৭ম শ্রেণি - বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায় পদার্থের গঠন জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

৭ম শ্রেণি – বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায় পদার্থের গঠন জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

জেএসসি পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

৭ম শ্রেণি – বিজ্ঞান ৬ষ্ঠ অধ্যায় পদার্থের গঠন জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

১।        হিলিয়ামের প্রতীক কী?

            উত্তর : হিলিয়ামের প্রতীক হলো—He.

২।         কোন মৌলের প্রোটন সংখ্যা ৮?

            উত্তর : অক্সিজেনের প্রোটন সংখ্যা ৮।

৩।        পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণার নাম কী?

            উত্তর : পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণার নাম পরমাণু।

৪।        যৌগিক পদার্থ কী?

            উত্তর : দুই বা ততোধিক মৌলিক পদার্থ যুক্ত হয়ে যে ভিন্নধর্মী পদার্থ গঠন করে তাকে যৌগিক পদার্থ বলে।

৫।        পরমাণু কী?

            উত্তর : মৌলিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণা, যা স্বাধীনভাবে থাকতে পারে না, তাকে পরমাণু বলে।

৬।        মৌলিক পদার্থ কাকে বলে?

            উত্তর : যেসব পদার্থকে ভাঙলে একই রকম উপাদান পাওয়া যায় অর্থাৎ যেসব পদার্থ একটি মাত্র উপাদান দিয়ে তৈরি তাদের মৌলিক পদার্থ বলে। যেমন—তামা, লোহা, অক্সিজেন ইত্যাদি।

৭।        সোডিয়ামের লাতিন নাম কী?

            উত্তর : সোডিয়ামের লাতিন নাম হলো—Natrium.

৮।       ম্যাগনেশিয়াম অক্সাইডের সংকেত লেখো?

            উত্তর : ম্যাগনেশিয়াম অক্সাইডের সংকেত MgO।

৯।        পর্যায় সারণি কী?

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

            উত্তর : প্রায় একই ধরনের ধর্মবিশিষ্ট মৌলসমূহকে একই শ্রেণিভুক্ত করে, আবিষ্কৃত সব মৌলকে স্থান দিয়ে মৌলসমূহের যে সারি বর্তমানে প্রচলিত, তাকে মৌলের পর্যায় সারণি বলা হয়।

১০।      খাবার লবণের সংকেত লেখো?

            উত্তর : খাবার লবণের সংকেত NaCl (সোডিয়াম ক্লোরাইড)

১১।      লোহার প্রতীক কী?

            উত্তর : লোহার প্রতীক হলো Fe।

১২।      চিনি কী?

            উত্তর : চিনি হলো কার্বন, হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন নামের তিনটি ভিন্ন মৌলিক পদার্থের উপাদান দিয়ে তৈরি যৌগিক পদার্থ।

১৩। চিনির রাসায়নিক নাম কী?

            উত্তর : চিনির রাসায়নিক নাম সুক্রোজ।

১৪।      চক ভাঙলে কোন কোন পদার্থ পাওয়া যায়?

            উত্তর : চক ভাঙলে ক্যালসিয়াম, কার্বন ও অক্সিজেন পাওয়া যায়।

১৫। লোহাকে বাতাসে রেখে দিলে কোন রঙের আস্তরণ পড়ে?

            উত্তর : লোহাকে বাতাসে রেখে দিলে তার ওপর হালকা লাল রঙের একটি আস্তরণ পড়ে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

১৬। চকের রাসায়নিক নাম কী?

     উত্তর : চকের রাসায়নিক নাম ক্যালসিয়াম কার্বনেট (CaCO3)

১৭। মিশ্র পদার্থ কাকে বলে?

     উত্তর : যে মিশ্রণে একের অধিক পদার্থ বিদ্যমান থাকে, তাকে মিশ্র পদার্থ বলে। যেমন—বাতাস।

১৮।  বায়ু কী পদার্থ?

     উত্তর : বায়ু একটি মিশ্র পদার্থ। এতে মৌলিক ও যৌগিক উভয় ধরনের পদার্থ রয়েছে।

১৯। বায়ুর উপাদান কী কী?

     উত্তর : বায়ু বিভিন্ন উপাদান নিয়ে গঠিত। যেমন— নাইট্রোজেন, অক্সিজেন, জলীয় বাষ্পসহ অন্যান্য পদার্থ।

২০। আধুনিক পরমাণুবাদের জনক কে?

     উত্তর : জন ডাল্টনকে আধুনিক পরমাণুবাদের জনক বলা হয়।

২১। অণু কাকে বলে?

     উত্তর : যৌগিক পদার্থের ক্ষুদ্রতম কণাকে বলা হয় অণু।

২২। এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত মৌলিক পদার্থের সংখ্যা কত?

     উত্তর : এ পর্যন্ত ১১৮টি মৌলিক পদার্থ আবিষ্কৃত হয়েছে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

২৩। প্রকৃতিতে কয়টি মৌলিক পদার্থ পাওয়া যায়?

            উত্তর : প্রকৃতিতে ৯৮টি মৌলিক পদার্থ পাওয়া যায়।

২৪। প্রতীক কী?

            উত্তর : কোন মৌলের পূর্ণ নামের সংক্ষিপ্ত প্রকাশই প্রতীক।

২৫। সংকেত কী?

            উত্তর : প্রতীকের মাধ্যমে যৌগিক পদার্থের সংক্ষিপ্ত প্রকাশই সংকেত।

২৬। পরমাণুকে ভাঙলে কী পাওয়া যায়?

            উত্তর : পরমাণুকে ভাঙলে ইলেকট্রন, প্রোটন ও নিউট্রন পাওয়া যায়।

২৭। ইলেকট্রন, প্রোটন ও নিউট্রন পরমাণুর কোথায় থাকে?

            উত্তর : পরমাণুর কেন্দ্রে থাকে নিউট্রন ও প্রোটন। আর কেন্দ্রের চারিদিকে বৃত্তাকার কক্ষপথে ইলেকট্রন ঘুরতে থাকে।

২৮। পদার্থ সমপর্কে ডেমোক্রিটাসের মতবাদ কী?

            উত্তর : ডেমোক্রিটাসের মতে, সব পদার্থই ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র অবিভাজ্য কণা দিয়ে তৈরি। তিনি এই ক্ষুদ্রতম কণার নাম দেন পরমাণু বা অ্যাটম।

২৯। গ্রুপ কী?

            উত্তর : পর্যায় সারণির উলম্ব কলামই হলো গ্রুপ।

৩০। পর্যায় কী?

            উত্তর : পর্যায় সারণির আনুভূমিক সারিই হলো পর্যায়।

৩১। এটম অর্থ কী?

            উত্তর : এটম শব্দটি গ্রিক ভাষার শব্দ Atomos থেকে নেওয়া, যার অর্থ হলো অবিভাজ্য।

৩২। মরিচা কী?

            উত্তর : লোহা বায়ুর জলীয়বাষেপর সাথে বিক্রিয়া করে লালচে বাদামী বর্ণের যে আর্দ্র আয়রন অক্সাইডের আসত্মরণ তৈরি করে তাকে মরিচা বলে।

৩৩। সার্বজনীন দ্রাবক কাকে বলে?

            উত্তর : যে দ্রাবক জৈব ও অজৈব অনেক দ্রবকে দ্রবীভূত করে, যা অন্য কোনো দ্রাবক করতে পারে না তাকে সার্বজনীন দ্রাবক বলে।

৩৪। ভিনেগারের রাসায়নিক নাম কী?

            উত্তর : ভিনেগারের রাসায়নিক নাম হলো এসিটিক এসিড।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

আমাদের YouTube এবং Like Page

  • ১১ম -১২ম শ্রেণীর এইচএসসি ও আলিম এসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ১০ম শ্রেণীর এসএসসি ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৬ষ্ঠ ,৭ম,৮ম ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক

এখানে সকল প্রকাশ শিক্ষা বিষয় তথ্য ও সাজেশন পেতে আমাদের সাথে থাকুন ।

শেয়ার করুন:

আপনার মূল্যবান মতামত দিন