hsc/এইচএসসি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র সংক্ষিপ্ত সাজেশন ২০২১, ফাইনাল সাজেশন এইচএসসি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র ২০২১, hsc history and culture of islam 2nd paper suggestion 100% common guaranty, special short suggestion hsc suggestion history and culture of islam 2nd paper 2021

hsc/এইচএসসি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র সংক্ষিপ্ত সাজেশন ২০২১, ফাইনাল সাজেশন এইচএসসি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র ২০২১, hsc history and culture of islam 2nd paper suggestion 100% common guaranty

এইচ এস সি পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা সাজেশন
শেয়ার করুন:

বিষয়: এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র সাজেশন ২০২১

ভারতে মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠার সময়ে পরিক্রমা অনুযায়ী উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলী সংক্ষিপ্ত বিবরণ সহ একটি পোস্টার তৈরি করো।

শিখনফল :

  • মুহাম্মদ বিন কাসিমের সিন্ধু ও সুলতান বিজয়ের কারণ ও ফলাফল বিশ্লেষণ করতে পারবে।
  • সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের উদ্দেশ্য ও ফলাফল মূল্যায়ন করতে পারবে।
  • মইজুদ্দিন মোহাম্মদ ঘড়ি করতে ভারত উপমহাদেশে মুসলিম শাসন প্রতিষ্ঠার সংশ্লিষ্ট ঘটনাবলী বর্ণনা করতে পারবে।

নির্দেশনা :

  • ক ) মুহাম্মদ বিন কাসিমের অভিযানের কারণ বর্ণনা।
  • খ) সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের উদ্দেশ্য ও ফলাফল বিশ্লেষণ।
  • গ) মইজ উদ্দিন মুহাম্মদ ঘুরীর অভিযানের পূর্ব ভারতের রাজনৈতিক অবস্থার বিবরণ।
  • ঘ) উল্লেখযোগ্য ঘটনাবলী সম্বলিত পোস্টার তৈরি করন।

উত্তর: লিংক

পূর্ব বাংলার প্রতি পাকিস্তানের সীমাহীন বৈষম্যমূলক আচরণের ফলেই পূর্ববাংলায় বিভিন্ন আন্দলনের সূত্রপাত ঘটেছিল এ বিষয়ে যৌক্তিকতা নিরূপণ।

অ্যাসাইনমেন্ট ও অধ্যায়ের শিরােনাম: অধ্যায়-পঞ্চম; বাংলার ইতিহাস (পাকিস্তান আমল)।

শিখনফল/বিষয়বস্তু:

পূর্ব বাংলার প্রতি পাকিস্তানের বৈষম্যমূলক আচরণ ব্যাখ্যা করতে পারবে।

নির্দেশনা (সংকেত/ধাপ/পরিধি):

ক), পূর্ব বাংলার প্রতি পাকিস্তানের রাজনৈতিক বৈষম্য ব্যাখ্যা।

খ). পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যেকার প্রশাসনিক ও সামরিক বৈষম্যের সংখ্যাতাত্ত্বিক বিশ্লেষণ।

গ), পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের মধ্যেকার। আর্থ-সামাজিক বৈষম্যের তুলনামূলক চিত্র পর্যালােচনা।

ঘ) পূর্ব বাংলার শিক্ষা সংস্কৃতির উন্নয়নে বৈষম্যের ক্ষেত্রগুলাে পর্যালােচনা।

উত্তর: লিংক

বাইজান্টাইন সাম্রাজ্যের রাজধানী কনস্টান্টিনোপল অত্যন্ত সুরক্ষিত ছিল। মুসলমানরা অনেকবার চেষ্টা করেও সুরক্ষা ভেদ করতে পারেনি। শত্রুর মোকাবিলা এবং সময় বাঁচানোর জন্য সুলতান দ্বিতীয় মহম্মদ কাঠের তক্তার ওপরে চর্বি মেখে এক রাতে ৭০টি জাহাজ পাহাড়ের ওপর দিয়ে টেনে সেখানে প্রবেশ করান এবং কনস্টান্টিনোপল বিজয় করেন। ফলে বাইজান্টাইন সাম্রাজ্যের পতন হয় এবং মুসলিম শাসন ইউরোপে সম্প্রসারিত হয়। নির্যাতিত খ্রিস্টানরা মুসলমানদের সাদরে গ্রহণ করে। মুসলিম সভ্যতা ও সংস্কৃতি ইউরোপে বিস্তার লাভ করে।
প্রশ্ন:
ক. মুসলিম বিজয়ের প্রাক্কালে বাংলায় কোন বংশের রাজত্ব ছিল। ১
খ. বর্ণপ্রথা ব্যাখ্যা করো। ২
গ. উদ্দীপকের দ্বিতীয় মুহম্মদের অভিযানের সাথে বখতিয়ার খলজির বঙ্গ অভিযানের কৌশলগত কী মিল রয়েছে? ব্যাখ্যা করো। ৩
ঘ. উদ্দীপকের অভিযানের ফলাফলের সাথে বখতিয়ার খলজির বঙ্গ বিষয়ের ফলাফলের তুলনামূলক আলোচনা করো। ৪

উত্তর: লিংক

[ বি:দ্র:এই সাজেশন যে কোন সময় পরিবতনশীল ১০০% কমন পেতে পরিক্ষার আগের রাতে সাইডে চেক করুন এই লিংক সব সময় আপডেট করা হয় ]

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র ১ম অধ্যায়

সৃজনশীল প্রশ্ন ১ : অতি সম্প্রতি চীনের দুটি যুদ্ধ জাহাজ জাপানের টোকিও নিয়ন্ত্রিত সেনকাকু দ্বীপের জলসীমায় প্রবেশ করে। বেইজিং এর কাছে দ্বীপটি দিয়াউস নামে পরিচিত। এই দ্বীপটিতে নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য দু’বার অভিযান পরিচালনা করেছিল। কিন্তু দুটি অভিযানেই চীন পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে। পরাজয়ের গ্লানি মুছে ফেলার উদ্দেশ্যে তারা আবার অভিযান পরিচালনা করলো এবং সফল হলো।

ক. শাহনামা কী?
খ. সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য ব্যাখ্যা কর।
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত অভিযানের সাথে প্রাক-সালতানাত যুগের কোন অভিযানের বৈশিষ্ট্যগত সাদৃশ্য রয়েছে? বুঝিয়ে লিখ।
ঘ. উদ্দীপকের তৃতীয় অভিযানের সফলতা কি মুহাম্মদ বিন কাসিমের অভিযানের সফলতার অনুরূপ? ব্যাখ্যা কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ২ : ইয়াসিন ‘ক’ সাম্রাজ্যের ইতিহাস পাঠ করে জানতে পারে, সম্রাট M ও Z সম্রাট এর মৃত্যুর পর সমগ্র সাম্রাজ্যে ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এসব রাজ্যের মধ্যে পারস্পরিক শত্রুতা বিদ্যমান ছিল। এসব ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যে কোন প্রকার রাজনৈতিক ঐক্য বিদ্যমান ছিল না। তখন দেশে কোন প্রকার কেন্দ্রীয় সরকার ছিল না, ফলে তারা কোন প্রকার বহ্যিক্রমণের শক্তির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি।

ক. সুলতান মাহমুদ কত সালে সোমনাথ বিজয় করেন?
খ. সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের অর্থনৈতিক কারণসমূহ লিখ।
গ. ইয়াছিনের গঠিত ‘ক’ সাম্রাজ্যের ইতিহাসের সাথে তোমার পঠিত মুসলিম বিজয়ের প্রাক্কালে ভারতের রাজনৈতিক অবস্থা কতটুকু সামঞ্জস্যপূর্ণ?
ঘ. উদ্দীপকের বর্ণিত ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যগুলোর কী কী ব্যবস্থা নিলে বহিরাক্রমণের শক্তির প্রতিরোধ করতে পারত বলে তুমি মনে কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৩ : বিশাল সাম্রাজ্য ও প্রচণ্ড ক্ষমতার অধিকারী রাজা দ্বিতীয় জফস এর মৃত্যুর সাথে সাথেই সাম্রাজ্যে চরম বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়। যোগ্য উত্তরাধিকারী না থাকায় বিশাল সাম্রাজ্য ক্ষুদ্র ক্ষুণ্ন রাজ্যে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এসব রাজ্যগুলোর মধ্যে পরস্পরিক শত্রুতা বিদ্যমান থাকায় কোন বৈদেশিক আক্রমণ প্রতিহত করা তাদের পক্ষে সম্ভব ছিল না। রাজনৈতিক অরাজকতার পাশপাশি জীবনেও নেমে আসে দুর্ভোগ। বর্ণ বৈষম্যের কষাঘাতে নিম্নশ্রেণির মানুষ ছিল অারিত। পুরুষশাসিত সমাজে নারীদের কোনো মর্যাদা ছিল না। স্বামীর মৃত্যুর পর স্ত্রীকে দ্বিতীয়বার বিবাহ বন্ধনে আবন্ধ হতে দেয়া হতো না।

ক. সম্রাট হর্ষবর্ধনের সমসাময়িক বাংলার শাসনকর্তা কে?
খ. ভারতবর্ষকে নৃতত্ত্বের জাদুঘর’ বলা হয় কেন?
গ. উদ্দীপকে বর্ণিত সমাজজীবনের সাথে মুসলিম বিজয়পূর্ব ভারতের সামাজিক অবস্থার কী মিল রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকের আলোকে মুসলিম বিজয়পুর উত্তর ভারতের রাজনৈতিক অবস্থার সংক্ষিপ্ত বিবরণ দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৪ : সিংহজানির রাজা জামালপুরের শাসনকর্তার নিকট ৮ ট্রাক উপহার সামগ্রী পাঠান। কিন্তু নন্দীপুরের নিকট দিয়ে আসার সময় ডাকাতেরা ট্রাকের মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। জামালপুরের শাসনকর্তা মির্জা মনি ডাকাতদের প্রত্যার্পণ অথবা লুটকৃত মালামাল ফেরত দিতে নন্দীপুরের রাজা নন্দলালের নিকট দূত পাঠান। নন্দীপুরের রাজা এতে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন করলে জামালপুরের শাসনকর্তা মন্ত্রীপুর দখল করার জন্য সেনাপতি প্রেরণ করেন এবং ইহা দখল করেন।

ক. সুলতান মাহমুদ কোথাকার সুলতান ছিলেন।
খ. সুলতান মাহমুদ মন্দির আক্রমণ করেছেন কেন?
গ. উদ্দীপকের সাথে তোমার পাঠ্য বই এর কোন বিষয়ের সাদৃশ্য ও বৈসাদৃশ্য আছে? সংক্ষেপে বিজয়ের কারণগুলো লিখ।
ঘ. উদ্ভ বিজয় কী নিষ্ফল বিজয় ছিল? বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৫ : রশিদপুরের সুলতান “ক” কম্পপুরের রাজার বিরুদ্ধে যুদ্ধাভিয়ান করেন এবং চন্দ্রার প্রান্তরে উভয় পক্ষের তুমুল যুদ্ধ হয়। এতে রশিদপুরের রাজা চরমভাবে পরাজিত হন। এই যুদ্ধকে চন্দ্রার ১ যুদ্ধ বলে। পরের বছর রশিদপুরের রাজা আবার যুদ্ধাভিযান করেন এবং চন্দ্রার প্রান্তরে যুদ্ধে কম্পপুরের রাজাকে পরাজিত করে কম্পপুর অধিকার করেন।

ক. ভারতের প্রথম মুসলিম সুলতান কে ছিলেন?
খ. সুলতান মাহমুদ ও মুহাম্মদ ঘুরীর ভারত আক্রমণের মধ্যে প্রকৃতিগত পার্থক্য কী?
গ. উদ্দীপকের যুদ্ধের সাথে পাঠ্যবইয়ের কোন যুদ্ধের মিল আছে? আলোচনা কর।
ঘ. উক্ত সুলতানের ভারত বিজয়ের বিবরণ দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৬ : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের মাধবপুর এলাকায় বাদল মিয়ার লোকেরা সিলেটের চা ব্যবসায়ী তাহের মহাজনের চা বোঝাই ৮টি ট্রাক ছিনতাই করে। তাহের মহাজন তা ফেরত চাইলে বাদল মিয়া তার দায় অস্বীকার করে। এতে তাহের মহাজন ক্ষিপ্ত হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযানের সিদ্ধান্ত নেন। তবে বাদল মিয়ার সাথে তার আগে থেকেই কিছু বিষয়ে বিরোধ ছিল।

ক. ভারতে মুসলিম সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা কে?
খ. সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযানের অর্থনৈতিক উদ্দেশ্য ব্যাখ্যা কর।
গ. উদ্দীপকের সাথে সিন্ধু অভিযানের কোন দিকটি সাদৃশ্যপূর্ণ? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকের মতো উক্ত অভিযানের কি পরোক্ষ আরও কারণ ছিল? বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৭ : কেশবপুরের শাসনকর্তা খায়রুজ্জামান পার্শ্ববর্তী দেশ খড়মপুর বারবার আক্রমণ চালিয়ে প্রতিটি অভিযানে জয়লাভ করে। কিন্তু স্থায়ীভাবে রাজ্য দখল করা কিংবা শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করা কোনোটাই তার উদ্দেশ্য ছিল না। তার আসল উদ্দেশ্য ছিল খড়মপুর থেকে টাকা-পয়সা, মণিমুক্তা সংগ্রহ করে নিজ দেশকে অর্থনৈতিক দিক থেকে সমৃদ্ধ ও শক্তিশালী করা।

ক. দেবল বন্দর কোথায় অবস্থিত?
খ. তরাইনের দ্বিতীয় যুদ্ধের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর।
গ. কেশবপুরের শাসনকর্তা খায়রুজ্জামানের সাথে তোমার পাঠ্যবইয়ের কোন শাসকের যুদ্ধাভিযানের সাদৃশ্য পাওয়া যায়? বিশ্লেষণ কর।
ঘ. কেশবপুরের শাসকের সাথে তোমার পাঠ্যবইয়ের কোন শাসকের তুলনা করবে? মতামত দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৮ : আরিফ ‘ক’ সাম্রাজ্যের ইতিহাস পাঠ করে জানতে পারে যে, সম্রাট ‘M’ ও সম্রাট ‘Z’ এর মৃত্যুর পর সমগ্র সাম্রাজ্য ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এসব রাজার মধ্যে পারস্পরিক শত্রুতা বিদ্যমান ছিল। এসব ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যে কোনো প্রকার রাজনৈতিক ঐক্য বিদ্যমান ছিল না। তখন দেশে কোনো প্রকার কেন্দ্রীয় সরকারও ছিল না। ফলে তারা কোনো প্রকার বহিরাক্রমণের বিরুদ্ধে শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি।

ক. কে সিন্ধু ও মুলতান জয় করেন?
খ. আরবদের সিন্ধু অভিযানের প্রাক্কালে ভারতের সামাজিক অবস্থা কেমন ছিল?
গ. আরিফের পঠিত ‘ক’ সাম্রাজ্যের ইতিহাসের সাথে তোমার পঠিত মুসলিম বিজয়ের প্রাক্কালে ভারতের রাজনৈতিক অবস্থা কতটুকু সামঞ্জস্যপূর্ণ? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকে বর্ণিত ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র রাজ্যগুলো কী কী ব্যবস্থা নিলে বহিঃ আক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারত বলে তুমি মনে কর? উত্তরের সপক্ষে যুক্তি দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৯ : সম্প্রতি চীনের দুটি যুদ্ধ জাহাজ জাপান নিয়ন্ত্রিত সেনকাকু দ্বীপের অলসীমায় প্রবেশ করে। চীনের কাছে দ্বীপটি দিয়াস নামে পরিচিতি এবং এটিকে তারা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার জন্য দু’বার অভিযান প্রেরণ করে। কিন্তু এ অভিযান দুটিতে তারা ব্যর্থ হয়েছিল দু’বছরের পরাজয়ের মানি মুছে ফেলার জন্য তারা আবার অভিযান প্রেরণ করে এবং এই অভিযানে সফল হয়।

ক. হাজ্জাজ বিন ইউসুফ কে ছিলেন?
খ. আরবদের ভারত অভিযানের প্রাক্কালে কনৌজ-এর অবস্থা কেমন ছিল?
গ. উদ্দীপকে ইঙ্গিতকৃত অভিযানের ঘটনাবলি ভারতের ইতিহাসে কোন ঘটনার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উক্ত অভিযানের ফলে ব্রাহ্মণ্যবাদ, আল্যের ও মুলতানের পড়ন ঘটেছিল? বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ১০ : রাজশাহীর ছেলে আখতার জয়পুরহাটের বন্ধু শ্যামলের বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে লক্ষ করা সেখানে সমাজে বর্ণপ্রথা খুবই প্রকট। সমাজ চারটি বর্গে বিভক্ত। তন্মধ্য দুটি বর্ণের প্রভাব প্রতিপত্তি খুব বেশি। সে এক নিম্ন শ্রেণির মানুষের কাছ থেকে জানতে পারে যে, ধর্মশাস্ত্র শুনলে বা পাঠ করলে তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়া হয়। এছাড়া হিন্দু সমাজে আখতার এক শ্রেণির লোক দেখতে পায় যারা অস্পৃশ্য বলে পরিচিত। শ্যামলের সমাজে অনেক মেয়েকে ১২ বছর বয়সে বিবাহের পিঁড়ায় বসতে হয় এবং অনেক পুরুষকে ৪/৫ টা বিবাহ করতে দেখা যায়। শামসের সমাজব্যবস্থা আখতারকে পীড়া দেয়।

ক. মুহম্মদ বিন কাশিম কত সালে সিন্ধু অভিযান চালান?
খ. সুলতান মাহমুদের ভারত অভিযান বলতে কী বোঝায়?
গ. আখতারের দেখা শ্যামলের সমাজব্যবস্থার সাথে মুসলিম বিবায়ের প্রাক্কালে ভারতের সামাজিক ব্যবস্থার কি মিল লক্ষ করা যায়? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. সমাজব্যবস্থা কেমন হলে আখতার দুঃখ না পেয়ে বরং খুশি হতো? মতামত দাও।

সাজেশন সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র ৫ম অধ্যায়

সৃজনশীল প্রশ্ন ১ : আলভী গার্মেন্টসের কর্ণধার কাদের চৌধুরী তার অধীন কর্মচারীদের নিয়োগবিধি মোতাবেক প্রাপ্য মজুরি বোনাস, স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশ ইত্যাদি সুবিধা প্রদানে দীর্ঘদিন ধরে বঞ্চিত করে আসছিল। এতে বিক্ষুদ্ধ কর্মচারীরা একত্রিত হয়ে পাবি আদায়ে শ্রমিক সংঘ গড়ে তোলে এবং বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করে। আন্দোলনের চাপে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের দাবি মেনে নেওয়া হলেও পরবর্তীতে বিভিন্ন অজুহাত ও কৌশলে মালিক তাদের ঐক্য ভেঙে দেয় এবং কঠোর নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে একচ্ছত্র কর্তৃত্ব স্থাপন করে।

ক. ‘লাহোর প্রস্তাব’-এর উত্থাপক কে?
খ. ছিয়াত্তরের মন্বন্তর কেন ঘটেছিল?
গ. উদ্দীপকের শ্রমিক সংঘ গড়ে তোলার সাথে যুক্তফ্রন্ট গঠনের কী সাদৃশ্য পাওয়া যায়? ব্যাখ্যা করো।
ঘ. তুমি কি মনে কর শ্রমিক সংঘের আন্দোলনের পরিণতির মতোই যুক্তফ্রন্টের পরিণতিও একই হয়েছিল? উত্তরের সপক্ষে যুক্তি দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ২ : খনিজ সম্পদে ভরপুর আফ্রিকার একটি দেশ সুদান। এ দেশের উত্তরাঞ্চলের আয়তন দক্ষিণাঞ্চলের চেয়ে অনেক বড় হলেও জনসংখ্যা তুলনামূলক অনেক কম। এ ছাড়া উত্তরাঞ্চলে নদীনালা কম থাকার কারণে এখানকার ভূমি ছিল অনুর্বর এবং কোথাও কোথাও মরুময়। অন্যদিকে নদীবিধৌত দক্ষিণ সুদান ছিল উর্বর এবং খনিজ সম্পদগুলোও ছিল এ অঞ্চলে অবস্থিত। রাষ্ট্রক্ষমতায় উত্তর সুদানের একচ্ছত্র আধিপত্য থাকায় দক্ষিণ সুদানকে অর্থনৈতিকভাবে বঞ্চিত করে। উত্তর সুদান সম্পদের পাহাড় গড়ে তোলে। এ অবস্থায় দক্ষিণ সুদান সশস্ত্র আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীনতার ডাক দিলে জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় গণভোটের মাধ্যমে দক্ষিণ সুদান স্বাধীনতা অর্জন করে।

ক. পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ জনগণের মাতৃভাষা কী ছিল?
খ. একুশে ফেব্রুয়ারি স্মরণীয় কেন? ব্যাখ্যা করো।
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত সুদানের ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্যের সাথে তদানীন্তন পাকিস্তানের ভৌগোলিক বৈশিষ্ট্যের সাদৃশ্য নিরূপণ করো
ঘ. উদ্দীপকে উল্লিখিত বৈষম্যের আলোকে তৎকালীন পূর্ব ও পশ্চিম পাকিস্তানের অর্থনৈতিক বৈষম্যের একটি চিত্র তুলে ধরো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৩ : বসনিয়া ছিল এক সময় সার্বিয়ার একটি প্রদেশ। বসনিয়ানরা রাষ্ট্রে সংখ্যাগরিষ্ঠ হলেও রাষ্ট্রক্ষমতা সার্বিয়ানদের হাতে ছিল। তারা বসনিয়ানদের ওপর বৈষম্য ও শোষণনীতি গ্রহণ করলে বসনিয়াবাসী স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে গুরুত্বপূর্ণ কিছু দফা ঘোষণা করে আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়ে। সার্বিয়া আন্দোলনকারীদের দমন করতে গেলে সেখানে গণআন্দোলনের সৃষ্টি হয়। শাসকগোষ্ঠীর হাতে বহু ছাত্রজনতা হতাহত হয়। যার ফলশ্রুতিতে বসনিয়া স্বাধীনতা অর্জন করেন।

ক. ছয় দফা কে ঘোষণা করেন?
খ. আইয়ুব খানের পতনের কারণ কী ছিল? ব্যাখ্যা কর।
গ. বসনিয়দের স্বায়ত্তশাসন দাবির আন্দোলনের সাথে বাঙালির কোন আন্দোলনের সাদৃশ্য রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. বসনিয়দের আন্দোলনের মতো বাঙালির উক্ত আন্দোলনও স্বাধীনতার পথ সুগম করেছিল বিশ্লেষণ করো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৪ : সাংবাদিক আবু নাছের সাহেব ছাত্ররাজনীতি বন্ধের পক্ষে কোনোমতেই একাত্ম নন। তিনি মনে করেন যে, ছাত্ররা আন্দোলনের মাধ্যমে মায়ের মুখের ভাষার কথা বলার অধিকার প্রতিষ্ঠা করেছে, সে ছাত্ররাই বড় রাজনীতিবিদ হয়ে দেশের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটাবে। ছাত্রদের বুকের তাজা রক্তের ইতিহাস জাতি আজও ভুলে যায়নি। ছাত্রদের অন্যতম কাজ অন্যায় ও অত্যাচারের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রাম পরিচালনা করা।

ক. লাহোর প্রস্তাব কত সালে উত্থাপিত হয়।
খ. ১৯৫৪ সালের নির্বাচনের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর।
গ. আবু নাছের সাহেবের বক্তব্যে যে আন্দোলনের প্রতিচ্ছবি প্রকাশিত হয়েছে তার ব্যাখ্যা দাও।
ঘ. বাংলাদেশে এ ধরনের একটি আন্দোলনে ছাত্রদের পাশাপাশি সকল শ্রেণি পেশার মানুষ জড়িত ছিল বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৫ : আলজেরিয়ার স্বাধীনতা সম্পর্কিত একটি নিবন্ধে রিবা জানতে পারে, আলজেরিয়ার স্বাধীনতা ৮ বছর আগে শুরু হয়েছিল। এ যুদ্ধে আলেজেরিয়ান ন্যাশনাল ফ্রন্ট নেতৃত্ব দেয়। এ যুদ্ধ পরিচালনার জন্য পার্শ্ববর্তী রাষ্ট্র মিসরের কায়রোতে একটি অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে। ওই সরকারের মূল দায়িত্ব ছিল কূটনৈতিক তৎপরতার মাধ্যমে আলজেরিয়ার স্বাধীনতার প্রতি বিশ্বমত অনসমর্থন সৃষ্টি।

ক. অপারেশন সার্চলাইট কখন শুরু হয়?
খ. ১৯৭০ সালের নির্বাচন কেন পেছানো হয়?
গ. আলজেরিয়ার অন্তবর্তী সরকারের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের গঠন বর্ণনা কর।
ঘ. উদ্দীপকে আলজেরিয়ার সরকারের ভূমিকা ও বাংলাদেশের সরকারের ভূমিকা কি একইরূপ? যুক্তিসহ মূল্যায়ন কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৬ : আদি সিদ্ধান্ত নিল তার একমাত্র মেয়েকে ইংরেজি মাধ্যমে লেখাপড়া করাবেন। আদির বড় ভাই মাহিন তার পূর্বসূরীদের আত্মত্যাগের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে ভাতিজিকে বাংলা মাধ্যমে পড়ানোর উপদেশ দিলেন।

ক. ১৯৫৪ এর নির্বাচনে কোন দলের ভরাডুবি ঘটে?
খ. ১৯৫৪ সালের নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের বিজয়ের কারণ কী ছিল?
গ. মাহিন কোন চেতনায় ভাতিজিকে বাংলা মাধ্যমে পড়ানোর উপদেশ দিলেন তা ব্যাখ্যা কর।
ঘ. মাহিনের এই ধরনের চেতনা বাঙালির জাতীয় জীবনে কী ভূমিকা রাখবে? তোমার মতামত দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৭ : রিপার কলেজের সব শিক্ষার্থী ও শিক্ষক খালি পায়ে ২১ ফেব্রুয়ারি প্রভাতফেরিতে বের হলো। প্রভাতফেরি শেষে তারা তাদের কলেজের শহিদ মিনারে ফুল দিয়ে প্রথা জানাল। সর্বশেষ তাদের অডিটোরিয়ামে আলোচনা অনুষ্ঠান হয়। আলোচনায় রিপাদের কলেজের অধ্যক্ষ বলেন, এ আন্দোলন আমাদের স্বাধীনতা আন্দোলনের সূচনা করে।

ক. যুক্তফ্রন্টের ২১ দফার প্রথম দফা কী?
ঘ. ভাষা আন্দোলনের ক্ষেত্রে তমদ্দুন মজলিশের গুরুত্ব বর্ণনা কর।
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত দিবসের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকে রিপাদের কলেজের অধ্যক্ষের বক্তব্যের সাথে তুমি কি একমত? তোমার উত্তরের পক্ষে লেখ।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৮ : পশ্চিম পাকিস্তানিরা পূর্ব-পাকিস্তানিদের ওপর চরম নির্যাতন চালাত। তারা সকল প্রকার ব্যাংক বিমা ও বাণিজ্যিকর কেন্দ্রগুলো পশ্চিম পাকিস্তানে গড়ে তুলেছিল। পূর্ব পাকিস্তানের সম্ভা কাঁচামাল দিয়ে তাদের অধিকাংশ বাণিজ্যকেন্দ্র ও কারখানা চলত। ফলে সহজেই সম্পদ পশ্চিম পাকিস্তানে পাচার হয়ে যেত এবং এজন্যই পূর্ব পাকিস্তান কখনোই উন্নত হতে পারেনি।

ক. পূর্ব পাকিস্তানের বাঁচার দাবি বলা হয় কোনটিকে?
খ. পূর্ব পাকিস্তানিদের প্রতি সামাজিক বৈষম্যর বর্ণনা দাও?
গ. উদ্দীপকে পূর্ব পাকিস্তানিদের ওপর কোন ক্ষেত্রে বৈষম্যের চিত্র প্রতিফলিত হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উক্ত বৈষম্যের ফলেই পূর্ব-পাকিস্তান সর্বদাই পশ্চিম পাকিস্তানের ওপর নির্ভরশীল ছিল- মন্তব্যটি মূলপাঠের আলোকে বিশ্লেষণ করে দেখাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৯ : আমিন সাহেব বিটিভিতে একটি প্রামাণ্য চিত্র দেখছিলেন। এতে আফ্রিকা অঞ্চলের জনগণের সংগ্রামের ঘটনা দেখাচ্ছিল। ঐ অঞ্চলের সম্পদ ও সামর্থ্য থাকা সত্ত্বেও সরকারের বৈষম্যনীতির কারণে তারা সকল ক্ষেত্রে বঞ্চিত ও শোষিত হতে থাকে। তাদের রক্ষার জন্য এগিয়ে আসেন এক মহান নেতা। তিনি দাবি জানালেন জনগণের স্বার্থরক্ষার জন্য প্রতিরক্ষা ও পররাষ্ট্র বিষয় কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে এবং ব্যবসা-বাণিজ্য, কর ও শুল্ক ধার্য এবং আদায়, আধা সামরিক বাহিনী গঠন ও পরিচালনা প্রদেশের হাতে থাকবে।

ক. মুজিব নগর সরকার কতো তারিখে শপথ গ্রহণ করেন?
খ. অপারেশন সার্চ লাইট কী? ব্যাখ্যা কর।
গ. উদ্দীপকে বর্ণিত নেতার দাবির সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কোন দাবির সাদৃশ্য লক্ষ করা যায়? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. তুমি কি মনে কর, উক্ত দাবিই বাংলাদেশের স্বাধিকার আন্দে ক্ষেত্র প্রস্তুত করে– যুক্তি দেখাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ১০ : ১৯৮৭ সালের ১০ নভেম্বর, বাঙালি জাতি গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে রাজপথে নেমে এসেছিল। নূর হোসেন নিজের বুকের তাজা রক্ত বিলিয়ে দিয়ে এদেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার সংগ্রামকে বেগবান করেছিলেন। হাজারো জনতার ভিড়ে নূর হোসেন ছিলেন সমুজ্জ্বল দেদীপ্যমান। খালি গা আর জিন্সের প্যান্ট পরা নূর হোসেন ছুটে যাচ্ছিলেন এ মিছিল থেকে ও মিছিলে। সবার চোখ আটকে যাচ্ছিল তার বুকে ও পিঠে। জীবন্ত এক প্রতিবাদী পোস্টার, যে পোস্টার পৃথিবীর সব প্রতিবাদী পোস্টারকে হার মানায়।

ক. ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে কয়টি দল অংশগ্রহণ করে?
খ. ছয়দফা দাবির যেকোনো একটি দাবি আলোচনা কর।
গ. উদ্দীপকে বর্ণিত স্বৈরাচারী আন্দোলনের সাথে পাকিস্তান আমলের কোন ঐতিহাসিক আন্দোলনের মিল রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকের মতো রক্তে রাজপথ রঞ্জিত হওয়ার ফলেই কি আমাদের স্বাধীনতার পথ উন্মুক্ত হয়েছিল? ব্যাখ্যা করো।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি ২য় পত্র ৬ষ্ঠ অধ্যায়

সৃজনশীল প্রশ্ন ১ : এত পাহাড়পুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদটি দক্ষিণ অঞ্চলের অধিকারে ছিল। এর ফলে উন্নয়নমূলক কাজ উত্তরাঞ্চল থেকে দক্ষিণাঞ্চলে বেশি হয়েছে। স্কুল, ডাকঘর, কমিউনিটি সেন্টার, খেলার মাঠ, রাস্তাঘাট, বাজার দক্ষিণভাগেই স্থাপিত হয়। এলাকার লোকজনকে যে কোনো প্রয়োজনে দক্ষিণাঞ্চলের ওপর নির্ভর করতে হয়। এতে দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ প্রভাবশালী ও সেচ্ছাচারী হয়ে ওঠে। তাদের প্রভাব প্রতিপত্তি ও সোচ্ছাচারিতায় উত্তরাঞ্চলের মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে। তারা বুঝতে পারল চেয়ারম্যান পদ উত্তরাঞ্চলের দখলে না আসা পর্যন্ত দক্ষিণারণের অত্যাচার হতে মুক্তি পাওয়া সম্ভব নয়। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উত্তরের সকলে জোটবদ্ধ হয়ে উত্তরের প্রার্থীকে ভোট দিল। ফলে উত্তরের প্রাণী বিপুল ভোটে নির্বাচিত হলো। কিন্তু নানা কৌশলে দক্ষিণের লোকজন নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানকে তার পদে বসতে বাধা দিল।

ক. সিপাহি বিদ্রোহ কত সালে সংঘটিত হয়?
খ. অসহযোগ আন্দোলন বলতে কী বোঝায়?
গ. উদ্দীপকের নির্বাচনটি বাংলাদেশের ইতিহাসের কোন নির্বাচনের কথা মনে করিয়ে দেয়? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. বাংলাদেশের ইতিহাসে, উত্ত ঐতিহাসিক নির্বাচনের গুরুত্ব পাঠ্যবইয়ের আলোকে বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ২ : মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অবিসংবাদিত নেতা প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন দাস প্রথা বিলোপ এবং গণতন্ত্রের নবজাগরণের উদ্দেশ্যে গ্যাটিসবার্গ নামক স্থানে এক যুগান্তকারী ভাষণ প্রদান করেন যা পৃথিবীর ইতিহাসে ‘গ্যাটিসবার্গ এড্রেস’ নামে খ্যাত। তার এ ভাষণের ব্যাপ্তি ছিল মাত্র তিন মিনিট। ভাষণে তিনি গণতন্ত্র, শোষিত মানুষের মুক্তি ও অধিকারের কথা বলেছেন। পৃথিবীতে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা এবং দাস প্রথা বিলোপে এটি একটি মাইলফলক।

ক. লাহোর প্রস্তাব কত সালে পেশ করা হয়?
খ. দ্বিজাতি তত্ত্ব বলতে কী বোঝায়?
গ. আব্রাহাম লিংকনের ভাষণের সাথে বাংলাদেশের কোন মহান নেতার ভাষণের সামঞ্জস্য রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. গণতন্ত্র ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় উভয় নেতার ভাষণ তাৎপর্যপূর্ণ হলেও বাংলার মহান নেতার ভাষণ ছিল আরও দিক নির্দেশনামূলক ও চেতনায় উদ্দীপ্ত বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৩ : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পৈরতলা রেল ব্রিজের পাশে একটি গণকবর আছে। এটি সম্পর্কে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘কোদাল দিয়ে মাটি খুঁড়তেই বের হয়ে আসল মানুষের হাড়-গোড় আর পঁচা লাশ। পাশাপাশি দুইটা বিশাল গর্ভ। আনুমানিক তিন চারণ মানুষের মরদেহ এখানে মাটি চাপা দেওয়া হয়েছে। এগুলো স্বাধীনতা সংগ্রামী ও নিরপরাধ মানুষের সমাধি। হানাদার বাহিনী এবং রাজাকার আল বদরদের হাতে তারা শহিদ হয়েছেন।

ক. ছয়দফা কর্মসূচি কে পেশ করেন?
খ. ঐতিহাসিক আগরতলা মামলা বলতে কী বোঝায়?
গ. উদ্দীপকের প্রত্যক্ষদর্শীর বক্তব্য আমাদের কোন সময়ের কথা মনে করিয়ে দেয়? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উদ্দীপকে উল্লিখিত প্রত্যক্ষদর্শীর বক্তব্যের আলোকে মহান মুক্তিযুদ্ধে সংঘটিত নির্যাতন ও গণহত্যার বিবরণ দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৪ : ইউরোপীয় রাষ্ট্র যুগোশ্লাভিয়ার বসনিয়া অঞ্চলটি মুসলিম অধ্যুষিত। বিদ্যমান খ্রিস্টান রাজশক্তির কাছে বসনীয় জনগণ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকেই শোষিত ও নিগৃহীত হতে থাকে। এতে বসনীয় জনগণ বিক্ষুব্ধ ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজশক্তির বিরুদ্ধে সশস্ত্র আন্দোলনের ডাক দেয়। ফলে যুগোশ্লাভিয়া সরকার তাদের দমনে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করে। রাজকীয় সেনাবাহিনী নৃশংসভাবে অসংখ্য নিরস্ত্র জনগণকে হত্যা করে। বাড়িঘর লুণ্ঠন করে। নারীর ইজ্জত লুটে নেয়। শিশুরাও রেহাই পায় না, তারপরও বসনীয়দের দমাতে পারেনি। তারা তাদের স্বাধীনতা ছিনিয়ে নিতে সক্ষম হয়। এখনও সেখানে বসনীয়দের বহু গণকবর আবিষ্কৃত হচ্ছে।

ক. উনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের প্রথম শহিদ কে?
খ. ১৯৭০ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরঙ্কুশ বিজয়ের প্রধান কারণটি ব্যাখ্যা করো।
গ. উদ্দীপকের বসনীয় জনগণের সাথে পূর্ব পাকিস্তানের জনগণের একটি সাদৃশ্য ব্যাখ্যাসহ লেখো।
ঘ. উদ্দীপকে বর্ণিত বসনিয়ার স্বাধীনতা সংগ্রামের আলোকে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের বিবরণ দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৫ : কুমারি নদীর দুই পাড়ে অবস্থিত বসুমতি গ্রাম। নদীর উত্তর পাড়ে গ্রামের সংখ্যাগরিষ্ঠ লোকের বসবাস সত্ত্বেও দক্ষিণ পাড়ের লোকেরা তাদের ওপর নানাভাবে অত্যাচার, জুলুম, নির্যাতন করতে থাকে। ফলে উত্তর পাড়ের লোকেরা তাদের নেতা শরিফ খানের নেতৃত্বে প্রতিবাদমুখর হতে থাকে। তারা স্বতন্ত্র গ্রাম প্রতিষ্ঠার দাবিতে আন্দোলন করে। দক্ষিণ পাড়ের লোকেরা তাদের ওপর বর্বর আক্রমণ চালায় এবং তাদের নেতাকে ধরে নিয়ে যায়। নেতার অবর্তমানে তারা গ্রামের বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করে। তারা সুষ্ঠু নেতৃত্বের মাধ্যমে আন্দোলন পরিচালনা করে স্বতন্ত্র গ্রাম প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়।

ক. মুক্তিযুদ্ধের সময় ‘চরমপত্র’ কে পাঠ করতেন?
খ. অপারেশন সার্চলাইট বলতে কী বোঝায়?
গ. অনুচ্ছেদটি বাংলাদেশের কোন ঐতিহাসিক ঘটনাকে স্মরণ করিয়ে দেয়? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উক্ত ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের অবদান পাঠ্যবইয়ের আলোকে মূল্যায়ন করো।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৬ : প্রতি দুই বছর অন্তর অন্তর বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্যকে তালিকায় যুক্ত করে ইউনেস্কো। এবার যোগ হয়েছে ৭৮টি নথি। এগুলোর মধ্যে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ একটি। এর অনন্য দিক হলো, ইউনেস্কোর এটাই প্রথম স্বীকৃত ভাষণ, যা আগে থেকে লিপিবদ্ধ ছিল না।

ক. ‘দ্বি-জাতিতত্ত্ব’ ঘোষণা করেন কে?
খ. ভাষা আন্দোলন স্মরণীয় কেন?
গ. উদ্দীপকে উল্লিখিত ভাষণের পটভূমি ব্যাখ্যা কর।
ঘ. স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাসে উল্লিখিত ভাষণের তাৎপর্য কতটুকু তা মূল্যায়ন কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৭ : কানাডার নাগরিক জনসন বিশ্বখ্যাত একটি টেলিভিশন চ্যানেলে ‘যুদ্ধ এবং সংঘর্ষ’ শীর্ষক রিপোর্টে কাজ করে থাকেন। তিনি গত সপ্তাহে দক্ষিণ এশিয়ার একটি রাষ্ট্রের স্বাধীনতা যুদ্ধের কারণ উল্লেখ করেন। দেশটি মুসলিম অধ্যুষিত এবং দুটি অঞ্চলে বিভক্ত। একটি অঞ্চলের হাতেই অন্য অঞ্চলের সকল অর্থ-সম্পদ ব্যবহৃত হতো। শোষিত অঞ্চলের মধ্যে তাদের অর্জিত সম্পদের মাত্র ১৬% ব্যয় হতো। এ ধরনের বৈষম্যের কারণেই বৃহৎ দেশটি ভেঙ্গে শোষিত অঞ্চলটি একটি স্বাধীন দেশের রূপ নেয়।

ক. বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবস কবে?
খ. অপারেশন সার্চলাইট বলতে কী বোঝ?
গ. জনসনের রিপোর্ট তোমার পাঠ্যবইয়ের কোন যুদ্ধের প্রতিচ্ছবি? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. জনসন বর্ণিত কারণটি ছাড়াও ‘অনেকগুলি কারণে বাংলাদেশের জন্ম’ তোমার মতামত দাও।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৮ : ১৯৭১ এর মার্চ মাসের সময়টা ছিল ভয়ংকর। তারপরও সেই দিনগুলিতে পাকিস্তান রেডিওর ঢাকা কেন্দ্রের কয়েকজন সাহসী কর্মকর্তা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ঐতিহাসিক একটি ভাষণ সম্প্রচার করেছিলেন। অগ্নিঝরা সেই ভাষণের বিষয়বস্তু পৌঁছে গিয়েছিল। বাংলাদেশের প্রতিটি প্রান্তে। এই ভাষণের মধ্য দিয়েই বাঙালি নেতা পাকিস্তানের সরকারের সাথে যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করার ঘোষণা দেন।

ক. ১৯৭০ এর নির্বাচনে পিপিপি প্রধান কে ছিলেন?
খ. ১৯৭০ সালের নির্বাচনের গুরুত্ব লেখ।
গ. উদ্দীপকে কোন ঐতিহাসিক ভাষণের কথা বলা হয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. উক্ত ভাষণের ঐতিহাসিক গুরুত্ব পাঠ্যবইয়ের আলোকে বিশ্লেষণ কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ৯ : মুকুল টেলিভিশনে একটি সশস্ত্র যুদ্ধের প্রতিবেদন দেখছিল। যুদ্ধে মুক্তিকামী মানুষেরা কেউ পত্র-পত্রিকা লেখালেখি করছে, কেউ দেশাত্মবোধক গান গাইছে, কেউ মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক কবিতা, গান গেয়ে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে। প্রতিবেদনের এক পর্যায়ে জনৈক পাঠকের সংবাদ পাঠ মুকুলকে পুলকিত করে তোলে।

ক. বাংলাদেশের প্রথম অস্থায়ী সরকার গঠিত হয় কত তারিখে?
খ. অপারেশন সার্চলাইট বলতে কী বোঝ?
গ. মুকুলের দেখা প্রতিবেদনের সাথে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের কোন দিকটির মিল লক্ষ করা যায়?
ঘ. মুক্তিযুদ্ধের উক্ত দিকটি আমাদের স্বাধীনতাকে ত্বরান্বিত করেছে? বক্তব্যটির যথার্থতা মূল্যায়ন কর।

সৃজনশীল প্রশ্ন ১০ : ইউরোপীয় রাষ্ট্র যুগোশ্লাভিয়ার বসনিয়া অঞ্চলটি মুসলিম অধ্যুষিত। বিদ্যমান খ্রিস্টান রাজ শক্তির কাছে বসনীয় জনগণ দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পর থেকেই অর্থনৈতিকভাবে সামাজিক, রাজনৈতিক ও | সামরিক ক্ষেত্রে শোষিত ও বঞ্চিত হতে থাকে। এতে বসনিয়ার জনগণ বিক্ষুদ্ধ ও ঐক্যবদ্ধ হয়ে রাজশক্তির বিরুদ্ধে সশস্ত্র আন্দোলনের ডাক দেয়। ফলে যুগোস্লাভিয়া সরকার তাদের দমনে কঠোর অবস্থান গ্রহণ করে। বাড়িঘর লুণ্ঠন করে। নারীর ইজ্জ্বত লুটে নেয়। শিশুরাও রেহাই পায়না, তারপরও বসনীয়দের দমাতে পারেনি। তারা তাদের স্বাধীনতা | ছিনিয়ে নিতে সক্ষম হয়। এখনও সেখানে বসনীয়দের বহু কবর আবিষ্কৃত হচ্ছে।

ক. বাংলাদেশকে কোন দেশ সর্বপ্রথম স্বীকৃতি প্রদান করে?
খ. আগরতলা মামলা দায়ের করা হয়েছিল কেন?
গ. উদ্দীপকের বসনীয় জনগণের ন্যায় তোমার পাঠ্যবইয়ে কোন অঞ্চলের জনগণের বৈষম্য সাদৃশ্য রয়েছে? ব্যাখ্যা কর।
ঘ. তুমি কি মনে কর উদ্দীপকে বর্ণিত বৈষম্যমূলক নীতির ন্যায় ইঙ্গিতকৃত অঞ্চলের সীমাহীন বৈষম্য স্বাধীনতা অর্জনের প্রেক্ষাপট তৈরী করেছিল?

[ বি:দ্র:এই সাজেশন যে কোন সময় পরিবতনশীল ১০০% কমন পেতে পরিক্ষার আগের রাতে সাইডে চেক করুন এই লিংক সব সময় আপডেট করা হয় ]

১. কুতুব মিনার কোন ধরনের স্থাপত্যকীর্তি?

উত্তর: (গ) সৃতিস্তম্ভ

২. মুহাম্মদ বিন তুঘলক দেবগিরির নাম রাখেন?

উত্তর: (খ) দৌলতবাদ

৩. আকবরের ধর্মনীতিরর কারণ ছিল____

উত্তর: (গ) iiও iii

৪. উদ্দীপকের শাসকের সাথে সুলতানী আমলের কোন শাসকের মিল রয়েছে?

উত্তর: (খ) আলাউদ্দিন খলজি

৫. উক্ত সংস্কারের ফলে___

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

৬. বঙ্গভঙ্গের কারণ হলো____

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

৭. শের শাহের পরবর্তী শাসক কে ছিলেন?

উত্তর: (ক) ইসলাম শাহ

৮. দস্তরুল আমল এ কয়টি আদেশ সন্নিবেশিত হয়?

উত্তর: (খ) ১২

৯. সম্রাট শাহ জাহানের পুত্রদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সূত্রপাত হয়____

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

১০. দ্বৈত-শাসন কত খ্রিস্টাব্দে প্রবর্তিত হয়?

উত্তর: (গ) ১৭৬৫ খ্রিস্টাব্দে

১১. খেলেফত ও অসহযোগ আন্দোলনের লক্ষ ছিল___

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

১২. যুক্তফ্রন্ট গঠনের প্রেক্ষাপট কী?

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

১৩. উদ্দিপকের জলিল ও হাসানের আন্দোলনের সাথে মিল পাওয়া যায়____

উত্তর: (খ) হাজি শরিয়ত উল্লাহ ও দুদু মিয়া

১৪. এ আন্দোলনের প্রকৃত উদ্দেশ্য ছিল____

উত্তর: (ক) iও ii

১৫. ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসর আশু লক্ষ্য ছিলো___

উত্তর: (ক) iও ii

১৬. ১৯৭০ খ্রিস্টাব্দের সাধারণ নির্বাচনের গুরুত্ব কি?

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

১৭. আগরতলা মামলায় কতজনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ উত্থাপন করা হয়?

উত্তর: (ঘ) ৩৫ জন

১৮. উদ্দীপকে অনুরূপ ৬৮’এর গনঅভুত্থানে নিহতরা হলেন____

উত্তর: (ক) ড.শামসুজ্জোহা ও আসাদ

১৯. উক্ত আন্দোলনের ফলাফল ছিল____

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

২০. হাজি মুহম্মদ মোহসিনের পৈতৃক নিবাস কোথায়?

উত্তর: (ক) পারস্য

২১. উদ্দিপকে উল্লিখিত ঘটনাকে বলা হয়___

উত্তর: (খ) অপারশন সার্চলাইট

২২. বাঙালিদের উপর নির্বিচার আক্রমনের ফলাফল___

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

২৩. বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধকালীন ‘খ’ রাষ্ট্রের অনুরূপ ভুমিকা পালন করে___

উত্তর: (ক) ভারত

২৪. মুক্তিযুদ্ধে আত্মসমর্পণ দলিলে স্বাক্ষর করেন কারা?

উত্তর: (ক) জগজিৎ সিং আরোরা ও এ কে নিয়াজি

২৫. ভারতবর্ষের প্রাচীনতম অধিবাসী কারা?

উত্তর: (ঘ) দ্রাবিড়

২৬. সুলতান মাহমুদ সোমনাথ অভিযান করেন কত খ্রিস্টাব্দে?

উত্তর: (গ) ১০২৬

২৭. আলাউদ্দিন হোসেনকে ‘জাহানসুজ’ বলা হয় কেন?

উত্তর: (গ) iiও iii

২৮. উদ্দীপকের সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ বিজেতা হলেন___

উত্তর: (ক) মুহাম্মদ বিন কাশিম

২৯. উক্ত বিজেতার অভিযানের ফলাফল ছিল____

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

৩০. মোঙ্গল আক্রমন প্রতিহত করার জন্য আলাউদ্দিন খলজি কতৃক গৃহীত পদক্ষেপ হল___

উত্তর: (ঘ) i,iiও iii

সবার আগে সাজেশন আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

সাজেশন সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published.