জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডিগ্রি,অনার্স,মাস্টার্স) সকল আপডেট

আগামী ৮ জুন থেকে শুরু হতে যাচ্ছে অনার্স ১ম বর্ষ (২০২০-২১) সেশনের ভর্তির আবেদন।

সময় কিন্তু বেশি নাই, আপনাকে দ্রুত সিদ্ধান্তে উপনীত হতে হবে।
যদি তারিখ পরিবর্তন না হয় তাহলে ৮ জুন থেকেই আবেদন শুরু হচ্ছে।

প্রথমে একটি কলেজে আবেদন করতে হবে।

আবেদনের সময় আপনার পয়েন্ট অনুযায়ী সাবজেক্ট শো করবে। ওখান থেকে সাবজেক্ট চয়েস দিতে হবে।

আপনার পয়েন্ট অনুযায়ী সাবজেক্ট এবং কলেজ চয়েস করবেন।
পয়েন্ট কম কিন্তু দেশ সেরা কলেজে আবেদন করলেন তাহলে কিন্তু চান্স হবে না।

প্রয়োজনে যারা সিনিয়র আছে তাদের নিকট থেকে পরামর্শ নিতে পারেন।

সাবজেক্ট নির্বাচন নিয়ে চিন্তার শেষ নেই আর থাকবেও না। চিন্তা ভাবনা করতে থাকেন।

আমার তরফ থেকে কিছু নোট আপনাদের জন্য উপহার দিলাম। মনোযোগ দিয়ে পড়েন উপকৃত হবেন আশাকরি।

যে সাবজেক্ট আপনি পড়বেন না ভূল করেও ঐ সাবজেক্ট তালিকায় রাখবেন না।

আপনার সব থেকে পছন্দের সাবজেক্ট সবার ১ম এ রাখবেন। তারপর আর কোনো পছন্দের সাবজেক্ট থাকলে পর্যায়ক্রমে সিরিয়ালে রাখবেন।

নিজের জিপিএ অনুযায়ী কলেজ ও সাবজেক্ট নির্বাচন করবেন।
সাবজেক্টের আসন অনুযায়ী তালিকা করবেন।

একটা কথা মনে রাখবেন, আপনি যে সাবজেক্টে অনার্স করবেন ঐ সাবজেক্টেই আপনাকে মাস্টার্স করতে হবে।

আপনি ভর্তি হওয়ার পর আর কোনোভাবেই সাবজেক্ট পরিবর্তন করতে পাবেন না এমনকি আর আবেদনো করতে পাবেন না।

পছন্দের সাবজেক্ট না পেলে মাইগ্রেশন করলে নতুন সাবজেক্ট পাওয়া যায়।
এই আশায় থেকে সাবজেক্ট চয়েস করবেন না। কারন এটা ভাগ্যের বিষয়। অনেক সময় পরিবর্তন হয় অনেক সময় হয়না।

অনার্সের পাশাপাশি যদি চাকরির ইচ্ছা থাকে তবে হালকা সহজ সাবজেক্ট নেয়া উত্তম। অর্থনীতি, পরিসংখ্যান, ইংরেজি, গনিত, পদার্থ, রসায়ন হিসাববিঃ ইত্যাদির মত সাবজেক্টের পিছনে সময় দিতে হয় + প্রাইভেট পড়তে হয়।

চাকরি করে এগুলা সামলানো অনেক কঠিন হবে।

আপনার বেলা বা ফ্রেন্ড রা ইংলিশ নিছে, তাই বলে আপনিও ইংলিশে নিয়েন না। কারন ওরা ইংলিশে খুব পটর পটর করে উহুঃ অসহ্য। এদিক আপনি ইংলিশে কিছু পারেন না! তাহলে কিন্তু পরে পস্তাতে হবে।
সংসারের পাশাপাশি অনার্স করার ইচ্ছা থাকলে কঠিন সাবজেক্টে না যাওয়া উত্তম।কারন সংসার সামলাবেন না পড়বেন?

সব সাবজেক্টই ভালো। শুধু আপনাক কোনটা ভালো লাগে সেটা খুজে নিতে হবে।

আপনি বিজ্ঞান ও ব্যবসা থেকে মানবিকের সাবজেক্টে চয়েস দেয়ার আগে মাথায় রাখবেন ৫% বা ১৫% আসনে আপনি সুযোগ নাও পেতে পারেন।
তাই যা করবেন ভেবে চিন্তে করবেন।

অযথা সাবজেক্ট সিলেক্ট করে নিজের পছন্দের সাবজেক্ট ও কলেজে পড়ার সুযোগ হারাবেন না।

এবার এইচএসসি তে পাস করেছে অনেক, সে অনুযায়ী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম বর্ষে আসন কম।

ভর্তিতে অনেক কম্পিটিশন হবে এবার। যা করবেন চিন্তা ভাবনা করে করবেন। পরে যেন সমস্যায় পড়তে না হয়।

ভর্তি সংক্রান্ত কোন প্রশ্ন থাকলে গ্রুপে পোস্ট বা কমেন্ট করুন, সাধ্যমত উওর দেওয়া হবে।

ভর্তি সম্পর্কিত সকল আপডেট গ্রুপে দেওয়া হবে, গ্রুপের সাথেই থাকুন এবং বন্ধুদের বেশি বেশি ইনভাইট করুন। এই পোস্টে মেনশন করতে পারেন।

Leave a Comment