নর্থ সাউথ-ড্যাফোডিল-ইউরোপিয়ান শিক্ষার্থী সংখ্যায় এগিয়ে

নর্থ সাউথ-ড্যাফোডিল-ইউরোপিয়ান শিক্ষার্থী সংখ্যায় এগিয়ে

শেয়ার করুন:

দেশের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী অধ্যায়ন করছে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে। এর পরের অবস্থানে রয়েছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। আর শিক্ষার্থীর সংখ্যায় তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ইউরোপিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) ৪৬তম বার্ষিক প্রতিবেদনের বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমূহের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, গবেষণা, ব্যয়, প্রকাশনা ও শিক্ষক-শিক্ষার্থী অনুপাত থেকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী,নর্থ […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
এক নজরে ২০২০এর শেয়ার বাজার

এক নজরে ২০২০এর শেয়ার বাজার

শেয়ার করুন:

দীর্ঘ মন্দা ও করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও চলতি বছরে ঘুরে দাঁড়াতে শুরু করেছে দেশের পুঁজিবাজার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) বেঁধে দেওয়া ফ্লোর প্রাইসের (শেয়ারের সর্বনিম্ন দাম) ভিত্তিতে পতনের বৃত্ত থেকে বেরিয়ে এসেছে পুঁজিবাজার। ফলে সম্প্রতি শেয়ারবাজারে সূচক ও লেনদেনে রেকর্ড ছুঁয়েছে। এতে হারানো আস্থা ফিরে পেয়ে নতুন আশায় বুক বাঁধছেন […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
এসএসসিতে অটোপাস চায় ৯৫% ছাত্র-ছাত্রী

এসএসসিতে অটোপাস চায় ৯৫% ছাত্র-ছাত্রী

শেয়ার করুন:

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ায় অন্যান্য খাতের মতো প্রভাব পড়েছে শিক্ষা খাতে । বেশির ভাগ দেশেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে । বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয় । চলতি বছরের মার্চ, , ধোন থেকে দেশে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে । ফলে ইতিমধ্যে এইচএসসি ২0২0 সালের ব্যাচের শিক্ষার্থীদের অটোপাস দেওয়া হয়েছে । তবে আসন্ন এসএসসি ( ২0২1 সাল ) পরীক্ষা নিয়ে উদ্বেগে রয়েছেন শিক্ষার্থীরা । তবে সর্বশেষ শিক্ষামন্ত্রী ডা । দীপু মনি শিক্ষার্থীদের পূর্ণ প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন । তার পরে দুই দফা ছুটি বাড়ানো হয়েছে । এর মধ্যে এসএসসি নিয়ে নানা গুজব ছড়িয়েছে । কেউ বলছেন , সিলেবাস ছোট করে পরীক্ষা নেওয়া হবে । আবার খবর ছড়িয়ে পরীক্ষা পেছানো হবে । কিন্তু এই তথ্যগুলোর কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি । এসএসসি ২0২1 ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিষয়ে এখনো সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা কোনো মহল থেকেই দেওয়া হয়নি । ফলে ২0 লাখ শিক্ষার্থীর মধ্যে একধরনের উদ্বেগ কাজ করছে । এমন অবস্থায় শিক্ষার্থীরা কী ভাবছে , তা নিয়ে কয়েকটি মতামত জরিপ করে ‘ সময় নিউজ ‘ । সর্বশেষ জরিপে দেখা গেছে 95 । 16 শতাংশ শিক্ষার্থী অটোপাসের দাবি করছেন । চলতি মাসের 14 তারিখ থেকে ২5 তারিখ পর্যন্ত পরিচালিত মতামত জরিপে প্রশ্ন ছিল , ‘ করোনার মধ্যে আগামী এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে নানা দাবি করছেন শিক্ষার্থীরা । এর মধ্যে আপনি কোন দাবিটি সমর্থন করেন ? ‘ । প্রশ্নের বিপরীতে তিনটি অপশন দেওয়া হয় ; ১ । অটোপাস ঘোষণা । ২ । পরীক্ষা করা হয় । ৩ । সিলেটবাসী কমমানো । শুক্রবার ( ২5 মে ) দুপুর ২ টায় এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত মতামত জরিপে মোট 53 হাজার 396 জন মতামত দেন । এর মধ্যে অটোপাসের পক্ষে মতামত দিয়েছেন 50 হাজার 813 জন বা 95 । 16 শতাংশ , পরীক্ষা পেছানোর পক্ষে 83২ জন বা 1 । 56 শতাংশ ও সিলেবাস কমানোর পক্ষে 1 হাজার 678 জন বা 3 । ১৪ শতাংশ । এর মাগী, নভম্বের মাসের শেষের দিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে দু – একদিনের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সিদ্ধান্ত দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব । তখন সময় নিউজের পক্ষে থেকে একটি মতামত জরিপ করা হয় । ওই জরিপে প্রশ্ন ছিল , ‘ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে দু – একদিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব । আপনি কি মনে রাখবেন , করোনারের মধ্যে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও বাড়ির মতো ? ‘ প্রশ্নের বিপরীতে তিনটি অপশন ছিল ; ১ । হ্যাঁ । ২ । না । ৩ । মন্ত্রব্য নেই । সেখানে মোট ভোট পড়ে 13 হাজার 65 জন । এর মধ্যে হ্যাঁ – ভোট দেন 11 হাজার ২২8 জন বা 85 । 94 শতাংশ , না – ভোট দেন 1 হাজার 576 জন বা 1২ । 06 শতাংশ ও মন্তব্য করেননি ২55 জন বা 1 । ৯৫ শতাংশ । এদিকে সিলেবাস কমিয়ে পরীক্ষা নেওয়ার যে তথ্য ছড়িয়েছে তা এখনো নিশ্চিত নয় । পরীক্ষা কীভাবে হবে , সিলেবাস কমবে কিনা , সময় বাড়ানো হবে কিনা এসব বিষয়ে কোনো দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়নি । বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডও ( এনসিটিবি ) এখনও ‘ পরিকল্পনা ‘ তৈরির প্রাথমিক পর্যায়ে । জানা গেছে , ২0২1 সালে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থী রয়েছে প্রায় ২0 লাখ । এসব শিক্ষার্থী বছরের প্রায় পুরোটাই ক্লাস – পরীক্ষা থেকে দূরে রয়েছে । নিয়ম অনুযায়ী , আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা । কিন্তু প্রায় 9 , ধোন ক্লাস – পরীক্ষা থেকে দূরে থাকার পর মাত্র 3 মাসে পরীক্ষার প্রস্তুতির ঘোষণায় ব্যাপকভাবে মানসিক চাপে ২0 লাখ কিশোর – কিশোরী । সাতক্ষীরা সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী ও এসএসসি পরীক্ষার্থী সাব্বির হোসেন সময় নিউজকে বলেন , ‘ এসএসসি পরীক্ষা অটোপাস চাই । আমাদের দশম শ্রেণির জন্য নতুন করে পড়তে হয় । কিন্তু আমরা কোনো ক্লাস পায়নি । সে কারণে অটোপাস চেই । বীরগঞ্জ পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী স । এম । র আল নাহিয়ান হৃদম বলেন , প্রধানমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর কাছে আমি বিনীতভাবে ২0 লাখ শিক্ষার্থীর পক্ষ থেকে অনুরোধ করছি , তারা যেন এই করোনায় পরীক্ষা নিতে গিয়ে আমাদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে না দেন । খুলনার ল্যাবরেটরি হাইস্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আনিকা ইসলাম ফিহা বলেন , টানা 10 , ধোন আমরা পড়াশোনা থেকে দূরে আছি ; যা আমাদের মানসিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে । আর আমরা যখন বই নিয়ে পড়াশোনা শুরু করার কথা ভাবছি তখন অনেক বেশি কনফিউজড হয়ে যাচ্ছি যে , শুরু করব কোথা থেকে বা শেষ করব কীভাবে ? এ ছাড়া আমরা অনলাইন ক্লাসও ঠিকভাবে করতে পারিনি । বাসায় টিচার রেখে পড়তে পারিনি । এখনো আমাদের টেস্ট পরীক্ষা হয়নি । এমতাবস্থায় যদি যথাসময়ে পরীক্ষা নেওয়া হয় তাহলে আমরা ভালো করতে পারব না । এ জন্য করোনাকালীন সময় শেষ হওয়ার পর আমাদের টেস্ট এক্সাম নিয়ে যদি যথেষ্ট সময় দেয় এসএসসি পরীক্ষার মাগী, তো আমরা পরীক্ষা দিতে রাজি নতুবা অটোপ্রমোশন চাই । নওগাঁ কেডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী তৌহিদ মোহাম্মদ শাফিক বলেন , আমি এসএসসি পরীক্ষা দিতে রাজি । কিন্তু আমাদের মার্চ, ২0২0 সালের থেকে এখন পর্যন্ত যেই ক্ষতিটা হয়েছে বা এখনো হচ্ছে সেটা সম্পূর্ণ পূরণ করে দিতে হবে । অনলাইন ক্লাসের কথা বলে লাভ নাই ! কারণ সায়েন্সের মতো জটিল বিষয়গুলো অনলাইনে ক্লাস করে পুরোপুরিভাবে সমাধান হয় না । কিছু কিছু বিষয়গুলো করা যায় । কিন্তু উচ্চতর গণিত , পদার্থবিজ্ঞান , রসায়ন , জীববিজ্ঞান , সাধারণ গণিত এসব ক্লাস কখনোই অনলাইনে পুরোপুরিভাবে সমাধান করা যায় না ! এর জন্য সরাসরি ক্লাস দরকার । তাই যদি পরীক্ষা নিতেই হয় তাহলে এই ক্ষতিটা মাগী, পূরণ করে দিয়ে তারপর নিতে হবে । আর নাহলে অটোপাস ! এদিকে এসএসসি পরীক্ষার্থীরা ইতিমধ্যে তাদের দাবি নিয়ে সামাজিকমাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক প্রচারণা চালাচ্ছেন । ফেসবুকে তাদের অন্তত 10 টি গ্রুপ রয়েছে । সেখানে কয়েক লাখ শিক্ষার্থী সদস্য । ওই সব গ্রুপ থেকে তাদের যেসব দাবি উত্থাপন করা হচ্ছে সেগুলো হলো ; ১ । করোনার ভ্যাকসিন না আসা পর্যন্ত স্কুল খোলা যাবে না । ২ । করোনা চলাকালীন কোনো ধরনের পরীক্ষা ( স্কুল বার্ষিক পরীক্ষা , টেস্ট পরীক্ষা ও এসএসসি পরীক্ষা ) নেওয়া যাবে না । ৩ । স্কুল কার্যক্রম 8 , ধোন বন্ধ ছিল , তাই এই 8 মাসের ক্ষতিপূরণ হিসেবে এসএসসি পরীক্ষা 10 , ধোন পেছাতে হবে । ৪ । পরীক্ষা 8 , ধোন পেছানো হলে তার জন্য সেশনজট সৃষ্টি হবে , এর ফলে জীবন থেকে পরবর্তী 1 বছর পূর্বে ঝরে যাবে । তাই এই সেশনজটের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে । ৫ । যদি উপরোক্ত দাবি না মেনে জোরপূর্বক করোনা চলাকালীন সময়ে এসএসসি পরীক্ষা নেওয়া হয় এবং পরীক্ষা চলাকালীন যদি কেউ করোনা পজিটিভ হয় , তাহলে সেই ছাত্রের দায়ভার সরকারকে নিতে হবে । 6 । যদি এসএসসি পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয় , তাহলে পিএসসি ও জেএসসি পরীক্ষার রেজাল্টের ওপর ভিত্তি করে অটোপ্রমোশন দিতে হবে । এ বিষয়ে বনানী বিদ্যানিকেতন স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রায়ান উৎস বলেন , বর্তমান করোনা পরিস্থিতি অস্বাভাবিকভাবে বেড়েই চলছে । এ ছাড়া নতুন প্রজাতির এই ভাইরাস এখন প্রাপ্তবয়স্কদেরও আক্রান্ত করছে । আমরা এই করোনার ভয়াবহ পরিস্থিতিতে এসএসসি পরীক্ষা দিতে রাজি নই । যদি এসএসসি পরীক্ষা দেরিতে হয় তাহলে সেশনজট সৃষ্টি হবে । এর ফলে আমাদের জীবন থেকে এক বছর পূর্বে ঝরে যাবে । এ জন্য আমরা ফেব্রুয়ারির আগেই অটোপাস চাই । কারণ এর ফলে আমরা মানসিক চাপের মধ্যে আছি । আমরা দ্রুত সিদ্ধান্ত চাই । খিলগাঁওয়ের ন্যাশনাল আইডিয়াল স্কুলের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আলিফ আল জামান বলেন , আমরা নবম শ্রেণি থেকে বার্ষিক পরীক্ষা দিয়ে দশম শ্রেণিতে উঠেছি । নবম শ্রেণিতে ঠিকমতো পড়ালেখা হয়নি । দশম শ্রেণিতে ওঠার পর তৃতীয় , ধোন অর্থাৎ মার্চ, , ধোন থেকে আমাদের মডেল টেস্ট হওয়ার কথা । কিন্তু মার্চ, , ধোন থেকেই আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুরোপুরি বন্ধ হয়ে গেল । আমরা অনেক পিছিয়ে গেছি পড়ালেখার দিক দিয়ে । এখন আমাদের যদি ২0২1 সালে এসিএসসি পরীক্ষা নেওয়া হয় তাহলে আমাদের সবার রেজাল্ট খারাপ হবে । রেজাল্ট যদি আমাদের খারাপ হয় তাহলে আমরা অনেক পিছিয়ে যাব । তাই আমাদের ২0২1 এসএসসিতে অটোপ্রমোশন দিয়ে আমাদের এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ করে দিন । শরীফ উল্লাহ হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী ইফতিয়া আন্নি বলেন , এসএসসি পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতে হলে বছরের প্রথম থেকে পরীক্ষার আগ পর্যন্ত নিয়মিত ক্লাস করতে হয় । কিন্তু আমরা করোনার কারণে নিয়মিত ক্লাসগুলো করতে পারিনি । এমতাবস্থায় আমাদের পরীক্ষা নেওয়া হলে আমরা পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করতে সক্ষম হব না । তা ছাড়া করোনাভাইরাস আবার নতুনভাবে নতুন রূপ ধারণ করেছে । তাই আমরা নিরাপদভাবে ঘরে থাকতে চাই এবং সুস্থভাবে বাঁচতে চাই । advertisement শিক্ষার্থীদের এসব বিষয়ে নিয়ে ইতিপূর্বে সময় নিউজের সঙ্গে কথা হয় ঢাকা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের ( সিএমএইচ ) মনোরোগবিদ্যা বিভাগের সাবেক প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল অধ্যাপক করেছেন মো । আজিজুল ইসলামের সঙ্গে । তিনি সময় নিউজকে বলেন , ‘ এখানে দুই ধরনের ইস্যু আছে । একদিকে পরীক্ষা সময়মতো না হলে সেশনজট হবে । অন্যদিকে অল্প সময় দিয়ে পরীক্ষা নিলে শিক্ষার্থীদের ওপর বিরাট বোঝা বা মানসিক চাপ দেওয়া হবে । মানসিক চাপে পড়লে এর কিছু ফলাফল হতে পারে যেমন , পারফর্মেন্স খারাপ হতে পারে , মোটিভেশন কমে যাবে , ড্রপআউট হতে পারে । অনেকে ভয়ে এবার পরীক্ষা নাও দিতে পারে । এসব মানসিক চাপের ফলে অনেকে ড্রাগ নেওয়াও শুরু করে । এ জন্য সব বিষয় ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে হবে । সবচেয়ে ভালো হয় পড়াশোনার জন্য প্রয়োজনীয় সময় দিয়ে পরীক্ষা নেওয়া । ‘ অল্প সময় দিয়ে পরীক্ষা ঘোষণা হলে শিক্ষার্থীদের ওপর অতিরিক্ত চাপ পড়বে কিনা জানতে চাইলে ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর জিয়াউল হক সময় নিউজকে বলেন , ‘ পরীক্ষা সবসময় একটু চাপের বিষয় । তবে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি । সিদ্ধান্ত নেওয়ার মাগী, অবশ্যই শিক্ষার্থীদের বিষয় মাথায় রাখা হবে । তারা নবম ও দশম শ্রেণিতে কতটা ক্লাস করতে পেরেছে , সংসদ টিভি বা অনলাইনে কত দূর এগিয়েছে এসব বিবেচনা করেই সিদ্ধান্ত হবে । ‘ এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব করেছেন মো । মাহবুব হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন , ‘ সব বিষয় বিবেচনা করেই সরকার সিদ্ধান্ত নেবে । শিক্ষার্থীদের উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই । ‘ এর মাগী, শিক্ষার্থীদের দাবি নিয়ে সময় নিউজের পক্ষ থেকে গত 7 নভেম্বর থেকে 9 নভেম্বরে আরো একটি জরিপ করা হয় । জরিপে 50 হাজার শিক্ষার্থী মতামত দেন । জরিপে প্রশ্ন ছিল , ‘ করোনা পরিস্থিতির কারণে এসএসসি ২1 ব্যাচের শিক্ষার্থীরা সামাজিকমাধ্যমে বেশকিছু দাবি উত্থাপন করেছেন । এর মধ্যে পরীক্ষা পেছানো , সিলেবাস কমানো ও অটোপাস দেওয়া ; এ তিনটি দাবি থেকে আপনি কোন দাবিটি সমর্থন করেন ? ‘ উত্তরে অটোপাস ঘোষণার পক্ষে মতামত দেয় 44 হাজার ২২1 জন ( 87 দশমিক 1২ শতাংশ ), সিলেবাস কমানোর পক্ষে 3 হাজার 157 জন ( 6 দশমিক ২২ শতাংশ ) ও পরীক্ষা পেছানোর পক্ষে 3 হাজার 336 জন ( 6 দশমিক 57 শতাংশ ) । World coronavirus outbreak spreads due to other sectors, such as the effects are education sector . Most share the country schools closed there . Bangladesh exception is not . Earlier this year, in March month from the country of all the schools close there . As a […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে সর্বোচ্চ আবেদন ঢাকায়, সর্বনিম্ন সিলেটে

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে সর্বোচ্চ আবেদন ঢাকায়, সর্বনিম্ন সিলেটে

শেয়ার করুন:

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে সর্বোচ্চ আবেদন ঢাকায়, সর্বনিম্ন সিলেটেদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগের জন্য চাকরিপ্রত্যাশীদের আবেদন প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। সংশোধনের প্রক্রিয়াও সম্পন্ন করেছেন তারা। সবমিলিয়ে এবার মোট ৩২ হাজার ৫৭৭ জনকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এসব পদের বিপরীতে চূড়ান্ত আবেদন পড়েছে ১৩ লাখের বেশি। একটি পদের জন্য চাকরিপ্রত্যাশী রয়েছেন ৪০ জন। এবার […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
কোটির বেশি মানুষ ডায়াবেটিসে ভুগছেন আমাদের দেশে

কোটির বেশি মানুষ ডায়াবেটিসে ভুগছেন আমাদের দেশে

শেয়ার করুন:

ডায়াবেটিস একটি মহামারী রোগ। বাংলাদেশে ১ কোটির বেশি মানুষ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত। প্রতিনিয়ত এ রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলছে। বিশেষ করে বাংলাদেশে অন্য দেশের তুলনায় কম বয়সীদের মধ্যে টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্তের হার বেড়ে গেছে। বিষয়টি নিয়ে অনেকটাই উদ্বিগ্ন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সমন্বিত পদক্ষেপ গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছেন তারা। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, ডায়াবেটিস প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ এবং জনসচেতনতা বাড়াতে […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার দেশের ৮০ % পুরুষ

স্ত্রীর নির্যাতনের শিকার দেশের ৮০ % পুরুষ

শেয়ার করুন:

স্ত্রীর মানসিক নির্যাতনের শিকার দেশের ৮০ শতাংশ পুরুষ। অনেকেই লোকলজ্জার ভয়ে বিষয়টি প্রকাশ্যে আনতে চান না। বাংলাদেশ মেন’স রাইটস ফাউন্ডেশন নামের একটি বেসরকারি সংগঠনের এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠিত ওই সংগঠনটি প্রতিবছরের ১৯ নভেম্বরকে পুরুষ দিবস হিসেবে উদযাপন করে। এ বছরেও থাকছে তাদের আয়োজন। সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান শেখ খাইরুল আলম […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
আশঙ্কা ইউনেসকোর, করোনার না থাকলেও কোটি মেয়ে স্কুলে ফিরবে না

আশঙ্কা ইউনেসকোর, করোনার না থাকলেও কোটি মেয়ে স্কুলে ফিরবে না

শেয়ার করুন:

সারা বিশ্বে করোনার বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার পরেও ১ কোটি ১০ লাখ মেয়ে শিক্ষার্থীর স্কুলে না ফেরার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইউনেসকোর প্রধান অড্রে আজুলে। বার্তাসংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেসকোর প্রধান গতকাল বৃহস্পতিবার ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গো সফরকালে এ আশঙ্কার কথা প্রকাশ করেন। অড্রে আজুলে দুঃখ প্রকাশ করে […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
প্রতিদিন গড়ে ৮৭ ধর্ষণ ভারতে

প্রতিদিন গড়ে ৮৭ ধর্ষণ ভারতে

শেয়ার করুন:

রতে ২০১৯ সালে প্রতিদিন গড়ে ৮৭টি করে ধর্ষণের মামলা রেকর্ড হয়েছে। সবমিলিয়ে গোটা ভারতে নারীদের বিরুদ্ধে নথিভুক্ত অপরাধের সংখ্যা ছিল ৪,০৫,৮৬১টি। ২০১৮ সালের নিরিখে বিচার করলে নারীদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনা ৭ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পেয়েছে। মঙ্গলবার কেন্দ্রের প্রকাশিত পরিসংখ্যানে এই তথ্য সামনে এসেছে। ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো বা জাতীয় অপরাধ রেকর্ডস ব্যুরোর ডেটা অনুযায়ী, ২০১৮ […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
যেসব কারনে নারীদের করোনা-ঝুঁকি কম

যেসব কারনে নারীদের করোনা-ঝুঁকি কম

শেয়ার করুন:

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি কম-বেশি পুরুষ বা নারী সবারই আছে। কিন্তু দেখা গেছে পুরুষের তুলনায় নারীদের ঝুঁকি কম। ধরা যাক, একজন বয়স্ক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হলেন। তাহলে সমবয়সী একজন নারীর তুলনায় তাঁর রোগের তীব্রতা বেশি হতে পারে। আমাদের দেশে প্রতিদিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে যে পরিসংখ্যান জানানো হয়, সেখানে দেখা যায়, কোভিডে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading
করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি টিকে থাকতে পারে মাত্র একমাস

করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি টিকে থাকতে পারে মাত্র একমাস

শেয়ার করুন:

সম্প্রতি চীনের এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছেকরোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়ার পর মানবদেহে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডি খুব বেশি হলে একমাস পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে। সম্প্রতি চীনের এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। এতে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের কারণে খুব বেশি অসুস্থ হওয়া ব্যক্তির শরীরে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডির স্থায়ীত্বকাল একমাসের চেয়েও কম। কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হলে এ […]

শেয়ার করুন:
Continue Reading