ্ব সমাসঃ
Ø মরাবাঁচা —- মরা ও বাঁচা — দ্বন্দ্ব
Ø দা — কুমড়া —- দা ও কুমড়া — দ্বন্দ্ব
Ø সৈন্য সামন্ত —- সৈন্য ও সামন্ত — দ্বন্দ্ব
Ø রক্তমাংস —- রক্ত ও মাংস — দ্বন্দ্ব
Ø ভরণপোষণ —- ভোরণ ও পোষণকারী —দ্বন্দ্ব
Ø জনমানব —- জন ও মানব — দ্বন্দ্ব
Ø সাত সতের —- সাত ও সতের — দ্বন্দ্ব
Ø দুধভাত —- দুধ ও ভাত — দ্বন্দ্ব
Ø সাপে–নেউলে —- সাপে ও নেউলে — দ্বন্দ্ব
Ø দম্পতি —- জায়া ও পতি — দ্বন্দ্ব
Ø লেনদেন —- লেন ও দেন — দ্বন্দ্ব
Ø হিতাহিত —- হিত ও অহিত — দ্বন্দ্ব
Ø অত্যাচারঅবিচার —- অত্যাচার ও অবিচার — দ্বন্দ্ব
v অলুক দ্বন্দ্ব সমাসঃ
হাতে পায়ে —- হাতে ও পায়ে — অলুক দ্বন্দ্ব
দুধেভাতে —– দুধে ও ভাতে — অলুক দ্বন্দ্ব
বনেবাদারে —- বনে ওবাদারে — অলুক দ্বন্দ্ব
জন্ম মৃত্যু —- জন্ম ও মৃত্যু — অলুক দ্বন্দ্ব
v কর্মধারয় সমাসঃ
v মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাসঃ
Ø সিংহাসন —সিংহ চিহ্নিত আসন — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø হাঁটুজল — হাঁটু পরিমান জল — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø পানাপুকুর — পানা ভরা পুকুর — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø বিরানব্বই — নব্বই অধিক দুই — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø শিক্ষামন্ত্রী — শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø পলান্ন — পল মিশ্রিত অন্ন — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø মমতারস — মমতা মিশ্রিত রস — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø ধর্মঘট — ধর্ম রক্ষার্থে ঘট — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø আয়কর — আয়ের উপর কর — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø সন্ধ্যা প্রদীপ — সন্ধ্যা কাল জ্বালানো প্রদীপ — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø জয় পতাকা — জয় সূচক পতাকা — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø জ্যোৎস্নারাত — জ্যোৎস্না শোভিত রাত — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
Ø ডাকবাক্স — ডাক ফেলার বাক্স — মধ্যপদলোপী কর্মধারয়
v উপমান কর্মধারয় সমাসঃ
Ø কুসুমকোমল —- কুসুমের মতো কমল — উপমান কর্মধারয়
Ø বজ্রকন্ঠ —- বজ্রের ন্যায় কন্ঠ — উপমান কর্মধারয়
Ø শশব্যস্ত —- শশকের ন্যায় ব্যস্ত — উপমান কর্মধারয়
Ø কচুকাটা —- কচুর মতো কাটা — উপমান কর্মধারয়
Ø কাজলকালো —- কাজলের মতো কালো — উপমান কর্মধারয়
Ø তুষারশীতল —- তুষারের ন্যায় শীতল — উপমান কর্মধারয়
Ø পদ্ম আঁখি —- পদ্মের ন্যায় আঁখি — উপমান কর্মধারয়
Ø বাহুলতা —- বাহু লতার ন্যায় — উপমান কর্মধারয়
Ø চাঁদমুখ —- চাঁদের ন্যায় মুখ — উপমান কর্মধারয়
Ø রক্তকোমল —- রক্তের ন্যায় কোমল — উপমান কর্মধারয়
v উপমিত কর্মধারয় সমাসঃ
Ø ফুলকুমারী —- কুমারী ফুলের ন্যায় — উপমিত কর্মধারয়
Ø মনবিহঙ্গ —- মন বিহঙ্গের ন্যায় — উপমিত কর্মধারয়
Ø বাহুলতা —- বাহু লতার ন্যায় — উপমিত কর্মধারয়
Ø মুখচন্দ্র —- মুখ চন্দ্রের ন্যায় — উপমিত কর্মধারয়
Ø করপল্লব —- কর পল্লবের ন্যায় —। উপমিত কর্মধারয়
Ø চরণকমল —- চরণ কমলের ন্যায় — উপমিত কর্মধারয়
v রূপক কর্মধারয় সমাসঃ
Ø মোহনিদ্রা —- মোহ রূপ নিদ্রা — রূপক কর্মধারয়
Ø মনমাঝি —- মন রূপ মাঝি — রূপক কর্মধারয়
Ø যৌবনসূর্য —- যৌবন রূপ সূর্য — রূপক কর্মধারয়
Ø অলসতন্দ্রা —- অলস রূপ তন্দ্রা — রূপক কর্মধারয়
Ø জীবন নদী —- জীবন রূপ নদী — রূপক কর্মধারয়
Ø বিষাদসিন্ধু —- বিষাদ রূপ সিন্ধু — রূপক কর্মধারয়
Ø দিলদরিয়া —- দিল রূপ দরিয়া — রূপক কর্মধারয়
Ø জীবন প্রদীপ —- জীবন রূপ প্রদীপ — রূপক কর্মধারয়
Ø পরাণ পাখি —- পরাণ রূপ পাখি — রূপক কর্মধারয়
v তৎপুরুষ সমাসঃ
v দ্বিতীয়া তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø দুঃখপ্রাপ্ত —- দুঃখকে প্রাপ্ত — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø মাছধরা —- মাছকে ধরা — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø আমকুড়ানো —- আমকে কুড়ানো — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø চিরসুখী —- চিরকাল ব্যাপী সুখি — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø দেশভঙ্গ —- দেশকে ভঙ্গ — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø নবীনবরণ —- নবীনকে বরণ — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø বিস্ময়াপন্ন —- বিস্ময়কে আপন্ন — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø পৃষ্ঠপ্রদর্শন —- পৃষ্ঠকে প্রদর্শন — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø অতিথিসৎকার —- অতিথিকে সৎকার — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø প্রাণবোধ —- প্রানকে বোধ — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
Ø রথচালন —- রথকে চালনী — দ্বিতীয়া তৎপুরুষ
v তৃতীয়া তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø বাকবিতণ্ডা —- বাক দ্বারা বিতন্ডা — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø ছায়াশীতল —- ছায়া দ্বারা শীতল — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø মধুমাথা —- মধু দিয়ে মাখা — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø মেঘলুপ্ত —- মেঘ দ্বারা লুপ্ত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø শ্রমলব্ধ —- শ্রম দ্বারা লব্ধ — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø জনাকীর্ণ —- জন দ্বারা আকীর্ণ — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø মনগড়া —- মন দ্বারা গড়া — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø ঢেঁকিছাটা —- ঢেকি দ্বারা ছাটা — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø জ্ঞানশূন্য —- জ্ঞান দ্বারা শূন্য — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø পদদলিত —- পদ দ্বারা দলিল — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø অঙ্গুলিসংকেত —- অঙ্গুলি দ্বারা সংকেত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø ন্যায়সঙ্গত —- ন্যায় দ্বারা সঙ্গত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø জলসেচন —- জল দ্বারা সেচন — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø তমসাচ্ছন্ন —- তমসা দ্বারা আচ্ছন্ন — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø যুক্তিসঙ্গত —- যুক্তি দ্বারা সঙ্গত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø শোকার্ত —- শোক দ্বারা আর্ত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
Ø রাজদত্ত —- রাজা কর্তৃক দত্ত — তৃতীয়া তৎপুরুষ
v চতুর্থী তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø বিয়েপাগল —- বিয়ের জন্য পাগল — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø জয়মুকুট —- জয়ের নিমিত্তে মুকুট — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø তপোবন —- তপের নিমিত্তে বন — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø আয়কর —- আয়ের উপর কর — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø হজ্জ্বযাত্রা —- হজ্জ্বের জন্য যাত্রা — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø জীবনবীমা —- জীবনের জন্য বিমা — চতুর্থী তৎপুরুষ
Ø ধর্মকার্য —- ধর্মের নিমিত্তে কার্য — চতুর্থী তৎপুরুষ
v পঞ্চমী তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø পদচ্যুতি —- পদ থেকে চ্যুতি — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø জন্মান্ধ —- জন্ম থেকে অন্ধ — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø প্রাণ প্রিয় —- প্রাণের চেয়ে প্রিয় — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø দেশত্যাগ —- দেশ থেকে ত্যাগ — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø মুখভ্রাষ্ট —- মুখ থেকে ভ্রাষ্ট — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø যুদ্ধ বিরতি —- যুদ্ধ থেকে বিরতি — পঞ্চমী তৎপুরুষ
Ø দেশপলাতক —- দেশ থেকে পলাতক — পঞ্চমী তৎপুরুষ
v ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø রাজপথ —- পথের রাজা — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø পুষ্পসৌরভ —- পুষ্পের সৌরভ — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø ঝরনাধারা —- ঝরনার ধারা — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø কলঙ্করেখা —- কলঙ্কের রেখা — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø রাজহংস —- হংসের রাজা — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø গৃহকর্ত্রী —- গৃহের কর্ত্রী — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø গল্পপ্রেমিক —- গল্পের প্রেমিক — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø পাষাণ স্তুপ —- পাষানের স্তুপ — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø বিধি লিপি —- বিধির লিপি — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø বজ্রসম —- বজ্রের সম — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø গণতন্ত্র —- গনের নিয়ন্ত্রিত তন্ত্র — ষষ্ঠী তৎপুরুষর
Ø মৃগশিশু —- মৃগীর শিশু — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø প্রাণভয় —- প্রানের ভয় — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø চাবাগান —- চায়ের বাগান — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø বনমধ্যে —- বনের মধ্যে — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø রাজনীতি —- রাজার নীতি — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø খেয়াঘাট —- খেয়ার ঘাট — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
Ø মামাবাড়ি —- মামার বাড়ি — ষষ্ঠী তৎপুরুষ
v সপ্তমী তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø অকাল বার্ধক্য —- অকালে বার্ধক্য — সপ্তমী তৎপুরুষ
Ø বনভোজন —- বনে ভোজন — সপ্তমী তৎপুরুষ
Ø সলিল সমাধি —- সলিলে সমাধি — সপ্তমী তৎপুরুষ
Ø গাছ পাকা —- গাছে পাকা — সপ্তমী তৎপুরুষ
Ø রথারোহণ —- রথে আরোহন —সপ্তমী তৎপুরুষ
v নঞ তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø অনেক —- ন- এক — নঞ তৎপুরুষ
Ø অনাচার —- নেই আচার — নঞ তৎপুরুষ
Ø অক্ষত —- নয় ক্ষত — নঞ তৎপুরুষ
Ø অনতিবৃহৎ —- নয় অতি বৃহৎ — নঞ তৎপুরুষ
Ø অবিশ্বাস্য — নয় বিশ্বাস্য — নঞতৎপুরুষ
Ø অকাতর —- ন কাতর — নঞ তৎপুরুষ
Ø অনৈক্য —- ন ঐক্য — নঞ তৎপুরুষ
Ø অনাসক্ত —- নয় আসক্ত — নঞ তৎপুরুষ
Ø অনাশ্রিত —- নয় আশ্রিত — নঞ তৎপুরুষ
Ø নামঞ্জুর —- নয় মঞ্জুর — নঞ তৎপুরুষ
Ø অস্থির —- নয় স্থির — নঞ তৎপুরুষ
v উপপদ তৎপুরুষ সমাসঃ
Ø মধুকর —- মধু করে যে — উপপদ তৎপুরুষ
Ø গৃহস্থ —- গৃহে থাকে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø বাজিকর —- বাজি করে যে — উপপদ তৎপুরুষ
Ø ইন্দ্রজিৎ —- ইন্দ্রকে জয় করেছে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø পকেটমার —- পকেট মারে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø তিমিরবিদারী —- তিমির বিদীর্ণ করে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø পঙ্কজ —- পঙ্কে জন্মে যা —উপপদ তৎপুরুষ
Ø প্রিয়ংবদা —- প্রিয় কথা বলে যে নারী —উপপদ তৎপুরুষ
Ø ক্ষীণজীবী —- ক্ষীণভাবে বাঁচে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø মৃত্যুঞ্জয় —- মৃত্যুকে জয় করেছে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø বস্তুহারা —- বস্তু হারিয়েছে যে —উপপদ তৎপুরুষ
Ø মনোহারিণী —- মন হরণ করে যে নারী — উপপদ তৎপুরুষ।
Ø জাদুকর —- জাদু করে যে — উপপদ তৎপুরুষ
Ø সত্যবাদী —- সত্য কথা বলে যে — উপপদ তৎপুরুষ
v নিত্য সমাসঃ
Ø দেশান্তর —- অন্য দেশ —- নিত্য সমাস
Ø বাক্যান্তর —- অন্য বাক্য — নিত্য সমাস
Ø রূপান্তর —- অন্য রূপ — নিত্য সমাস
Ø গৃহান্তর —- অন্য গৃহ — নিত্য সমাস
Ø গ্রামান্তর —- অন্য গ্রাম —নিত্য সমাস
Ø কালান্তর —- অন্যকাল —নিত্য সমাস
Ø আমরা —- আমি,তুমি ও সে — নিত্য সমাস
Ø দ্বীপান্তর —- অন্য দ্বীপ — নিত্য সমাস
Ø তন্মাত্র —- কেবল মাত্র/তা — নিত্য সমাস
Ø অন্যন্তর —- অন্য জায়গায় — নিত্য সমাস
Ø মাথাপিছু —- প্রতি মাথা —নিত্য সমাস
Ø হস্তান্তর —- অন্য হস্ত — নিত্য সমাস
v বহুব্রীহি সমাসঃ
Ø মহাত্মা —- মহৎ আত্মা যার — বহুব্রীহি
Ø পাঁচগজ —- পাঁচ গজ পরিমাণ যার — বহুব্রীহি
Ø মন্দভাগ্য —- মন্দ ভাগ্য যার — বহুব্রীহি
Ø একরোখা —- এক দিকে রোখ যার — বহুব্রীহি
Ø সুশীল —- সু-শীল যার — বহুব্রীহি
Ø প্রাণচঞ্চল —- চঞ্চল যে প্রাণ — বহুব্রীহি
Ø সতীর্থ —- সমান তীর্থ যাদের — বহুব্রীহি
Ø কমবখত —- কম বখত যার — বহুব্রীহি
Ø দশানন —- দশ আনন যার — বহুব্রীহি
Ø উণানভ —- ঊণা নাভিতে যার — বহুব্রীহি
Ø সদর্প —- দর্পের সহিত বর্তমান — বহুব্রীহি
Ø অল্পপ্রাণ —- অল্প প্রান যার — বহুব্রীহি
Ø বীণাপাণি —- বীণা পানিতে যার — বহুব্রীহি
Ø বিমনা —- বিচলিত মন যার — বহুব্রীহি
Ø সহোদর —- সমান উদর যার — বহুব্রীহি
Ø দোভাষী —- দুই ভাষা জ্ঞান যার — বহুব্রীহি
Ø নদীমাতৃক —- নদী মাতা যার — বহুব্রীহি
Ø চন্দ্রচূড় —- চন্দ্র চূড়ায় যার — বহুব্রীহি
Ø তিমিরকুন্তলা —- তিমিরের ন্যায় কুন্তল যার — বহুব্রীহি
Ø সুহৃদয় —- সুন্দর হৃদয় যার — বহুব্রীহি
Ø চতুর্দশপদী —- চতুর্দশ পদ যার — বহুব্রীহি
Ø বিপত্নীক —- বিগত পত্নী যার — বহুব্রীহি
v নঞ বহুব্রীহি সমাসঃ
Ø অনাশ্রিত —- নেই আশ্রয় যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø অনিবার্য —- নিবারন করা যায় না যা — নঞ বহুব্রীহি
Ø নিরর্থক —- নেই অর্থ যাতে — নঞ বহুব্রীহি
Ø বেহিসাবি —- নেই হিসাব যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø বিশ্রী —- শ্রী নেই যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø বেতার —- নেই তার যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø বেওয়ারিশ —- নেই ওয়ারিশ যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø অনসূয়া —- নেই অসূয়া যার — নঞ বহুব্রীহি
Ø বেহায়া —- নেই হায়া যার — নঞ বহুব্রীহি
v ব্যতিহার বহুব্রীহি সমাসঃ
Ø হাসাহাসি —- হাসতে হাসতে যে ক্রিয়া — ব্যতিহার বহুব্রীহি
Ø হাতাহাতি —- হাতে হাতে যে দ্বন্দ্ব — ব্যতিহার বহুব্রীহি
Ø কানাকানি —- কানে কানে যে কথা — ব্যতিহার বহুব্রীহি
Ø কোলাকুলি —- কোলে কোলে যে মিলন — ব্যতিহার বহুব্রীহি
Ø গলাগলি —- গলায় গলায় যে মিল — ব্যতিহার বহুব্রীহি
Ø রক্তারক্তি —- রক্তে রক্তে যে যুদ্ধ — ব্যতিহার বহুব্রীহি
v দ্বিগু সমাসঃ
Ø শতাব্দী —- শত অব্দের সমাহার —দ্বিগু সমাস
Ø তেপান্তর —- তে প্রান্তর সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø সপ্তর্ষি —- সপ্ত ঋষির সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø সেতার —- সে তারের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø চতুর্ভুজ —- চতুঃ ভূজের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø সপ্তাহ —- সপ্ত অহের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø পশুরী —- পাঁচ সেরের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø ত্রিলোক —- ত্রি লোকের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø পঞ্চবটী —- পঞ্চ বটের সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø ত্রিফলা —- ত্রি ফলার সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø চৌরাস্তা —- চৌ রাস্তার সমাহার — দ্বিগু সমাস
Ø ষড়ভুজ —- ষড় ভুজের সমাহার — দ্বিগু সমাস
v অব্যয়ীভাব সমাসঃ
Ø হাভাত —- ভাতের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø উচ্ছাস —- শ্বাসকে অতিক্রান্ত —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø যথাসাধ্য —- সাধ্যকে অতিক্রম না করা —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø আকর্ণ —- কর্ণ পর্যন্ত —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø যথারীতি —- রীতিকে অতিক্রম না করা —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø উপজেলা —- জেলার ক্ষুদ্র —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø আলুনি —- নুনের অভাব — অব্যয়ীভাব সমাস
Ø আমূল —- মূল পর্যন্ত — অব্যয়ীভাব সমাস
Ø উদ্বেল —- বেলাকে অতিক্রান্ত — অব্যয়ীভাব সমাস
Ø আপাদমস্তক —- পা হতে মাথা পর্যন্ত —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø দুর্ভিক্ষ —- ভিক্ষার অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø অতিমাত্র —- মাত্রাকে অতিক্রম —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø হরতাল —- তালের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø যথাবিধি —- বিধিকে অতিক্রম না করা —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø অনুগমন —- গমনের পশ্চাৎ —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø প্রতিদান —- দানের বিপরীত —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø উপকন্ঠ —- কন্ঠের সমীপে —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø প্রতিচ্ছবি —- সদৃশ সদৃশ —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø প্রতিক্ষণ —- ক্ষণ ক্ষণ —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø বেওয়ারিশ —- ওয়ারিশের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø গরমিল —- মিলের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস প্রতিক্ষণ —- ক্ষণ ক্ষণ —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø বেওয়ারিশ —- ওয়ারিশের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø গরমিল —- মিলের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস প্রতিক্ষণ —- ক্ষণ ক্ষণ —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø বেওয়ারিশ —- ওয়ারিশের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস
Ø গরমিল —- মিলের অভাব —অব্যয়ীভাব সমাস।

১ম থেকে ৪৩তম বিসিএস প্রশ্ন ও সমাধান লিংক

Professor Primary Assistant Teacher book লিংক

ইংরেজি

ইংরেজি ব্যাকরণ

প্রশ্ন বিগত ৩০ বছরের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর
Parts of Speech বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Article বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Appropriate Preposition  বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Preposition বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Right forms of verb বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Voice বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Narration বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Phrase and Idioms বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
prefix and suffix বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Word Meaning বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Synonym-Antonym বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Spelling বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Translation /Vocabulary বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
Sentence Correction বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
English literature বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
One word Substitutions বিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক
প্রায় ৩০০টি প্রশ্ন উত্তরসহবিগত সালের নিয়োগ পরীক্ষায় আসার প্রশ্ন ও উত্তর লিংক

চাকুরি

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *