যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয়।

যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয়

এইচ এস সি পরীক্ষা প্রস্তুতি শিক্ষা
শেয়ার করুন:
শ্রেণি: HSC বিএম-2021 বিষয়: হিসাব বিজ্ঞান নীতি ও প্রয়োগ (২) এসাইনমেন্টেরের উত্তর 2021
এসাইনমেন্টের ক্রমিক নংঃ 05 বিষয় কোডঃ 1825
বিভাগ: ভোকেশনাল শাখা
বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

১. যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।

২. কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয়।

কোম্পানি ইহার ৮০,০০০ শেয়ার প্রতি শেয়ারে ১০ টাকা অধিহারে আবণ্টনের উদ্দেশ্যে ইস্যু করে। শেয়ারের টাকা শেয়ার প্রতি আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা ২০ টাকা, আবণ্টণে ৪০ টাকা (অধিহারসহ), প্রথম তলবে ২০ টাকা এবং চূড়ান্ত তলবে ৩০ টাকা প্রদেয়।

সর্বমোট ৯৫,০০০ শেয়ারের আবেদনপত্র পাওয়া যায়। তন্মধ্যে ৮০,০০০শেয়ার যথারীতি আবন্টন করা হয়। ১০,০০০ শেয়ারের অতিরিক্ত আবেদনপত্রের টাকা ফেরত দেয়া হয়। অবিশিষ্ট ৫,০০০ শেয়ারের অতিরিক্ত আবেদনের টাকা আবন্টন হিসাবে সমন্বি ত করা হয়। আবন্টনের সমুদয় টাকা যথারীতি পাওয়া যায়, কিন্ত প্রথম তলবজারী করা হলে মোট ২,৫০০ শেয়ারের একজন মালিক তার শেয়ারগুলোর তলবের টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হন।

অপরদিকে ৪ জন শেয়ার মালিক সর্বমোট ৪,৫০০ শেয়ারের চূড়ান্ত তলবের টাকা প্রথম তলবের টাকার সঙ্গে অগ্রিম প্রদান করেন। এখনও চূড়ান্ত তলবজারী করা হয় নাই। করণীয়ঃ

১) কোম্পানির হিসাব বইতে প্রয়োজনীয় জাবেদা এবং ব্যাংক হিসাব ক্সতরি কর।

যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয় https://www.banglanewsexpress.com/

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

১. যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।

যৌথমূলধনী ব্যবসায় বা কো¤পানি সংগঠন হলো আইন সৃষ্ট ব্যবসায় সংগঠন; যা গঠিত হয় একটি ধারাবাহিক পর্যায়ের মধ্য দিয়ে। ১৯৯৪ সালের কো¤পানি আইন অনুসারে এরূপ ব্যবসায় গঠনে যে সকল পর্যায় অতিক্রম করতে হয় তা নি”ে বর্ণনা করা হলো:-

১. উদ্যোগ গ্রহণ পর্যায় উদ্যোগ গ্রহণ বলতে কো¤পানি গঠনের জন্য উদ্যোক্তা বা প্রবর্তকগণের অনুসন্ধান, যাচাই ও সংগঠিত হওয়াকে বোঝায়। এ পর্যায়ে উদ্যোক্তাগণ ক্ষেত্র চিহ্নিতকরণ, সম্ভাব্যতা যাচাই, প্রকল্প অনুমোদন, আর্থিক পরিকল্পনা, নাম নির্বাচন ও নামের ছাড়পত্র সংগ্রহ ইত্যাদি কার্য স¤পূর্ণ করে থাকেন।

২. দলিলপত্র প্রণয়ন পর্যায় এ পর্যায়ে কো¤পানির পরিচালকগণ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দু’টি দলিল প্রণয়ন করেন। যথা: (ক) স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধ ও (খ) সংঘবিধি বা পরিমেল নিয়মাবলি। স্মারকলিপি কো¤পানির প্রধান দলিল বা সংবিধান বা গঠনতন্ত্র যাতে কো¤পানির নাম, ঠিকানা, উদ্দেশ্য, মোট মূলধন ইত্যাদি উল্লেখ থাকে। আর সংঘবিধিতে কো¤পানি পরিচালনা সংক্রান্ত নিয়ম-বিধি লেখা থাকে।

৩. নিবন্ধনপত্র সংগ্রহ পর্যায় এ পর্যায়ে কো¤পানি নিবন্ধকের অফিস হতে নির্দিষ্ট ফি দিয়ে ফরম সংগ্রহ করে তা পূরণপূর্বক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও দলিল সংযুক্ত করে নিবন্ধকের নিকট জমা দেয়া হয়। আবেদনপত্র ও দলিল যাচাই, পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর নিবন্ধক কো¤পানির নাম তালিকাভুক্ত করেন। তারপর প্রাইভেট লিমিটেড কো¤পানি কাজ শুরু করতে পারে। কিন্তু পাবলিক লিমিটেড কো¤পানিকে কাজ শুরু করার জন্য কার্যারম্ভের অনুমতিপত্র সংগ্রহ করতে হয়।

৪. কার্যারম্ভ পর্যায় পাবলিক লিমিটেড কো¤পানিকে কার্যারম্ভের অনুমতিপত্র পাওয়ার জন্য ন্যূনতম মূলধন সংগৃহীত হয়েছে এ মর্মে ঘোষণাপত্র ও বিবরণপত্র দাখিল করতে হয়। উক্ত দলিলপত্র পেয়ে নিবন্ধক সন্তুষ্ট হলে কার্যারম্ভের অনুমতি প্রদান করেন। তারপর পাবলিক লিমিটেড কো¤পানি কার্যক্রম শুরু করতে পারে।

স্মারকলিপি/সংঘস্মারক/পরিমেল বন্ধ উদ্ভাবন লিমিটেড একটি অর্গানিক খাবার পণ্য সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান। জৈব সার দ্বারা উৎপাদিত শাক-সবজি ও প্রাকৃতিকভাবে উৎপাদিত মাছ-মাংস রাজধানী ঢাকায় সরবরাহ করার নিমিত্তে এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ফার্মগেটে এদের হেড অফিস হলেও কৃষি খামার ও বাগান রাজশাহীর রাজাবাজারে। প্রতিদিন ঢাকার বাজারে শাক-সবজি, ডেইরি ফার্মের দুধ, মাছ ও মাংস নিয়ে আসা হয়। ঢাকার বাসিন্দাদের ফরমালিন, ক্যালসিয়াম কার্বাইডের মত বিষ মেশানো খাবার থেকে বাঁচাতে তাদের এই প্রচেষ্টা। তারা দশ বন্ধু সমভাবে ১০ কোটি টাকা নিয়ে ব্যবসায় শুরু করেন তাই তাদের দায়ও সমান সমান।

উপরের ঘটনাটিতে উদ্ভাবন লিমিটেড কোম্পানির সমস্ত তথ্যাদি যেমন- ঠিকানা, উদ্দেশ্য, কার্যপরিধি, ক্ষমতার সীমা ও দায় ইত্যাদি বর্ণিত আছে। এটিই উদ্ভাবন লিমিটেড কোম্পানির মূল দলিল যাকে স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধ বলা হয়ে থাকে। স্মারকলিপি হলো কোম্পানির মূল দলিল, সনদ বা সংবিধান যাতে কোম্পানির মূল বিষয়াবলি বিশেষত উদ্দেশ্য, কার্যপরিধি ও ক্ষমতার সীমা নির্দেশ করা হয় এবং যা দ্বারা কোম্পানির সাথে শেয়ারহোল্ডার ও তৃতীয় পক্ষের সম্পর্ক নির্ধারিত হয়। এটিকে কোম্পানির গঠনতন্ত্রও বলা হয়।

স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধের বিষয়বস্তু বা ধারাসমূহ স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধে নিম্নোক্ত ৬টি ধারা বা বিষয়বস্তু বিদ্যমান থাকে। যথা: ১. নাম ধারা; ২. অবস্থান ও ঠিকানা ধারা; ৩. উদ্দেশ্য ধারা; ৪. মূলধন ধারা; ৫. দায় ধারা; ৬. সম্মতি ধারা।

নিম্নে কোম্পানি আইন অনুসারে স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধের ধারাসমূহের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা দেয়া হলো:

১. নাম ধারা: এ ধারায় কোম্পানির প্রস্তাবিত নাম লেখা থাকে। সীমিত দায়সম্পন্ন কোম্পানি হওয়ার কারণে এর নামের শেষে অবশ্যই সীমিত বা লিমিটেড শব্দটি উল্লেখ থাকতে হয়। কোম্পানি আইনের ১১ ধারা মতে নাম চূড়ান্তকরণের বেলায় নিম্নোক্ত শর্তসমূহ বিবেচনা করতে হয়।

আগে থেকে চালু বা কর্মরত কোনো কোম্পানির নাম রাখা যাবে না।

সরকারি গেজেট প্রজ্ঞাপনের দ্বারা নিষিদ্ধ করা হয়েছে এমন নাম রাখা যাবে না।

রাষ্ট্রপ্রধান, জাতিসংঘ, কোনো জোট বা এর কোনো অঙ্গসংস্থার নামের সাথে সম্পর্ক রয়েছে বলে ধারণা করা যায় এমন কোনো নাম রাখা যাবে না।

২. অবস্থান ও ঠিকানা ধারা: এই ধারাটিতে কোম্পানির নিবন্ধিত প্রধান কার্যালয়ের অবস্থান ও বিস্তারিত ঠিকানা লেখা থাকে।

৩. উদ্দেশ্য ধারা: এটি কোম্পানির স্মারকলিপি বা পরিমেলবন্ধের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ধারা। এই ধারায় কোম্পানির কার্যক্ষমতার সীমারেখা নির্দিষ্ট করা হয়। অর্থাৎ ভবিষ্যতে কোম্পানি যে সকল কর্মকাণ্ড বা ব্যবসায়ে জড়িত হবে তার বিস্তারিত বিবরণ উল্লেখ থাকে। কেননা উদ্দেশ্য ধারায় উল্লেখ করা হয়নি এমন কোনো কাজ কোম্পানি করতে পারবেনা।

৪. মূলধন ধারা: কোম্পানি প্রস্তাবিত মোট মূলধন বা অনুমোদিত মূলধনের পরিমান যে ধারায় উল্লেখ থাকে তাকে স্মারকলিপির মূলধন ধারা বলে। স্মারকলিপির প্রয়োজনীয় পরিবর্তন না এনে মূলধন ধারার বর্ণিত মূলধনের অতিরিক্ত মূলধন কোম্পানি কখনোই সংগ্রহ করতে পারবে না।

এ ধারায় যা অন্তর্ভুক্ত থাকে-

মোট মূলধনের পরিমান;

শেয়ারের ধরন ও সংখ্যা;

প্রতিটি শেয়ারের মূল্য।

৫. দায় ধারা: এ ধারায় শেয়ার মালিকদের দায়ের প্রকৃতি উল্লেখ থাকে। অর্থাৎ শেয়ার মালিকদের দায় শেয়ার মূল্য দ্বারা, না প্রতিশ্রুতি দ্বারা সীমাবদ্ধ তা এ ধারায় উল্লেখ করা হয়।

৬. সম্মতি ধারা: প্রত্যেক স্মারকলিপির শেষ অংশে প্রবর্তকগণ বা পরিচালকগণ একজন সাক্ষীর সামনে নির্দিষ্ট শেয়ার ক্রয়ের প্রতিশ্রুতি এবং স্মারকলিপিতে বর্ণিত সকল বিষয়ে সম্মতি দিয়ে যে ঘোষণা প্রদান করে তাই সম্মতি ধারা।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

২. কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয়।

জাবেদা

যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয় https://www.banglanewsexpress.com/

ব্যাংক হিসাব

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয় https://www.banglanewsexpress.com/

শেয়ার অবন্টন হিসাব

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয় https://www.banglanewsexpress.com/
যৌথ মূলধনী কোম্পানির গঠন প্রণালী ব্যাখ্যা কর।, কুষ্টিয়া সী-ফুড লিমিটেড; প্রতিখানি ১০০ টাকা মূল্যের ১,০০,০০০ শেয়ারে বিভক্ত মোট ১,০০,০০০,০০০ টাকা অনুমোদিত মূলধনে নিবদ্ধিত হয় https://www.banglanewsexpress.com/

সবার আগে Assignment আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অন্য সকল ক্লাস এর অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর সমূহ :-

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ভোকেশনাল: ৯ম/১০ শ্রেণি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক

৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ,

৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় SSC এসাইনমেন্ট :

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় HSC এসাইনমেন্ট :

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *