ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের এর কাজ কি,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের মাসিক আয় কেমন?,

ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের এর কাজ কি,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের মাসিক আয় কেমন?,

মতামত

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস এর সর্বশেষ আপডেট পেতে Google News অনুসরণ করুন

শেয়ার করুন:

আজকের বিষয়: ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের এর কাজ কি,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?,একজন ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের মাসিক আয় কেমন?,

আসসালামু আলাইকুম প্রিয় পাঠক, আজকের আর্টিকেলে আমরা জানবো গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিতে Quality Job Responsibilities অর্থাৎ কোয়ালিটিরা কি কি কাজ করেন এবং দায়িত্ব কর্তব্য পালন করেন। গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিতে পণ্যের গুণগত মান বজায় রাখা এবং বায়ারের Requirement ঠিক রাখার জন্য কোয়ালিটিরা কাজ করে থাকেন।

এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনি গার্মেন্টস ইন্ডাস্ট্রিতে সুইং এবং ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের যাবতীয় কাজ এবং দায়িত্ব কর্তব্য সম্পর্কে জানতে পারবেন।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

সুইং সেকশনের কোয়ালিটিদের দায়িত্ব ও কর্তব্য :

  • প্রতিদিন সঠিক সময়ে অফিসে আসতে হবে। অফিসের যে ড্রেস কোড রয়েছে যেমন, ইন করে আসা, মেয়েদের মাথায় ওড়না বা স্কার্ফ ব্যবহার করা, অফিসের ইউনিফর্ম থাকলে গায়ে দেয়া, আইডি কার্ড গলায় দেয়া, বাহিরের জুতা অফিসে ব্যবহার না করা এবং অফিস টাইমে কোয়ালিটিদের মেজারমেন্টটেপ গলায় ঝোলানো থাকতে হবে।
  • রেডি হয়ে আউটপুট টেবিলে যেতে হবে। প্রতিদিন সকালে কন্ট্রোলার মিটিং করেন বা কিছু ইন্সট্রাকশন দিয়ে থাকেন সেটা শুনতে হবে। রিপোর্ট ফাইল এবং পেজ সংগ্রহ করতে হবে এবং ডেট, বায়ার, স্টাইল, প্রসেস, ইত্যাদি লিখতে হবে।
  • প্রতিটি কোয়ালিটির আন্ডারে যে সকল মেশিন রয়েছে সেগুলোর এসপিআই চেক করতে হবে। কোন মেশিনে নতুন অপারেটর দিলে সেই মেশিনের কিছু কাজ চেক করতে হবে। কোনো সমস্যা থাকলে সংশ্লিষ্ট প্রসেসের সুপারভাইজার এবং লাইনের কোয়ালিটি কন্ট্রোলার কে জানাতে হবে।
  • চেক শুরু করে প্রথমেই দেখতে হবে স্টাইলিং ঠিক আছে কিনা এবং প্রতিটি কোয়ালিটির চেক পয়েন্টে মেজারমেন্ট পয়েন্ট আছে সেগুলো মেজারমেন্ট করতে হবে। চেক করে যে ডিফেক্ট গুলো পাওয়া যায় সেগুলো রিপোর্টে লিপিবদ্ধ করতে হবে। ডিফেক্ট গুলো সুপারভাইজারকে বুঝিয়ে দিতে হবে এবং রিপেয়ার করা গার্মেন্টসগুলো বুঝে নিতে হবে।
  • একজন কোয়ালিটিকে অবশ্যই গার্মেন্টস এর সকল প্রকার ডিফেক্ট সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে। কোন ডিফেক্টের কি নাম সেটা কি মেজর মাইনর নাকি ক্রিটিকাল সে সম্পর্কে ভালোভাবে বুঝতে হবে। কোন কোয়ালিটি যদি ডিফেক্ট না চেনে তাহলে কিন্তু সে ডিফেক্ট ধরতে পারবেনা, সব ডিফেক্ট ফিনিসিং এ চলে যাবে। তাই কোয়ালিটিতে চাকরি করতে হলে আগে ডিফেক্টগুলো সম্পর্কে জানতে হবে।
  • কোন প্রসেসে বেশি ডিফেক্ট পাওয়া গেলে সুপারভাইজার এবং কোয়ালিটি কন্ট্রোলার কে জানাতে হবে যদি তাদের জানানোর পরও ডিফেক্ট না কমে তাহলে প্রয়োজন হলে কোয়ালিটি ইনচার্জ এবং কোয়ালিটি ম্যানেজারকে জানাতে হবে। কাজের ফাঁকে সময় করে যে মেসিন গুলোতে বেশি ডিফেক্ট পাওয়া যায় সেই মেশিনে গিয়ে গার্মেন্টস চেক করতে হবে এবং অপারেটরকে দেখে কাজ করার জন্য বলতে হবে।
  • কিছু কিছু প্রসেস যেমন লেভেল, জিপার এবং কন্টাস্ট থ্রেড থাকলে এগুলো গুরুত্বসহকারে চেক করতে হবে কারণ এগুলো বেশি মিসটেক হয়ে থাকে। প্রতি ঘন্টার প্রোডাকশনের হিসাব রাখতে হবে কত পিস প্রোডাকশন হয়। কারণ কোয়ালিটি যে প্রোডাকশন দিবে সেটাই লাইনের প্রোডাকশন হিসেবে গণ্য করা হয়।
  • যারা আউটপুটে চেক করে তাদের মূলত গার্মেন্টস এর প্রতিটি প্রসেস চেক করতে হয়। ইনপুট থেকে কোন সমস্যা আসলে সেটা আউটপুটে ধরতে হবে। কারণ আউটপুট হচ্ছে সুইং লাইনের শেষ এবং গুরুত্বপূর্ণ চেক পয়েন্ট। বায়ার আসলে তার জন্য আউটপুট টেবিলে কিছু গার্মেন্টস স্পেশাল ভাবে চেক করে রাখতে হবে যাতে বায়ার গার্মেন্টস ধরলে কোন সমস্যা না পায়। আউটপুট টেবিলের মেজারমেন্ট স্পেস দেখে মাঝে মাঝে কি পয়েন্টগুলো মেজারমেন্ট করতে হবে।
  • প্রতি ঘন্টার প্রোডাকশন হওয়া গার্মেন্টসগুলো অডিটকে বুঝিয়ে দিতে হবে। অডিটর একিউএল অনুযায়ী চেক করার পর পাস হলে গার্মেন্টসগুলো ওয়াসে বা ফিনিশিং সেকশনে চলে যাবে।
  • প্রতিটি কিউআই টেবিলে স্টাইল অনুযায়ী ওয়ার্ক ইনস্ট্রাকশন দেওয়া থাকে সেটা ফলো করে কাজ করতে হবে। বায়ার যে প্রসেস এর উপর বেশি গুরুত্ব দেয় সেটা গুরুত্ব সহকারে চেক করতে হবে। কোম্পানির রুলস রেগুলেশন সবসময় মেনে চলতে হবে। দিনশেষে রিপোর্ট কমপ্লিট করে জমা দিতে হবে। ছুটির সময় লাইনে কন্ট্রোলার এর সাথে দেখা করে অফিস থেকে বের হতে হবে।

ফিনিশিং সেকশনের কোয়ালিটিদের দায়িত্ব ও কর্তব্য :

  • গার্মেন্টসের ইনসাইড এবং টপসাইট যারা চেক করে তাদের সমস্ত প্রকার ডিফেক্ট, স্পট, সুতা ধরতে হবে। কোন প্রসেসে বেশি ডিফেক্ট পাওয়া গেলে কন্ট্রোলারকে জানাতে হবে।
  • মেজারমেন্ট কোয়ালিটিরা কি পয়েন্টগুলো মেজারমেন্ট করে আউট অফ টলারেন্স গার্মেন্টস আলাদা করে রাখবে। গেটাপ চেক কোয়ালিটি গার্মেন্টস এর গেটাপ এরিয়া কেয়ারফুলি চেক করবে। এসকেইউ চেক পয়েন্ট কোয়ালিটি লেভেল বারকোড সহ অন্যান্য এসোসারি কেয়ারফুলি চেক করবে।
  • কোয়ালিটি ফাইলে ডিফেক্ট এবং প্রোডাকশন কোয়ান্টিটি হিসাব রাখবে। প্যাকিং সেকশন কোয়ালিটি আয়রন, পলি রিসো, এসোর্ট ফলোআপ করবে। ডিফেক্ট রিপেয়ার করা গার্মেন্টসগুলো বুঝে নিতে হবে এবং পুনরায় চেক করতে হবে। লট অডিট যে সমস্যাগুলো পায় সেগুলো ভালোভাবে ফলোআপ করতে হবে।

প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে ইমেল : info@banglanewsexpress.com

আমরা আছি নিচের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুলোতে ও

শেয়ার করুন:

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস এর সর্বশেষ আপডেট পেতে Google News অনুসরণ করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *