চিংড়ি, মৌমাছি, ফিতা কৃমি, সাপ, কাক, তারা মাছ, ঝিনুক, রুই মাছ, বিড়াল, হাইড্রা প্রাণীগুলাে থেকে যে কোনাে ৮টির পর্ব, বৈশিষ্ট্য ও বাসস্থান উল্লেখ করে একটি ছক তৈরি কর।

চিংড়ি, মৌমাছি, ফিতা কৃমি, সাপ, কাক, তারা মাছ, ঝিনুক, রুই মাছ, বিড়াল, হাইড্রা প্রাণীগুলাে থেকে যে কোনাে ৮টির পর্ব, বৈশিষ্ট্য ও বাসস্থান উল্লেখ করে একটি ছক তৈরি কর।

৬ষ্ঠ/৭ম/৮ম পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

চিংড়ি, মৌমাছি, ফিতা কৃমি, সাপ, কাক, তারা মাছ, ঝিনুক, রুই মাছ, বিড়াল, হাইড্রা প্রাণীগুলাে থেকে যে কোনাে ৮টির পর্ব, বৈশিষ্ট্য ও বাসস্থান উল্লেখ করে একটি ছক তৈরি কর।

এগুলাের মধ্যে থেকে তােমার পরিচিত প্রাণীগুলাের কিরুপ প্রভাব তােমার জীবনে রয়েছে তা উল্লেখ কর।

সংকেত: ক) প্রভাব নিরূপনে উপকারী ও অপকারী উভয় দিক বিবেচনা করা;

উত্তর:

চিংড়ি, মােমাছি, ফিতাকৃমি, মাপ, কাক, ঝিনুক, বিড়াল, রুই মছি ইত্যাদি প্রাণীগুলাের পর্ব, বৈশিষ্ট্য ও বাসস্থান নিম্নে উল্লেখ করা হল-

প্রাণীর নামপর্ববৈশিষ্ঠ্যবাসস্থানউপকারিতাঅপকারিতা
১) চিংড়িআথ্রোপােডা (Arthropoda)মাথায় একজোড়া পুঞ্জাক্ষি ও অ্যান্টেনা থাকে। দেহ বিভিন্ন অঞ্চলে বিভক্ত ও মন্ধিযুক্ত উপাঙ্গ বিদ্যমান । নরম দেহ কাইটিন সমৃদ্ধ শক্ত আবরণী দ্বারা আবৃত। দেহের রক্তপূর্ণ গহবরহিমােসিল নামে পরিচিত ।এরা পৃথিবীর প্রায় সর্বত্র সকল পরিবেশে  বসবাস করে। এদের বহু প্রাণী স্থলে স্বাদু পানিতে ও সমুদ্রে বাস করে। চিংড়ি মাছ আমাদেরকে অর্থনৈতিকভাবে সাহায্য করে থাকে ।কারাে কারো ক্ষেত্রে চিংড়ি মাছ খেলে। এলার্জি জনিত সমসস হতে পারে
 ০২) মৌমাছিআথ্রোপােডা (Arthropoda)মাথায় একজোড়া পুঞ্জাক্ষি ও অ্যান্টেনা থাকে । দেহ বিভিন্ন অঞ্চলে বিভক্ত ও সন্ধিযুক্ত উপাঙ্গ বিদ্যমান। নরম দেহ কাইটিন সমৃদ্ধ শক্ত আবরণী দ্বারা আবৃত। দেহের রক্তপূর্ণ গহবর হিমােসিল নামে পরিচিত ।এরা পৃথিবীর প্রায় সর্বত্র সকল পরিবেশে বসবাস করে। এদের বহু প্রাণী স্থলে ,স্বাদু পানিতে ও সমুদ্রে বাস করে।মৌমাছি সাহায্যেউৎপাদিত মধু আমাদেরকে অর্থনৈতিকভাঘে সাহায্য করে থাকে ।মােমাছির কামড়ে বিষাক্ত জনিত ব্যথা 
৩) ফিতা কৃমিপ্লাটিহেলমিনথেস (Platyhelminthes)দেহ চ্যাপ্টা, উভলিঙ্গ। এরা বহিঃপরজীবী ও অন্তঃপরজীবী । পুরাে কিউটিকল দ্বারা আবৃত থাকে দেহে চোষক ও আংটা থাকে । দেহে শিখা অঙ্গ নামে বিশেষ অঙ্গ। থাকে। এগুলাে রেচন অঙ্গ হিসেবে কাজ করে। পােষ্টিকতন্ত্র অসম্পূর্ন বা অনুপস্থিত।এই পর্বের বহু প্রজাতির বহিঃপরজীবী, অন্তঃপরজীবী হিসেবে অন্য জীব দেহের বাইরে বা ভিতরে বসবাস করে । পর্বের কিছু প্রজাতি মুক্তজীবী হিসেবে। স্বাদু পানিতে আবার কিছু প্রজাতি লবণাক্ত পানিতে বাস করে । তবে এ পর্বের কোনাে কোনাে প্রাণী ভেজা ও সাঁতস্যাঁতে মাটিতে বাস করে।ফিতাকৃমির কোন উপকারিতা নেই ।ফিতাকৃমি দেহে বমি বমি ভাব, পেট [ব্যথা ইত্যাদি সৃষ্টি করতে পারে।
৪) সাপ কর্ডাটা (Chordata) এর সরীসৃপ (Reptilia),বুকে ভর করে চলে । ত্বক শুষ্ক ও আঁশযুক্ত । চারপায়েই পাঁচটি করে নখর যুক্ত আঙ্গুল আছে ।এরা বৃক্ষবাসী, মরুবাসী, মেরুবাসী, গুহাবাসী, খেচর ইত্যাদি হয়ে থাকে।ধান ক্ষেতের ইদুর এবং ক্ষতিকর পােকা দমনে সাপ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। সাপের কামড়ের ফলে বিষের মাধ্যমে মানুষের মৃত্যু ঘটতে পারে।
৫) কাককর্ডাটা (Chordata) এর পক্ষীকুল (Aves)দেহ পালকে আবৃত । দুটি ডানা, দুটি পা ও একটি চঞ্চ আছে । ফুসফুসের সাথে বায়ুথলিথােকায় সহজে উড়তে পারে । এরা উষ্ণ রক্তের প্রাণী । হাড় শক্ত, হালকাএরা বৃক্ষবাসীকাক পরিবেশের ময়লা আবর্জনা খেয়ে পরিবেশকে দূষণমুক্ত কর। কাক মানুষের উৎপাদিত বিভিন্ন ফল গাছ থেকে খেয়ে নষ্ট করে ফেলে ।।
 ৬) ঝিনুক মলাস্কা (Mollusca)দেহ নরম । নরম দেহটি সাধারণত শক্ত খােলস দ্বারা আবৃত থাকে। পেশীঘহুল পা দিয়ে এরা চলাচল। করে । ফুসফুস বা ফুলকার সাহায্যে শ্বাসকার্য চালায় ।এদের প্রায় সবাই সামুদ্রিক এবং সাগরের বিভিন্ন স্তরে বাস করে। তবে কিছু কিছু প্রজাতির পাহাড়ি অঞ্চলে বন-জঙ্গলে ও স্বাদু পানিতে বাস করে। সবুজ ঝিনুক পেশি, টিস্যু ও কোশকে। চাঙ্গা করে তােলে, যা স্নায়ুর বিকাশে সহায়ক। অ্যাস্থমা। রােগীদের জন্য ঝিনুক অত্যন্ত উপকারী । ঝিনুকে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকায় এটি বাতের ব্যথা ও শরীরের স্টিফনেস সারাতে সহায়ক। দেহের প্রতিরােধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে ঝিনুক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। পালন করে । পাচনতন্ত্র এবং প্লীহ রােগে আক্রান্ত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে ঝিনুক মারাত্মক ধরনের সমস্যা হয়
৭) রুই মছিকর্ডাটা(Chordata)অধিকাংশই স্বাদু পানির মাছ । মাথার দুই পাশে ৪ জোড়া ফুলকা থাকে। ফুলকা গুলাে কানকো দিয়ে ঢাকা থাকে । ফুলকার সাহায্যে শ্বাসকার্য চালায় ।স্বাদু পানি ,সমুদ্র ইত্যাদি।রুই মাছ আমাদেরকে অর্থনৈতিক ভাবে সাহায্য করে ।অতিরিক্ত মাছ খেলে রােগ প্রতিরােধক্ষমতা কমে গিয়ে শরীর ভাইরাস বা ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত হতে পারে, হতে পারে রােগ সংক্রমণ। 
৮) বিড়াল স্তন্যপায়ী(Mammalia)দেহ লােমে আবৃত থাকে। উষ্ণ রক্তের প্রাণী । চোয়ালে বিভিন্ন ধরনের দাঁত থাকে। হৃদপিণ্ড চার প্রকোষ্ঠ বিশিষ্ট।এরা স্থলে বসবাস করে ।বিড়াল ঘরের নিরাপত্তা ও স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সাহায্য করে । বিড়ালের আঁচড়ে কামড়ে বিভিন্ন রকমের রােগের সৃষ্টিহতে পারে। 

আর এইভাবে উপরােক্ত আলােচনার মত আমাদের জীবনে এসকল পরিচিত প্রাণীগুলাে বিভিন্ন রকম প্রভাব ফেলে ।

Assignment

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *