বাতিল হতে পারে ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা, ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল, রাষ্ট্রায়ত্ত ৫ ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) পদের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের সত্যতা মেলায় প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বাতিল, বাংলাদেশ ব্যাংকের চাকরি পরীক্ষায় প্রশ্ন জালিয়াতি চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তার,সমন্বিত ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল

বাতিল হতে পারে ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা, ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল, রাষ্ট্রায়ত্ত ৫ ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) পদের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের সত্যতা মেলায় প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বাতিল

জনদুর্ভোগ জাতীয় দেশ
শেয়ার করুন:

রাষ্ট্রায়ত্ত ৫ ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) পদের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁসের সত্যতা মেলায় প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বাতিল হতে পারে। আগামী ১৪ নভেম্বর এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে বলে জানা গেছে।

ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির (বিএসসি) সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ নভেম্বরের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়টিকে এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বলা হয়েছে। ওইদিনই পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়া হতে পারে।

সূত্র আরও জানায়, ব্যাংক নিয়োগের প্রশ্নফাঁসের ঘটনায় সরকারের একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা তদন্ত করছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকেও একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ব্যাংকের তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হলে প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বাতিল করা হবে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য সচিব ও বাংলাদেশ ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক আজিজুল হক দ্যা ডেইলি ক্যাম্পাসকে বলেন, প্রশ্নফাঁসের ঘটনা কেন্দ্রীয়ভাবে তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তে বিষয়টি প্রমাণিত হলে পাঁচ ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা বাতিল করা হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, আমরা শুনেছি এই ঘটনার সাথে আহসানউল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকজনও জড়িত। সেজন্য তাদের কাছে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। সন্তোষজনক কোনো ব্যাখ্যা না পেলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হতে পারে। এ বিষয়ে ১৪ তারিখ বিস্তারিত জানাতে পারবো।

এর আগে গত ৬ নভেম্বর রাজধানীর ৪৭টি কেন্দ্রে বেলা ৩টা থেকে বেলা ৪টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী এমসিকিউ পদ্ধতির প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ১ হাজার ৫১১ পদের বিপরীতে ১ লাখ ১৬ হাজার ৪২৭ জন প্রার্থী ছিলেন। 

পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর প্রশ্নপত্র ফাঁস হওয়ার অভিযোগ তোলেন প্রার্থীরা। এ নিয়ে ফেসবুকের চাকরিকেন্দ্রীক গ্রুপগুলোতে শুরু হয় সমালোচনা। পরীক্ষার আগেই হাতে লেখা ও কম্পিউটারে টাইপ করা উত্তরপত্র ফাঁস হয়েছে বলে দাবি অংশ নেওয়া প্রার্থীদের। তারা জানান, এর আগেও পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্বে থাকা আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ ছিল। তাই এই নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করে এই বিশ্ববিদ্যালয়কে পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্ব আর না দেওয়ার দাবি তাদের।

বাংলাদেশ ব্যাংক চাকরি পরীক্ষায় প্রশ্ন জালিয়াতি চক্রের সদস্যদের গ্রেপ্তর করেছে পুলিশ। এ প্রসঙ্গে আজ বুধবার বিকেল তিনটায় ডিএমপি’র মিডিয়া সেন্টারে ব্রিফিং করবেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা)।

বাংলাদেশ ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির আওতায় পাঁচ ব্যাংকের অফিসার (ক্যাশ) নিয়োগের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠেছে। পরীক্ষার্থীদের দাবি, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়েছে। তবে বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে, প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়নি।বিজ্ঞাপন

গত শনিবার বেলা তিনটা থেকে চারটা পর্যন্ত ১ হাজার ৫১১টি পদের বিপরীতে অনুষ্ঠিত এ পরীক্ষায় অংশ নেন ১ লাখ ১৬ হাজার ৪২৭ জন চাকরিপ্রত্যাশী। একাধিক প্রার্থীর দাবি, পরীক্ষা শেষ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ১০০টি প্রশ্নের প্রিন্ট করা উত্তরপত্র ফেসবুকে পাওয়া গেছে।

ফেসবুকে উত্তরপত্র ছড়ানোর ঘটনায় চাকরিপ্রার্থীরা প্রশ্ন তুলছেন, পরীক্ষা চারটার সময় শেষ হওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই ১০০টি প্রশ্নের ‘সঠিক উত্তর’ ফেসবুকে পাওয়া সম্ভব নয়। এটা তাই প্রশ্নপত্র ফাঁস।

তবে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটির সদস্য ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক হুমায়ুন কবির প্রথম আলোকে বলেন, ‘পরীক্ষায় আবেদনকারীদের মধ্যে ৫৬ শতাংশ শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছে। প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার কোনো ঘটনা আমাদের নজরে আসেনি। এমন কিছু হলে পরীক্ষার আগেই শোনা যেত।’

সবার আগে Google News আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

চাকুরি

শেয়ার করুন:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *