তোমার দেখা কোন গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের অভিজ্ঞতার আলোকে লিখ

তোমার দেখা কোন গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানের অভিজ্ঞতার আলোকে লিখ

৬ষ্ঠ/৭ম/৮ম পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে কারুশিল্পের ব্যবহার এবং তার নান্দনিক দিকগুলি মূল্যায়ন কর।

সংকেত:

  • ০১। কোন্ কোন্ ক্ষেত্রে কারুশিল্পের ব্যবহার করা হয় তা চিহ্নিত কর। (যেমন: কুলা, ডালা)
  • ০২। কী কী উপকরণ ও কীভাবে নান্দনিক রূপ দেয়া হয় তা’ উল্লেখ কর।

উত্তর:

গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে কারুশিল্পের ব্যবহার এবং তার নান্দনিক দিক

গায়ে হলুদ বাঙালি জাতির বহুল প্রচলিত উৎসবের মধ্যে একটি। এই উৎসব বহুকাল বংশ পরম্পরায় চলে আসছে। আর গায়ে হলুদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো হলুদ। এটি ছাড়া গায়ে হলুদ কল্পনা করা যায় না। এছাড়াও বিভিন্ন জিনিসপত্র করা হয়, কারুশিল্পের ব্যবহার এবং নান্দনিকভাবে জিনিসগুলোকে ফুটিয়ে তোলা হয়।

আমার দেখা গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে যে সব উপকরণ ব্যবহৃত হয়েছিল সেগুলো হলো –


১. কুলা,

২. ডালা,

৩. বাটি,

৪. ফলমূল,

৫. হলুদের পোশাক,

৫. গায়ে হলুদ নেমপ্লেট ইত্যাদি।

উপরিউক্ত জিনিসগুলো নানারকম কারুকাজ করে নান্দনিক রূপ দেয়া হয়ে থাকে। নিচে যেভাবে জিনিসপত্র গুলোতে নানারকম কারুকাজ করে নান্দনিক রূপ দেয়া হয় তা বর্ণনা করা হলো :

ডালা- হলুদের ডালা দিয়েই শুরু হয় বিয়ের প্রথম পর্ব। আর সেখানে থাকে বর-কনেকে দেয়া উপহার সামগ্রীসহ আরো অনেক কিছু্। প্রথমদিকে শুধু বেতের ঢালাই প্রচলন ছিল। এখন সুদৃশ্য পলি অথবা কাপড় দিয়ে মোড়া বিভিন্ন সুন্দর সুন্দর ডালা পাওয়া যায়। সঙ্গে লেইসফিতা জড়িয়ে ডালায় আনা হচ্ছে নতুনত্ব। মাছের ও পোশাকের ডালা রঙিন সেলোফেন পেপার এবং নানা রঙের নেটের কাপড় পেচিয়ে চারপাশে সোনালী রঙের ফিতা দিয়ে বেঁধে সাজানো হয়। ফলে এটি অনেক সুন্দর লাগে।

কুলা- এখনকার বিয়ের গায়ে হলুদের কুলায় থাকে নতুনত্ব। যেখানে থাকে বিভিন্নভাবে নকশা করা কারুকাজ। কুলার চারদিক বিভিন্ন রঙের কাপড় দিয়ে মোড়ানো থাকে এবং ভিতরে বিভিন্ন পাতা, ফুল ইত্যাদি নকশা করা থাকে যা দেখতে অনেক সুন্দর লাগে।

গায়ে হলুদের পোশাক- আমাদের দেশের গায়ে হলুদের প্রচলিত পোশাকের মধ্যে রয়েছে হলুদ পাঞ্জাবি এবং হলুদ রঙের শাড়ি। আত্মীয়-স্বজনরা কমবেশি সবাই হলুদ পাঞ্জাবী পড়ে, যাতে লতাপাতা ইত্যাদির কিছু কারুকাজ থাকে এবং শাড়ির ক্ষেত্রে মেয়েদের থাকে হলুদ শাড়ি। হলুদের শাড়ির পাড় হয় সাধারণত লাল রঙের, যাতে কিছু কারুকাজও করা থাকে। তবে বর হলুদে গেঞ্জি এবং লুঙ্গি পড়ে থাকে।

গায়ে হলুদ নেমপ্লেট- বর ও কনে উভয় পক্ষের গায়ে হলুদে বর-কনের নাম অনুসারে নেমপ্লেট টাঙ্গানো হয়, যা বিভিন্নভাবে ডিজাইন করা হয়। সেখানে থাকে গায়ে হলুদের সাজ এবং গায়ে হলুদ লেখায় বৈচিত্রতা।

ফলমূল- গায়ে হলুদে বর-কনের সামনে বিভিন্ন ফলমূল যেমন- কলা, আপেল ইত্যাদিতে কারুকাজ করা হয়। এসব ফল নানাভাবে কেটে তাতে নতুন রূপ দেয়া হয়, যা সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

Assignment

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *