১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনার ভাইরাস মহামারির কারণে দেশের সব সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও কোচিং সেন্টারের ছুটি আগামী ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে।

এসময়ে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয় ও কিন্ডারগার্ডেন স্কুলগুলোও বন্ধ থাকবে। করোনা ভাইরাস সংক্রমন থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিত রাখতে ছুটি বাড়ানো হয়েছে। এ সময়ে নিজেদের এবং অন্যদের করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ বাসস্থানে অবস্থান করতে বলা হয়েছে। তবে, কওমি মাদরাাসায় যথারীতি ক্লাস ও পরীক্ষা চলবে।

শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের দৈনিক শিক্ষাডটকমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, ছুটির সময় ভাইরাস সংক্রমণ রোধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জারি করা নির্দেশনা ও অনুশাসনগুলো শিক্ষার্থীদের মেনে চলতে হবে। শিক্ষার্থীদের বাসস্থানে অবস্থানের বিষয়টি অভিভাবকরা নিশ্চিত করতে অভিভাবকদের বলা হয়েছে এবং স্থানীয় প্রশাসন তা নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করবেন। শিক্ষার্থীরা যাতে বাসস্থানে অবস্থান করে নিজ নিজ পাঠ্যবই অধ্যয়ন করে সে বিষয়টি অভিভাবকদের মাধ্যমে নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বাড়তে থাকায় গত ১৭ মার্চ সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। ২৬ মার্চ থেকে সারাদেশে সব অফিস-আদালত আর যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। টানা ৬৬ দিন সাধারণ ছুটির পর ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে অফিস খুলে যানবাহন চলাচল শুরু হলেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধই থাকে।

গত ১ এপ্রিল থেকে নির্ধারিত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা মহামারির কারণে নেয়া সম্ভব হয়নি। এবারের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা এবং জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষাও কেন্দ্রীয়ভাবে হচ্ছে না।

Holidays of educational institutions till January 16

Holidays in all public and private schools, colleges, universities and coaching centers in the country have been extended till January 18 due to the global corona virus epidemic. All primary and kindergarten schools in the country will also be closed during this time. Holidays have been extended to protect students from corona virus infection. Students are asked to stay at their respective residences to protect themselves and others from corona virus infection. However, classes and examinations will continue as usual at Qawmi Madrasa.

Mohammad Abul Khair, public relations officer of the education ministry, confirmed this information to the daily Shiksha.com on Friday (December 18) at noon.

It is learned that the students have to abide by the instructions and directives issued by the Prime Minister’s Office, the Cabinet Division, the Ministry of Public Administration and the Department of Health Services to prevent the spread of the virus during the holidays. Parents have been asked to confirm the location of the students’ accommodation and the local administration will closely monitor it. The heads of the institutions have been asked to ensure that the students study their respective textbooks at home.

Due to the increasing prevalence of coronavirus in the country, all types of educational institutions were declared closed on March 16. From March 26, all offices, courts and vehicles across the country were closed. After a seven-day general holiday, a limited number of offices were opened on May 31, but educational institutions remained closed.

The HSC and equivalent examinations scheduled from April 1 could not be taken due to the epidemic. This year’s primary and ibtedayi final examination and JSC-JDC examination are also not being held centrally.

Leave a Comment