রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সময় প্রয়োজনীয় সতর্কতা নিরুপন, রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সতর্কতা

রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সময় প্রয়োজনীয় সতর্কতা নিরুপন, রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সতর্কতা

এসএসসি পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

অ্যাসাইনমেন্ট :  রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সময় প্রয়োজনীয় সতর্কতা নিরুপন।

 শিখনফল/বিষয়বস্তু :  

  • রসায়নে ব্যবহারিক কাজের সতর্কতা

নির্দেশনা (সংকেত/ ধাপ/ পরিধি): 

  • বিষাক্ত পদার্থের ধারণা
  • তেজস্ক্রিয় পদার্থের ধারণা
  • স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থের ধারণা
  • বিষাক্ত পদার্থ, তেজস্ক্রিয় পদার্থ, স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থের তুলনা

উত্তর সমূহ:

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে যে কোন প্রশ্ন আপনার মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

  • বিষাক্ত পদার্থের ধারণা

যে সকল রাসায়নিক পদার্থ শ্বাস-প্রশ্বাসের মাধ্যমে গ্রহণ করলে স্বাস্থ্যের মারাত্মক ক্ষতি সাধিত হয়, এমনকি মৃত্যুও হতে পারে সেই পদার্থগুলিকে বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ বলা হয়। 

বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ গুলি হচ্ছে-
ক্লোরোফরম, স্টাইরিন, ক্যাডমিয়াম ও ক্রোমিয়ামের লবণ, প্রোপানোন, ফেনল, শুষ্ক পিকরিক এসিড, সায়ানাইড যৌগ, মার্কারি, সোডিয়াম নাইট্রেট, সোডিয়াম অ্যাজাইড, মিথানল, বেনজিন, ব্রোমিন, আর্সেনিক অক্সাইড, কারসিনোজেন, মিউটাজেন, টেরাটাজেন, নিকোটিন, ফরমালডিহাইড, বেরিয়াম ক্লোরাইড, Na ; k ; KCN ; LiAlH₄ ; NaH ; NaBH₄ ; HCN ; Cr₂O₃ ; CS₂ ; TNT ; CO ; PbO₂ ; AsH₃ ; NaOH; H₂SO₄ ; HNO₃ ; HCl ইত্যাদি ।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • তেজস্ক্রিয় পদার্থের ধারণা

যে সকল পদার্থ স্বতঃস্ফূর্তভাবে বিভিন্ন ধরনের রশ্মি (যেমনঃ আলফা, বিটা, গামা) বিকিরণ করে অন্য মৌলের নিউক্লিয়াসে পরিণত হয়। সেই পদার্থগুলিকে তেজস্ক্রিয় পদার্থ বলে।

তেজস্ক্রিয় রাসায়নিক পদার্থগুলি হচ্ছে- রেডিয়াম, ইউরেনিয়াম, কোবাল্ট-60, হিলিয়াম-4, থোরিয়াম, পোলোনিয়াম ছাড়াও অন্যান্য তেজস্ক্রিয় মৌল এবং এদের আইসোটোপসমূহ তেজস্ক্রিয় পদার্থ।

যে সকল মৌলের নিউট্রন ও প্রোটন এর অনুপাত 1.5 এর বেশি সেই সকল মৌলের নিউক্লিয়াস অস্থির হয়,সেই সকল মৌলের নিউক্লিয়াস থেকে এক প্রকার অদৃশ্য রশ্মি নির্গত হয়, যা গ্যাসকে আয়নিত করতে পারে ,তড়িত ও চৌম্বক ক্ষেত্র দ্বারা প্রভাবিত হয় এবং পাতলা ধাতব পাত কে ভেদ করতে পারে, এই অদৃশ্য রশ্মিকে তেজস্ক্রিয় রশ্মি বলে।

যেসকল মৌলের নিউক্লয়াস থেকে এ ধরনের রশ্মি নির্গত হয় তাদের তেজস্ক্রিয় পদার্থ বলে।

যেমন ইউরেনিয়াম, রেডিয়াম, থোরিয়াম ইত্যাদি।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ তেজস্ক্রিয় মৌল সমূহের যৌগ গুলিও তেজস্ক্রিয় পদার্থ। তেমন RaCl₂একটি তেজস্ক্রিয় যৌগ।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

তেজস্ক্রিয় পদার্থের প্রকারভেদ

তেজস্ক্রিয় পদার্থ দু’ধরনের। যেমন,

ক. প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয় পদার্থ (Natural radioactive substance)

খ. কৃত্রিম তেজস্ক্রিয় পদার্থ (Artificial radioactive substance)

ক. প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয় পদার্থ : কোনো প্রাকৃতিক পদার্থ হতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে তেজস্ক্রিয় রশ্মি নির্গমনের ঘটনা ঘটলে সেসব পদার্থকে প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয় পদার্থ বলে। যেমন– ইউরেনিয়াম, রেডিয়াম, থোরিয়াম প্রভৃতি মৌল হতে যে তেজস্ক্রিয়তা ঘটে তা প্রাকৃতিক তেজস্ক্রিয়তা। এসব মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা ৮২ এর চেয়ে বেশি।

খ. কৃত্রিম তেজস্ক্রিয় পদার্থ : কোনো মৌলকে কৃত্রিম উপায়ে তেজস্ক্রিয় মৌলে পরিণত করলে সেসব মৌলকে কৃত্রিম তেজস্ক্রিয় মৌল বলে। কোনো মৌলকে নিউক্লিয় বিক্রিয়ার মাধ্যমে বাইরে থেকে অতি উচ্চ বেগ সম্পন্ন কোনো কণা দ্বারা আঘাত করলে সেটি তেজস্ক্রিয় মৌলে পরিণত হয়। এদেরকে কৃত্রিম তেজস্ক্রিয় মৌল বা রেডিও আইসোটোপ বলে। যেমন, কার্বন, অক্সিজেন ইত্যাদি।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থের ধারণা

যে সকল রাসায়নিক পদার্থ মানব স্বাস্থ্যের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ তাদেরকে স্বাস্থ্যঝুঁকি সম্পন্ন রাসায়নিক পদার্থ বলে। এই ধরনের রাসায়নিক পদার্থ হচ্ছে- ক্লোরোফরম, অ্যাসিটিলিন, ফসজিন গ্যাস, ফরমালডিহাইড, এসিড বাষ্প, ফেনল, বেনজিন, টলুইন, জাইলিন, ইথানয়িক এসিড, বেনজয়িক এসিড, সিলভার নাইট্রেট, NH₃ ; SO₂Cl₂ ; H₂S ; NO₂ ; SO₂ ; CO₂ ; CO ; H₂O₂ ইত্যাদি।

স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ রাসায়নিক পদার্থ গুলি স্বাস্থ্যের জন্য স্বল্প এবং দীর্ঘমেয়াদী ক্ষতি সাধন করে। এই পদার্থগুলি শ্বাস-প্রশ্বাস তন্ত্রের ক্ষতি সাধন করে। এমনকি ক্যান্সার সৃষ্টি করতে পারে। এই ধরনের পদার্থ গুলিকে ত্বকে লাগতে দেওয়া যাবে না। কারণ এই পদার্থগুলি ত্বকে ক্ষত সৃষ্টি করতে পারে।

এই পদার্থ গুলি সংরক্ষণের ক্ষেত্রে জনসাধারণের বাইরে নিরাপদ স্থানে সংরক্ষণ করতে হবে। 

স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ গ্যাসীয় পদার্থ নিয়ে কাজ করার সময় ফিউমহুড ব্যবহার করতে হবে। এছাড়া মাস্ক, নিরাপদ চশমা, হ্যান্ড গ্লাভস ব্যবহার করতে হবে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • বিষাক্ত পদার্থ, তেজস্ক্রিয় পদার্থ, স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থের তুলনা
কারন / বিষয় বিষাক্ত পদার্থ তেজস্ক্রিয় পদার্থ স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থের
পদার্থের ঝুঁকিবিষাক্ত পদার্থ চিহ্নধারী পদার্থ বিষাক্ত প্রকৃতিরতেজস্ক্রিয় পদার্থ থেকে ক্ষতিকারক রশ্মি বের হয় স্বাস্থ্য ঝুঁকিপূর্ণ পদার্থ ধরনের পদার্থ ত্বকে লাগলে বা শ্বাস-প্রশ্বাসের সাথে শরীরের ভেতরে গেলে শরীরের স্বল্পমেয়াদি বা দীর্ঘমেয়াদি ক্ষতিসাধন করে।
ঝুঁকির মাত্রাতাই শরীরে লাগলে বা শ্বাসপ্রশ্বাসের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করলে শরীরের নানা ধরনের ক্ষতি হয়ে যেতে পারেক্যানসারের মতাে মরণব্যাধি সৃষ্টি করতে পারে কিংবা একজনকে বিকলাঙ্গ করে দিতে পারে।এগুলাে শরীরের মধ্যে গেলে ক্যানসারের মতাে কঠিন রােগ হতে পারে কিংবা শ্বাসতন্ত্রের ক্ষতিসাধন করতে পারে।
সাবধানতাএ ধরনের পদার্থ ব্যবহারের সময় অ্যাপ্রােন, হ্যান্ড গ্লাভস, সেফটি গগলস, মাস্ক ইত্যাদি ব্যবহার করতে হবেতাই এসব পদার্থ ব্যবহারের সময় বিশেষ সতর্ক থাকা প্রয়ােজনই পদার্থগুলােকে সতর্কভাবে রাখতে হবে এবং ব্যবহারের সময় অ্যাপ্রােন, হ্যান্ড গ্লাভস, সেফটি গগলস, মাস্ক এগুলাে পরে নিতে হবে
পদার্থ গুলি বেরিয়াম ক্লোরাইড, Na ; k ; KCN ; LiAlH₄ ; NaH ; NaBH₄ ; HCN ; Cr₂O₃ ; CS₂ ; TNT ; CO ; PbO₂ ইউরেনিয়াম, রেডিয়াম ইত্যাদি তেজস্ক্রিয় পদার্থ। সিলভার নাইট্রেট, NH₃ ; SO₂Cl₂ ; H₂S ; NO₂ ; SO₂ ; CO₂ ; CO ; H₂O₂

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল  কপিরাইট: (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে যে কোন প্রশ্ন আপনার মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের ৯ম/১০ শ্রেণি ভোকেশনাল পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক
  • ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ লিংক

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *