পানিবন্দি লাখো মানুষ, বন্যায় ডুবে গেছে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল | Bangla News Express
Home / অন্যান / আবহাওয়া / পানিবন্দি লাখো মানুষ, বন্যায় ডুবে গেছে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল
পানিবন্দি লাখো মানুষ, বন্যায় ডুবে গেছে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল
পানিবন্দি লাখো মানুষ, বন্যায় ডুবে গেছে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল

পানিবন্দি লাখো মানুষ, বন্যায় ডুবে গেছে ৩ হাজার হেক্টর জমির ফসল


নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনিত হয়েছে। ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার, নুনখাওয়া পয়েন্টে ৬০ সেন্টিমিটার ও ধরলার পানি সেতু পয়েন্টে বিপদসীমার ৭১ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া তিস্তাসহ অন্যান্য নদ-নদীর পানিও বেড়েই চলছে।

বন্যায় জেলার চিলমারী, উলিপুর, সদর, রৌমারী, রাজিবপুর ও নাগেশ্বরীসহ আটটি উপজেলায় নদ-নদীর অববাহিকার নিম্নাঞ্চলসহ প্রায় আড়াই শতাধিক চর ও দ্বীপচর প্লাবিত হয়ে পড়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন লক্ষাধিক মানুষ।

এসব এলাকার রাস্তা-ঘাট তলিয়ে থাকায় ভেঙে পড়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। তলিয়ে গেছে বন্যাকবলিত এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও। এ অবস্থায় নিচু এলাকার মানুষজন ঘরবাড়ি ছেড়ে উঁচু জায়গায় আশ্রয় নিতে শুরু করেছেন। পানিবন্দি মানুষের মাঝে শুকনো খাবার ও বিশুদ্ধ পানির সংকট দেখা দিয়েছে।

সদরের যাত্রাপুর ইউনিয়নের ভগবতীপুর চরের বাসিন্দা জামান বলেন, ‘চরের সবগুলো বাড়িতে পানি ঢুকে পড়েছে।

আমি আমার পরিবারের লোকজন নিয়ে পানিবন্দি অবস্থায় খুব কষ্টে দিনযাপন করছি। রাস্তা-ঘাট সব তলিয়ে গেছে। কোথাও যাওয়ার উপায় নাই।’

এদিকে, বন্যার পানিতে ডুবে গেছে ৩ হাজার ৬২২ হেক্টর জমির আমন বীজতলা, আউশ, শাক সবজি, পাটসহ অন্যান্য ফসল।

কুড়িগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক ড. মো. মোস্তাফিজুর রহমান প্রধান জানান, নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় জেলার বিভিন্ন উপজেলায় নতুন নতুন এলাকার বীজতলাসহ ফসল পানিতে নিমজ্জিত হচ্ছে। এতে করে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়বে।

advertisement


কুড়িগ্রাম পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুল ইসলাম জানান, আগামী দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে ধরলা ও তিস্তার পানি কমে গেলেও ব্রহ্মপুত্রের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে।

কুড়িগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. রেজাউল করিম জানান, বন্যা কবলিতদের জন্য জেলার সবকটি উপজেলায় মোট ৩০২ মেট্রিক টন চাল ও শুকনো খাবার বিতরণের জন্য ৩৬ লাখ ৬৮ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

সূত্র/Sarabangla.net


আপনার মূল্যবান মতামত দিন

আরও

রেডজোন চিহ্নিত না করায় অভিযোগ, ঢাকার বাইরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা

রেডজোন চিহ্নিত না করায় অভিযোগ, ঢাকার বাইরের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ঢাকার পূর্ব রাজাবাজারের পর এবার ওয়ারী এলাকাও রেডজোন চিহ্নিত করে লকডাউন করা …

গারো শিশুকে ধর্ষণের আদিবাসী কিশোর গ্রেপ্তার

গারো শিশুকে ধর্ষণের আদিবাসী কিশোর গ্রেপ্তার

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় এক গারো শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ১৭ বছর বয়সী এক আদিবাসী কিশোরকে গ্রেপ্তার …