৮ম শ্রেণির হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা ১৯তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের সমাধান ২০২১, হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা ৮ম শ্রেণির ১৯তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের সমাধান ২০২১

৮ম শ্রেণির হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা ১৯তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের সমাধান ২০২১, হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা ৮ম শ্রেণির ১৯তম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টের সমাধান ২০২১

৬ষ্ঠ/৭ম/৮ম Assignment পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:
শ্রেণি: ৮ম -2021 বিষয়: হিন্দু ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা এসাইনমেন্টেরের উত্তর 2021
এসাইনমেন্টের ক্রমিক নংঃ 04
বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

এসাইনমেন্ট শিরোনামঃ

অ্যাসাইনমেন্ট বা নির্ধারিত কাজ :  তোমার পরিবারের কোন সদস্য বা কোন প্রতিবেশি ফাল্গুন মাসে এক বিশেষ ব্রত পালন করেন। এছাড়া তারা অন্যান্য ব্রতও পালন করেন। এ সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন তৈরি কর। (ফাল্গুন মাসের ব্রতটিসহ কমপক্ষে ৩টি ব্রত)।

পাঠ-১: বর্ণভেদ,

পাঠ-২ আশ্রম ধর্ম ও যুগধর্ম,

পাঠ-৩: ব্রত ও ব্রতপালনেকরণীয়,

পাঠ: ৪ শিবরাত্রির ব্রতকথা,

পাঠ: ৫ ব্রতপালনের গুরুত,

নির্দেশনা :  

  • ১। তারা যে সকল ব্রত পালন করেন তার নাম
  • ২। ব্রত পালনের উদ্দেশ্য
  • ৩। ব্রত পালনের নিয়ম, আচার-আচরণ
  • ৪। ব্রত পালনের সুফল
  • ৫। তুমি যদি কোন ব্রত পালনের সুযোগ পাও তাহলে কোন ব্রতটি পালন করবে এবং কীভাবে
  •  

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

তারিখ : –/—/২০২১ ইং ।

বরাবর , প্রধান শিক্ষক রাকিবুল স্কুল ,ঢাকা।


বিষয় : ফাল্গুন মাসে ব্রত পালন করেনও অন্যান্য ব্রতও পালন সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন

জনাব,
বিনতি নিবেদন এই যে , আপনার আদেশ নং বা.উ.বি.৩৫৫-১ তারিখ : –/—/২০২১ ইং অনুসারে উপরােক্ত বিষয়ের উপর আমার স্বব্যখ্যাত প্রতিবেদনটি নিন্মে পেশ করলাম ।

চলতি মাসের শেষেই দোল উৎসব। স্বাভাবিকভাবেই করোনা পরিস্থিতিতে সর্তক হয়েই রঙের উৎসবে মাতবেন আমবাঙালি। এছাড়াও মার্চে একাধির ব্রত ও উৎসব রয়েছে। জেনে নিন কী কী।

হোলি উত্সব বিশ্বের বৃহত্তম রঙের উৎসব, বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন নামে পরিচিত। বাংলায় তা দোল পূর্ণিমা বা দোল উৎসব নামে পরিচিত।  তবে এটি সবাই একই উৎসাহের সঙ্গে এই উৎসব উদযাপিত করে। প্রত্যেকেই নিজস্ব ঐতিহ্যটি তাদের নিজস্ব উপায়ে উদযাপন করে থাকেন। সব কিছু মিলিয়ে কয়েক মুহূর্তের জন্য নিজের জীবনেকে রাঙিয়ে তোলা বা সব কিছু ভুলে কয়েক ঘন্টার জন্য আনন্দে বাঁচার রসদ জোগায় এই উৎসব।

যার পছন্দ যাই হোক না কেন, সবাই সবার নিজের মত করে এই উৎসব উৎযাপিত করেন। কেউ আবিরের রঙে কেউ আবার বাদুরে রঙ মেখে এই আনন্দের কিছু মুহূর্ত একেবারে নিঙরে নিতে চান। এই উৎসব বেশিরভাগ জায়গায় হোলি নামে পরিচিত আর বাংলায় দোল উৎসব। তবে এই উৎসবের মধ্যে পার্থক্যটা কোথায়। দোল উৎসব হোলির একদিন আগে পালিত হয়। এর কারণ এটি নয় যে “বাংলা আজ যা ভাবছে, বিশ্ব কালকে ভাববে”। তবে কেন দুটি আলাদা আলাদা দিনে একই উৎসব পালনের রীতি রয়েছে! একই উৎসব একরই রীতি তবে ভিন্ন দিনে কেন!

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

এর কারণ হল, হোলি উৎসব ভগবান বিষ্ণুভক্ত প্রহ্লাদের কিংবদন্তির কাহিনির উপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে। আর দোল উৎসব কৃষ্ণ এবং রাধার প্রেমের কাহিনির উপর ভিত্তি করে গড়ে উঠেছে। কৃষ্ণ এবং প্রহ্লাদ উভয়ই ঘটনাক্রমে ভগবান বিষ্ণুর অবতার হিসাবে বিবেচিত। বাংলার ফালগুন মাসের পূর্ণিমা রাতের পরের দিন দোল উৎসব পালিত হয়। এই বিশেষ দিনেই, রাধা ও তাঁর সখীরা দল বেঁধে রঙ খেলায় মেতে উঠেছিলেন। তখন ভগবান কৃষ্ণ তাঁর মুখটি সুগন্ধি ফুলের কুড়ির রঙ দিয়ে গন্ধযুক্ত করলেন। কৃষ্ণা রাধার প্রতি সেই প্রথম প্রেম প্রকাশ করেছিলেন বলে মনে করা হয়। এই মুহূর্তটি উদযাপন করার জন্য দু’জনকেই বর্ণময় পালকিতে নিয়ে বৈষ্ণব ধর্মাবলম্বীরা নগর কীর্তনে বের হন।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

আর এদিকে হোলি উৎসব হল ভগবান বিষ্ণুভক্ত প্রহ্লাদকে কেন্দ্র করে যিনি রাক্ষস রাজা হিরণাকশীপুর ধর্মপ্রাণ পুত্র। বিষ্ণুভক্ত হওয়ায় প্রহ্লাদকে হত্যা করার জন্য, অতিপ্রাকৃত শক্তিধারী হলিকা – তাঁর সাথে আগুনে ঝাঁপিয়ে পড়ার পরিকল্পনা করেছিলেন। তিনি নিজেকে বাঁচাতে তাঁর শক্তিগুলি ব্যবহার করতে চেয়েছিলেন, প্রহ্লাদের মৃত্যু নিঃশ্চিত। তবে হোলিকার শক্তিগুলি তার “দুষ্ট” উদ্দেশ্যগুলির কারণে ব্যর্থ হয়েছিল এবং প্রহ্লাদ ভগবান শ্রীবিষ্ণুর আর্শীর্বাদে রক্ষা পান। হোলি, তাই, অশুভের উপরে শুভ শক্তির জয় উদযাপনের জন্য সারা বিশ্বে পালিত হয়। এই কারণের হোলির আগের দিন রাতে পালিত হয় হোলিকা দহন যা বাংলায় বুড়িঘর বা ন্যাড়াপোড়া নামে পরিচিত।

২ মার্চ: প্রতি মাসের চতুর্থ তিথি পালিত হয় সঙ্কষ্টী চতুর্থী হিসেবে। মার্চের ২ তারিখ এই ব্রত পালন করা হবে। এই দিনে পুজিত হবেন গণেশ।

৬ মার্চ: কথিত রয়েছে ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে সীতার আত্মপ্রকাশ ঘটেছিল। সেই কারণে ওই দিন পালিত হয় জানকী জয়ন্তী হিসেবে।

৮ মার্চ: ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণ পক্ষের দশমী তিথিতে পালন করা হয় আর্য সমাজের প্রতিষ্ঠাতা মহর্ষি দয়ানন্দ সরস্বতীর জন্ম জয়ন্তী।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

৯ মার্চ: ফাল্গুন মাসের কৃষ্ণপক্ষের একাদশী তিথিকে বলা হয় ‘বিজয়া একাদশী’। কথিত রয়েছে, এই একাদশী ব্রত পালন করলে যে কোনও কাজে সাফল্য আসে।

১০ মার্চ: প্রতি মাসের শুক্লপক্ষের ত্রয়োদশী তিথিতে মহাদেবের উদ্দেশ্যে পুজো অর্চনার রীতি রয়েছে হিন্দু ধর্মে। গোটা দিন উপবাসের পর সন্ধেয় মহাদেবের পুজো করে তাঁর প্রসাদ খেয়ে উপবাস ভঙ্গ করেন ভক্তরা। সন্ধে অর্থাৎ প্রদোষকালে এই উপবাস ভঙ্গকে বলা হয় প্রদোষ ব্রত। চলতি মাসের ১০ তারিখ পালিত হবে এই ব্রত।

১১ মার্চ: হিন্দু ধর্মে শিবরাত্রির গুরুত্ব অনেক। মন্দির ছাড়া বাড়িতেও অনেকেই শিবরাত্রি উদযাপন করেন। মার্চের ১১ তারিখ পালিত হবে শিবরাত্রি।

১৭ মার্চ: প্রতি মাসের শুক্লপক্ষের চতুর্থী তিথিতে বিনায়ক চতুর্থী পালিত হয়। এই দিনে গণেশের উপাসনা করলে সমস্ত মন বাসনা পূরণ হয় বলেই প্রচলিত রয়েছে।

২৫ মার্চ: বৈদিক পঞ্জিকা অনুযায়ী প্রতি বছর ফাল্গুন শুক্লপক্ষের একাদশী তিথি আমলকি একাদশী হিসেবে পালিত হয়। এই দিনে আমলকি গাছের সঙ্গে ভগবান বিষ্ণুকে পুজো করা হয়৷ এই উৎসবে ভগবান শিবকে রং লাগিয়ে হোলির প্রস্তুতি শুরু করা হয়।

২৮ মার্চ: চলতি বছর ২৮ মার্চ দোলপূর্ণিমা। এইদিনটি বসন্ত উৎসব হিসেবে পালিত হয়। রঙে সেজে ওঠেন প্রত্যেকে। প্রচলিত রয়েছে, এই দিন বাড়িতে পুজোর আয়োজন করলে তা সৌভাগ্য বয়ে আনে।

২৯ মার্চ: দোলপূর্ণিমার পরের দিন উদযাপিত হয় হোলি। এই উৎসবের নেপথ্যে রয়েছেন শ্রীকৃষ্ণ ও প্রহল্লাদ। মূলত অবাঙালিরাই মেতে ওঠেন হোলিতে।

প্রতিবেদকের নাম : রাকিব হোসেন সজল
রোল নং : ০১
প্রতিবেদনের ধরন : প্রাতিষ্ঠানিক,
প্রতিবেদনের শিরোনাম : ফাল্গুন মাসে ব্রত পালন করেনও অন্যান্য ব্রতও পালন সম্পর্কে একটি প্রতিবেদন
প্রতিবেদন তৈরির স্থান : ঢাকা
তারিখ : –/—/২০২১ ইং ।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

সবার আগে Assignment আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অন্য সকল ক্লাস এর অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর সমূহ :-

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ভোকেশনাল: ৯ম/১০ শ্রেণি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ভোকেশনাল ও দাখিল (১০ম শ্রেণির) অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক

৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ,

৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় SSC এসাইনমেন্ট :

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় HSC এসাইনমেন্ট :

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *