২০২০ সালে আপনি একটি জিনিস যে দামে কিনেছিলেন ২০২১ সালে আপনি ঐ জিনিস একই দামে কিনতে পারেন । সময়ের সাথে সাথে অর্থের মূল্যের পরিবর্তন হয়। অর্থায়নে সময়মূল্যের গুরুত্ব উদাহরণ সহকারে আলােচনা করুন।

২০২০ সালে আপনি একটি জিনিস যে দামে কিনেছিলেন ২০২১ সালে আপনি ঐ জিনিস একই দামে কিনতে পারেন । সময়ের সাথে সাথে অর্থের মূল্যের পরিবর্তন হয়। অর্থায়নে সময়মূল্যের গুরুত্ব উদাহরণ সহকারে আলােচনা করুন।

Assignment এসএসসি ডিগ্রি ও উন্মুক্ত পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:
শ্রেণি: ১০ম/ ssc/ উন্মুক্ত-2021 বিষয়: ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং এসাইনমেন্টেরের উত্তর 2021
এসাইনমেন্টের ক্রমিক নংঃ 03 বিষয় কোডঃ 2667
বিভাগ: ব্যবসায় শাখা
বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

এসাইনমেন্ট শিরোনামঃ ২০২০ সালে আপনি একটি জিনিস যে দামে কিনেছিলেন ২০২১ সালে আপনি ঐ জিনিস একই দামে কিনতে পারেন । সময়ের সাথে সাথে অর্থের মূল্যের পরিবর্তন হয়। অর্থায়নে সময়মূল্যের গুরুত্ব উদাহরণ সহকারে আলােচনা করুন।

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অর্থের সময়মূল্যের ধারণা

অর্থায়নের দৃষ্টিতে সময়ের পরিবর্তনের সাথে সাথে অর্থের মূল্য পরিবর্তিত হয় অর্থাৎ আজকের ১০০ টাকা আর পাঁচ বছর পরের ১০০ টাকা সমান মূল্য বুঝায় না, আজকের ১০০ টাকা একবছর পরের ১০০ টাকার চেয়ে অধিকতর মূল্যবান। এটাই অর্থের সময়মূল্য ধারণা। অর্থের প্রতিটি ইউনিটের মূল্য সময়ের সাথে পরিবর্তনের মূল কারণ হলো সুদের হার। মনে কর, তুমি তোমার বন্ধুর নিকট ১০০ টাকা পাও, সে বলল ১০০ টাকা এখন না পরিশোধ করে ১ বছর পর পরিশোধ করবে। অর্থের সময়মূল্য ধারণা অনুযায়ী আজকের ১০০ টাকা আর এক বছর পরের ১০০ টাকা সমান মূল্য বহন করে না। ধরা যাক, সুদের হার শতকরা ১০ ভাগ অর্থাৎ তুমি যদি অগ্রণী ব্যাংকে আজকে ১০০ টাকা জমা রাখ, তাহলে আগামী বছর ব্যাংক তোমাকে ১১০ টাকা দেবে। সুতরাং বর্তমানের ১০০ টাকা এবং আগামী বছরের ১১০ টাকা অর্থের সময়মূল্য অনুযায়ী সমান মূল্য বহন করে।

অর্থের বর্তমান মূল্য

অর্থের বর্তমান মূল্য বলতে ভবিষ্যৎ নগদ প্রবাহ বা নগদ প্রবাহ সমূহের আজকের মূল্যকে বুঝায়। ভবিষ্যৎ নগদ গ্রহণ বা প্রদানকে বাট্টা করা হলে যে মূল্য পাওয়া যায় তাকে অর্থের বর্তমান মূল্য বলা হয়। ভবিষ্যৎ মূল্যকে বাট্টা করা হয় অর্থের সময় মূল্যের ধারণাকে প্রয়োগ করার জন্য। ভবিষ্যৎ মূল্য জানা থাকলে বর্তমান মূল্যের সূত্র অনুযায়ী খুব সহজে বর্তমান মূল্য নির্ণয় করা যায়। অর্থের বর্তমান মূল্য নির্ধারণ করার প্রক্রিয়াকে বলা হয় বাট্টাকরণ প্রক্রিয়া।

অর্থের ভবিষ্যৎ মূল্য

অর্থের ভবিষ্যৎ মূল্য বলতে একটি প্রকল্পের মেয়াদ উত্তীর্ণে নগদ প্রবাহ পরিমাপ করাকে বুঝায়। এটি একটি নগদ প্রবাহ যা একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর নির্ণয় করা হয়। ভবিষ্যৎ মূল্য বলতে একটি নির্দিষ্ট আমানত আজকে জমা করলে একটি নির্দিষ্ট সুদে একটি নির্দিষ্ট সময় পরে যে মূল্য পাওয়া যায় তাকে বুঝায়। বর্তমান মূল্য জানা থাকলে ভবিষ্যৎ মূল্যের সূত্র অনুযায়ী খুব সহজে ভবিষ্যৎ মূল্য নির্ণয় করা যায়। অর্থের ভবিষ্যৎ মূল্য নির্ধারণ করার প্রক্রিয়াকে বলা হয় চক্রবৃদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া। একটি উদাহরণের মাধ্যমে সহজে অর্থের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ মূল্যের সম্পর্ক দেখানো হলো, যেমন সুদের হার শতকরা ১০ ভাগ হলে আজকের ১০০ টাকা, আগামী বছরের ১১০ টাকা এবং ২ বছর পরের ১২১ টাকা মূল্যের সমান। আজকের এই ১০০ টাকাকে বলা হয় বর্তমান মূল্য এবং ১১০ ও ১২১ টাকাকে বলা হয় ভবিষ্যৎ মূল্য।

অর্থের সময়মূল্যের গুরুত্ব

প্রতিটি ব্যবসায়ের অর্থায়ন ও বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের সাথে অর্থের আন্তঃপ্রবাহ ও বহিঃপ্রবাহের সম্পর্ক রয়েছে। সঠিক সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য এই আন্তঃপ্রবাহ ও বহিঃপ্রবাহের মেয়াদভিত্তিক বর্তমান ও ভবিষ্যৎ মূল্য নির্ধারণ করা একান্ত প্রয়োজন। ফলশ্রুতিতে অর্থের সময়মূল্যের গুরুত্ব বিবেচনা করা একান্ত প্রয়োজন।

ক) সুযোগ ব্যয় : একটি প্রকল্পে অর্থ বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলে অন্য একটি প্রকল্পে অর্থ বিনিয়োগের সুযোগকে ত্যাগ করতে হয়। যাকে অর্থায়নে বিনিয়োগের সুযোগ ব্যয় বলা হয়। অর্থের সময়মূল্যের সূত্র প্রয়োগের মাধ্যমে এই সুযোগ ব্যয়ের পরিমাণ নির্ধারণ করা যায়। উদাহরণস্বরূপ: তোমার এলাকায় জমির মূল্য ১০ বছরে দ্বিগুণ হয়। অন্যদিকে অগ্রণী

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

ব্যাংকে সঞ্চয়ী হিসাবে সুদের হার ধরা যাক শতকরা ১০ ভাগ। জমি কিনলে সোনালী ব্যাংকে টাকা রাখা যাবে না, তাই জমি ক্রয়ের সুযোগ ব্যয় এ ক্ষেত্রে ১০%। এ ক্ষেত্রে আমরা এই ইউনিটের সূত্র নং ২ ব্যবহার করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারি যে জমি কেনা উচিত, নাকি অগ্রণী ব্যাংকে টাকা রাখা উচিত। এ ব্যাপারে একটি সহজ এবং মোটামুটি সঠিক পদ্ধতি ‘রুল ৭২’ নামে পরিচিত। টাকা দ্বিগুণ হলে ৭২-কে মেয়াদ দিয়ে ভাগ করলে সুদের হার পাওয়া যায়, আবার ৭২-কে সুদের হার দিয়ে ভাগ করলে মেয়াদ পাওয়া যায়। জমির মূল্য যেহেতু ১০ বছরে দ্বিগুণ হয়। সুতরাং সুদের হার (৭২/১০) বা ৭.২%। সুতরাং জমি ক্রয় না করে অগ্রণী ব্যাংকে টাকা রাখা যুক্তিসংগত। অতএব অর্থের সময়মূল্যের গুরুত্ব অনেক।

খ) প্রকল্প মূল্যায়ন : দীর্ঘমেয়াদি প্রকল্প মূল্যায়নে ক্ষেত্রে প্রকল্পের বর্তমান ব্যয়ের সাথে ভবিষ্যৎ আয়ের মধ্যে তুলনা করতে হয়। এই ইউনিটে আমরা জেনেছি, টাকার বর্তমান মূল্য ও ভবিষ্যৎ মূল্য সমান নয়। সুতরাং ভবিষ্যৎ সম্ভাব্য আয়কে বর্তমান মূল্যে রূপান্তর না কওে আমরা দীর্ঘমেয়াদি প্রকল্প মূল্যায়ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারি না। পরবর্তীকলে ক্যাপিটাল বাজেটিং করার সময় আমরা এই ধারণার প্রয়োগ দেখব। সুতরাং অর্থের সময়মূল্যের গুরুত্ব অপরিসীম।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

গ) ঋণগ্রহণ সিদ্ধান্ত : ব্যাংক বা অন্য কোনো আর্থিক প্রতিষ্ঠান থেকে ঋণ গ্রহণের পূর্বে ঋণের কিস্তি পরিশোধের ক্ষমতা বিবেচনা করতে হয়। ঋণ পরিশোধের বিভিন্ন মেয়াদের উপর ভিত্তি করে কিস্তির পরিমাণ ভিন্ন রকম হয়ে থাকে। যেমন: ৫ বছর মেয়াদি অথবা ১০ বছর মেয়াদি ঋণের কিস্তি বিভিন্ন হবে, আবার এই যে বিভিন্ন মেয়াদ তা হতে পারে যেমন: বার্ষিক, ছয় মাসিক, মাসিক ইত্যাদি।

মেয়াদের ভিন্নতরি কারণে কিস্তির পরিমাণও বিভিন্ন হয়ে থাকে। অর্থের সময়মূল্য নির্ণয় করে আমরা বিভিন্ন পরিমাণ ঋণের বিভিন্ন মেয়াদি কিস্তি বের করতে পারি এবং সেই অনুযায়ী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারি যে কী ধরনের মেয়াদে কীভাবে পরিশোধ্য কিস্তিতে কত টাকা ঋণ নিলে ব্যবসায়ের জন্য উপযুক্ত হবে। যথোপযুক্ত পরিকল্পনার অভাবে অনেক ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হয়ে যায়, কারণ ঋণ গ্রহণের পূর্বে ঋণ পরিশোধ করার ক্ষমতা যাচাই করে তারপরে ঋণ নিতে হয়। যেহেতু ঋণের টাকা পরিশোধ করা প্রতিটি ব্যবসায়ের জন্য বাধ্যতামূলক, ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হলে ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান দেউলিয়া হতে বাধ্য। ্এক্ষেত্রেও দেখা যাচ্ছে অর্থায়নের গুরুত্ব অনেক।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

সবার আগে Assignment আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অন্য সকল ক্লাস এর অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর সমূহ :-

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় SSC এসাইনমেন্ট :

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় HSC এসাইনমেন্ট :

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ভোকেশনাল: ৯ম/১০ শ্রেণি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ভোকেশনাল ও দাখিল (১০ম শ্রেণির) অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক

৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ,

৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *