‘বাজারজাতকরণে পণ্য ডিজাইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং নতুন পণ্য উন্নয়ন বাজারজাতকরণকে সমৃদ্ধ করে-’ উক্তিটির বিশ্লেষণ

‘বাজারজাতকরণে পণ্য ডিজাইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং নতুন পণ্য উন্নয়ন বাজারজাতকরণকে সমৃদ্ধ করে-’ উক্তিটির বিশ্লেষণ

এইচ এস সি পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:

অ্যাসাইনমেন্ট : ‘বাজারজাতকরণে পণ্য ডিজাইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং নতুন পণ্য উন্নয়ন বাজারজাতকরণকে সমৃদ্ধ করে-’ উক্তিটির বিশ্লেষণ

শিখনফল/বিষয়বস্তু :

  • পণ্যের ধারণা
  • বাজারজাতকরণ ও পণ্য ডিজাইন এর ধারণা
  • পণ্য ডিজাইন এর গুরুত্ব
  • নতুন পণ্য উন্নয়ন প্রক্রিয়ার ধাপ

নির্দেশনা (সংকেত/ ধাপ/ পরিধি): 

  • পণ্য ও নতুন পণ্যের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে
  • বাজারজাতকরণ ও পণ্য ডিজাইন এর ধারণা বর্ণনা করতে হবে
  • পণ্য ডিজাইন এর গুরুত্ব ব্যাখ্যা করতে হবে 
  • নতুন পণ্য উন্ন য়ন প্রক্রিয়ার ধাপ বর্ণনা করতে হবে

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে যে কোন প্রশ্ন আপনার মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

  • পণ্য ও নতুন পণ্যের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে

কোন বস্তুর মধ্যে যদিও স্পর্শনীয় বা অস্পর্শনীয় উপলব্ধিযোগ্য গুণ থাকে ও তা মানুষের অভাব পূরণে সমর্থ হয় এবং বিক্রেতা কর্তৃক বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে তা ক্রেতাদের নিকট উপস্থাপন করা যায় তখন তাকে পণ্য বলে।

সাধারণত নতুন পণ্য বলতে আমরা যে পণ্য বাজারে পূর্বে ছিল না বা ক্রেতারা পূর্বে কখনও দেখেনি সেই পণ্যকে বুঝি কিন্তু পণ্য উন্নয়ন বা উদ্ভাবনের বেলায় নতুন পণ্যকে সে দৃষ্টিকোণ থেকে না দেখে কিছুটা ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হয়।

বাজারজাতকরণের পরিভাষায় নতুন পণ্য বলতে নতুন উদ্ভাবিত পণ্য। বাজারে প্রচলিত পণ্যের নবায়ন অথবা কোন কোম্পানীর পণ্যসারিতে যে পণ্য ছিলনা তা সংযোজনকে বোঝায়। এ অর্থে পণ্যসারির গভীরতা বৃদ্ধিও নতুন পণ্য উন্নয়ন বলে বিবেচিত হয়।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • বাজারজাতকরণ ও পণ্য ডিজাইন এর ধারণা বর্ণনা করতে হবে

পণ্যের ডিজাইন বর্তমান প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। উৎপাদন কার্য শুরু হবার পূর্ব থেকে পণ্যের ডিজাইন স্থির করতে হয়। ক্রেতাদের রুচি, অভ্যাস, আয় ইত্যাদি পরিবর্তন হওয়ার সাথে সাথে তাদের ক্রয় অভ্যাসও দারুনভাবে পরিবর্তিত হচ্ছে। পণ্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে ক্রেতারা একদিকে যেমন বিভিন্ন ধরণের পণ্য ক্রয়ে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে, অন্যদিকে আবার একই মানের পণ্যের বিভিন্ন ডিজাইনের প্রতিও ঝুঁকে পড়ছে।

দেখা যায়, মান এক হওয়া সত্ত্বেও শুধুমাত্র ডিজাইনের পার্থক্যের কারণে কোন একটি পণ্য বাজার দখল করতে সক্ষম হচ্ছে এবং অন্য কোন পণ্য বাজার হতে বিতাড়িত হচ্ছে। পণ্যের নিজস্ব আকার, রং, আকৃতি, প্যাটার্ন, অলংকার ইত্যাদিই হলো পণ্যের ডিজাইন।

ক্রেতাদের পচ্ছন্দ, প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা অর্জন ইত্যাদি বিষয় বিবেচনা করে পণ্যের ডিজাইন করতে হয়। পণ্যের ডিজাইন যথাযথ না হলে প্রতিষ্ঠানের অস্তিত্ব বিপন্ন হতে পারে। তাই পণ্যের উৎপাদককে পণ্যের ডিজাইনের প্রতি অত্যাধিক গুরুত্ব দিতে হয়। পণ্য ডিজাইনের সাথে সাথে পণ্যের মান ব্যবস্থাপনাও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ বর্তমান প্রতিযোগিতাপূর্ণ বাজারে, ক্রেতা পন্যের মানকে অধিক গুরুত্বের সাথে মূল্যায়নের মাধ্যমে পণ্য ক্রয় করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে।

তাই প্রতিষ্ঠান মান ব্যবস্থাপনার প্রতি জোর বাড়িয়ে ক্রেতা সন্তুষ্টি বিধান, কর্মীদের অংশগ্রহণ এবং ধারাবাহিক মান উন্নয়নসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। বর্তমানে মান নির্ধারণ ও মান রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বিভিন্ন স্থানীয় ও আর্ন্তজাতিক সংস্থা কাজ করছে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

এ পণ্য ডিজাইন বলতে পণ্যের কাঠামােগত বিষয় বা মান বুঝায়। কাঁচামাল প্রক্রিয়াকরণ করে চূড়ান্তকরণ করে চূড়ান্ত পণ্য তৈরি করার পূর্বে পণ্য ডিজাইনের কাজ শুরু করতে হয়। আর পণ্য ডিজাইন করার সময় ক্রেতার সন্তুষ্টি ও প্রতিযােগিতা বিবেচনা করে পণ্য ডিজাইনে পণ্যের আকার, আকৃতি, ওজন, রং, অলংকরণ, গুণগতমান ইত্যাদি স্থির করা হয়। সাধারণত প্রতিষ্ঠানের কারিগরি বিভাগ পণ্য ডিজাইনের কাজ করে থাকে। বিভিন্ন লেখক বিভিন্নভাবে পণ্য ডিজাইনের সংজ্ঞা দিয়েছেন, Agarwal & Jain -97 760, “Design of the product means determining the shape, standard and pattern of the product.”, অর্থাৎ “পণ্য ডিজাইন বলতে পণ্যের আকার, মান ও ধাঁচ নির্ধারণকে বুঝায়”।

Zikmund & D’Amico -49 769, “Product design is a product’s configuration, composition and style; a characteristics that influences most product dimensions.” অর্থাৎ, “পণ্যের ডিজাইন হলাে পণ্যের আকার, গঠন ও স্টাইল; বৈশিষ্ট্য যা পণ্যের প্রধান মাত্রাকে প্রভাবিত করে”।

উপরােক্ত আলােচনা ও সংজ্ঞার প্রেক্ষিতে পণ্য ডিজাইন সম্পর্কে বলা যায় যে,

১. পণ্য ডিজাইন হলাে পণ্যের কাঠামােগত উপাদানের অংশ;
২. এর মাধ্যমে পণ্যের একটি নির্দিষ্ট মান প্রদান করা হয়;
৩. পণ্য ডিজাইনের অন্তর্ভূক্ত বিষয়গুলাে হলাে- পণ্যের আকার, আকৃতি, ওজন, রং, মান ইত্যাদি;
৪. পণ্য পরিকল্পনা হতে পণ্য ডিজাইনের কাজ শুরু হয় এবং সে অনুযায়ী উৎপাদন করা হয়; এবং
৫. সাধারণত, প্রতিষ্ঠানের কারিগরি বিভাগ পণ্য ডিজাইন করে থাকে। পরিশেষে বলা যায় যে, ক্রেতার রুচি, পছন্দ, স্টাইল ও সন্তুষ্টি বিবেচনা করে পণ্যের আকার, আকৃতি, রং, ধরণ, মান, অলংকরণ ইত্যাদি পণ্যটি উৎপাদনের পূর্বে নির্ধারণ করাই হলাে পণ্য ডিজাইন বা পণ্য নশাকরণ।

পণ্য ডিজাইনের সময় পণ্যের উৎপাদন পদ্ধতি, গুণগত মান এবং বহনযােগ্যতা ইত্যাদিকে বিবেচনা করা হয়।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • পণ্য ডিজাইন এর গুরুত্ব ব্যাখ্যা করতে হবে 

পণ্য ডিজাইনের গুরুত্ব (Importance of Product Design) : ক্রেতা বা ভােক্তাদের রুচি, পচ্ছন্দ, ক্রয় অভ্যাস ইত্যাদি পরিবর্তনের ফলে একদিকে যেমন উৎপাদকরা তাদের উৎপাদিত পণ্যের ডিজাইন পরিবর্তন করতে বাধ্য হয় অন্যদিকে তেমনি প্রতিযােগিতায় টিকে থাকার জন্যেও পণ্যের আধুনিক ডিজাইন করার প্রয়ােজন হয়। 

নিম্নে বিভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে পণ্য ডিজাইনের গুরুত্ব আলােচনা করা হলাে

১. আকর্ষণ সৃষ্টি (Creating Attraction): পণ্য ডিজাইনের মাধ্যমে পণ্যটির আকার, আকৃতি, ওজন, অলংকরণ ইত্যাদি ক্রেতার নিকট সবচেয়ে আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করা হয়। যা পণ্যের চাহিদা, গ্রহণযােগ্যতা ও বিক্রয় বৃদ্ধিতে ব্যাপকভাবে সহায়তা করে। 

২.উৎপাদন ব্যয় হ্রাস (Reducing Cost): পণ্য ডিজাইনের মাধ্যমে উৎপাদন প্রক্রিয়ায় পরিবর্তন করে উৎপাদন উপকরণের অপচয় হ্রাস ও দ্রুততার সাথে উৎপাদন কার্য সম্পাদন করা সম্ভব হয়। এর ফলে একক প্রতি উৎপাদন ব্যয় হ্রাস করা সম্ভব যা প্রতিযােগিতাপূর্ণ বাজারে টিকে থাকার জন্য অপরিহার্য। 

৩. ভােক্তাদের রুচির পরিবর্তন (Changes in Consumer Taste): সময়ের সাথে সাথে ভােক্তার চাহিদা ও রুচির পরিবর্তন ঘটে। আর ভােক্তার এই পরিবর্তনশীল রুচির সন্তুষ্টি বিধানের জন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলাে তাদের পন্য দ্রব্য নিয়মিত নতুন নতুন ডিজাইনে রূপান্তর করে। 

৪. প্রযুক্তিগত পরিবর্তন (Changes in Technology): বর্তমানে প্রযুক্তি খুব দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে। নতুন প্রযুক্তি বিভিন্ন উপযােগ সৃষ্টি করে যার ফলে পণ্যের মান উন্নত হচ্ছে। আর ভােক্তারাও নিত্য নতুন প্রযুক্তিসম্পন্ন পণ্য। ক্রয় করার জন্য উৎসাহী থাকে। এইকারণে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান নতুন প্রযুক্তির সাথে সামঞ্জস্য রেখে পণ্য ডিজাইন করে। 

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

৫. প্রতিযােগীতা মােকাবেলা (Facing Competition): উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে তীব্র প্রতিযােগিতা মােকাবেলা করে পণ্য বাজারজাত করতে হয়। এইকারণে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান প্রতিযােগি প্রতিষ্ঠানের পণ্য অপেক্ষা আকর্ষণীয় ও মানসম্পন্ন পণ্য বাজারে নিয়ে আসে যেন অধিক বিক্রয় হয় ও প্রতিষ্ঠান লাভজনক অবস্থায় আসে। 

৬. অনুগত ক্রেতাদের ধরে রাখা (Retaining Loyal Customer): কোনাে প্রতিষ্ঠানের পণ্য ব্যবহার করে ক্রেতা উচ্চমাত্রায় সন্তুষ্ট হলে ক্রেতা সেই প্রতিষ্ঠানের পণ্য বার বার ক্রয় করে। আবার ক্রেতা যদি মনে করে যে প্রতিযােগী পণ্য তাকে আরাে বেশি সন্তুষ্টি দিবে, তাহলে সে প্রতিযােগী পণ্য ক্রয় করবে। তাই উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে নিয়মিত পণ্য ডিজাইন করে ক্রেতাদের ধরে রাখতে হয়। 

৭. নতুন সুযােগ সৃষ্টি (Creating New Opportunity): নতুন পণ্য বা ডিজাইন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রতিযােগিতামূলক পরিবেশে নতুন সুযােগ সৃষ্টি করতে পারে। যেমন- বর্তমানে ভােক্তারা পরিবেশের ব্যাপারে সচেতন। পরিবেশের ক্ষতি করে এমন পণ্যের ভিড়ে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান পণ্যের ডিজাইন পরিবর্তন ও উন্নয়ন করে পরিবেশবান্ধব পণ্য বাজারে নিয়ে আসলে তা প্রতিষ্ঠানের জন্য সুযােগ সৃষ্টি করবে। 

৮. সুনাম সৃষ্টি ও রক্ষা করা (Creating and Maintaining Goodwill): পণ্য ডিজাইন ভােক্তাদের মাঝে পণ্য ও প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে সুনাম সৃষ্টি করতে ও তা ধরে রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। নতুন নতুন ডিজাইনের মাধ্যমে ভােক্তাদেরকে উন্নতমানের পণ্য অপেক্ষাকৃত কম মূল্যে সরবরাহ করা সম্ভব হয়। আবার ক্রেতাদের রুচি ও প্রয়ােজন অনুযায়ী পণ্যের মান উন্নয়ন ও পণ্যের বৈশিষ্ট্য সংযােজনের মাধ্যমে পণ্য ও প্রতিষ্ঠানের কষ্টার্জিত সুনাম ধরে রাখা সম্ভব হয়। 

৯. পণ্যের জীবন-চক্র মােকাবেলা (Facing Product Life Cycle): প্রতিটি পণ্য জীবন চক্রের ধারাবাহিক বিভিন্ন পর্যায়ের মধ্য দিয়ে পরিচালিত হয়। যদি পণ্য জীবন চক্রের ধাপগুলাে দ্রুত অতিক্রম করে তাহলে জীবন চক্রের শেষ পর্যায়ে পণ্য পর্যাপ্ত মুনাফা অর্জন করতে পারে না। তাই পণ্যের জীবন চক্রকে মােকাবেলা করার জন্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে নতুন পণ্য ডিজাইন বা বিদ্যমান পণ্যের ডিজাইনে উন্নয়ন করতে হয়। 

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

১০. সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহার (Maximum Utilization of Resources); নতুন পণ্য ডিজাইন বা বিদ্যমান পণ্যের ডিজাইন উন্নয়ন ও বাজারজাতকরণের মাধ্যমে উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান তার সম্পদের সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে পারে। এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠান তার মূলধন, যন্ত্রপাতি, দক্ষতা, অভিজ্ঞতা ইত্যাদির সর্বোচ্চ ব্যবহার নিশ্চিত করতে পারে। 

  • নতুন পণ্য উন্ন য়ন প্রক্রিয়ার ধাপ বর্ণনা করতে হবে

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে যে কোন প্রশ্ন আপনার মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অন্য সকল ক্লাস এর অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর সমূহ :-

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ভোকেশনাল: ৯ম/১০ শ্রেণি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক

৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ,

৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় SSC এসাইনমেন্ট :

বিজ্ঞান ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট, ব্যবসায় ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট, মানবিক ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় HSC এসাইনমেন্ট :

মানবিক ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট, বিজ্ঞান ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট , ব্যবসায় ১ম ও ২য় বর্ষের এসাইনমেন্ট

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *