আলু মিলছে না এখনো বেঁধে দেওয়া দামে | Bangla News Express
Home / জাতীয় / জনদুর্ভোগ / আলু মিলছে না এখনো বেঁধে দেওয়া দামে
আলু মিলছে না এখনো বেঁধে দেওয়া দামে
আলু মিলছে না এখনো বেঁধে দেওয়া দামে

আলু মিলছে না এখনো বেঁধে দেওয়া দামে

শেয়ার করুন:

সরকার দাম বেঁধে দেওয়ার পর এক সপ্তাহ পার হলেও বাজারে এ দামে আলু কিনতে পারছেন না ভোক্তারা। সরকারের বেঁধে দেওয়া দাম উপেক্ষা করে পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে এখনো বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে আলু। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় খুচরা পর্যায়ে আলু বিক্রি হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে, যা সরকারি দামের চেয়ে এখনো ৫ থেকে ১০ টাকা বেশি।

গত ২০ অক্টোবর দ্বিতীয় দফায় আলুর দাম কেজিতে ৫ টাকা বাড়িয়ে খুচরায় ৩৫ টাকা নির্ধারণ করে দেয় কৃষি বিপণন অধিদপ্তর। অধিদপ্তরে সরকারি বিভিন্ন সংস্থা ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় এ দাম নির্ধারণ করা হয়। ওই দিন আলুর দাম হিমাগারে প্রতিকেজি ২৭ টাকা এবং পাইকারিতে ৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। এর পর চলতি সপ্তাহে পাইকারিতে দাম কিছুটা কমেছে। তবে খুচরায় এর কোনো প্রভাব পড়েনি।

গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় খুচরা পর্যায়ে আলু বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে। এলাকার ভেতরে ছোট বাজার ও

মুদি দোকানগুলোয় ৪৮ টাকা কেজি দরেও বিক্রি হতে দেখা গেছে।

মালিবাগ বাজারে বাজার করতে এসে বেসরকারি চাকরজীবী আনিসুর রহমান বলেন, বাজারে এসে নিজেদের বড্ড অসহায় মনে হয়। সরকারের নির্দেশও যদি ব্যবসায়ীরা না মানেন, তা হলে আমরা কোথায় যাব। ৩৫ টাকা তো দূরে থাক, আলুর কেজি এখনো ৪৫ টাকা।

বেশি দাম রাখার কারণ জানতে চাইলে মালিবাগ বাজারের খুচরা বিক্রেতা মোকাদ্দেস হোসেন বলেন, সরকার দাম বেঁধে দিয়েছে, এতে আমরা খুশি। কিন্তু সেই দামে তো আমরা কিনতেই পারি না। সরকার পাইকারিতে দাম ৩০ টাকা বেঁধে দিলেও ভালো মানের আলু কিনতে কেজিতে আমাদের খরচ করতে হচ্ছে ৪০ টাকা। খুচরায় সে আলু বিক্রি করছি ৪৪ টাকায়।

আরেক ব্যবসায়ী শাহাবুদ্দিন বলেন, আমার কাছে যে আলু রয়েছে তা আগের কেনা এবং বাছাই করা এক নম্বর আলু। প্রতিকেজি ৪৫ টাকা দরে বিক্রি করছি। এ সপ্তাহে পাইকারিতে দামের পরিবর্তন হয়নি। আমরা ৪২ টাকায় কিনে ৪৫ টাকায় বিক্রি করছি। কম দামে পেলে কম দামে বিক্রি করতে পারব।

এদিকে এ সপ্তাহে কারওয়ানবাজারে আলুর দাম খানিকটা কমেছে বলে জানান এখানকার ব্যবসায়ীরা। তবে তা এখনো সরকারি দাম ৩৫ টাকার ওপরেই রয়েছে। এ বাজারের খুচরা বিক্রেতা বিলাল হোসেন বলেন, চলতি সপ্তাহে সব ধরনের আলুর দাম কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা কমেছে। আজ (মঙ্গলবার) বিক্রমপুরের আলু বিক্রি করছি ৪০ টাকা কেজি। এ ছাড়া ভালোমানের রাজশাহীর আলু বিক্রি করছি ৪৪ টাকা কেজি দরে।

advertisement


আলুর দাম সরকারের বেঁধে দেওয়া ৩৫ টাকায় নামতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে বলে জানিয়ে বিলাল বলেন, দাম কমতে শুরু করেছে। তবে সরকারি দামে বিক্রি হতে আরও অনেকটা সময় লাগবে। অনেক খুচরা দোকানির কাছে আগের কেনা আলু রয়ে গেছে। সেগুলো শেষ হলে দাম কমে আসবে।

কারওয়ানবাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান জানান, পাইকারিতে বিক্রমপুরের আলু ৩৬ থেকে ৩৭ টাকা এবং রাজশাহীর আলু ৩৮ থেকে ৪০ টাকা এবং ভালোমানের মুন্সীগঞ্জের আলু ৪১ টাকা। তিনি বলেন, হিমাগার থেকে আলু ছাড়তে শুরু করেছে। দাম গত সপ্তাহের তুলনায় কমেছে। সরকারি দামে পৌঁছতে আরও সময় লাগবে।

এর আগে আলুর দাম দ্বিগুণ বেড়ে রেকর্ড ভেঙে ৬০ টাকা পর্যন্ত উঠলে গত ৭ অক্টোবর আলুর দাম খুচরা বাজারে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা নির্ধারণ করে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর। এ সময় আলুর দাম হিমাগার পর্যায়ে ২৩ টাকা এবং পাইকারিতে ২৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়। সেই দামও কোথাও কার্যকর হয়নি। উল্টো আলু বিক্রি বন্ধ করে দেন রাজধানীর পাইকারি ব্যবসায়ীরা।

কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. ইউসুফ আমাদের সময়কে বলেন, দাম বেঁধে দেওয়ার পর চালের দাম এখন মোটামুটি স্থিতিশীল রয়েছে। আর আলুর দাম কয়েকদিন হলো নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। হিমাগার থেকে বাজারে আসার জন্য আমাদের একটু সময় দিতে হবে।

ভোক্তা অধিকার সংগঠন কনসাস কনজ্যুমার্স সোসাইটির (সিসিএস) নির্বাহী পরিচালক পলাশ মাহমুদ বলেন, বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকারের উদ্যোগে আমরা আস্থা রাখতে চাই। তবে সমস্যার গোড়ায় হাত না দিয়ে যতই দাম বেঁধে দেওয়া হোক না কেন, সেটা বাজারে কার্যকর হবে না। খুচরা বাজারে দায়সারা অভিযান পরিচালনা না করে হিমাগারগুলোয় নজরদারি বাড়াতে হবে। হিমাগার থেকে আলু ছাড়া হচ্ছে কিনা, কী পরিমাণে ও কী দামে ছাড়া হচ্ছে- তার ওপর কড়া নজরদারি রাখতে হবে।

সূত্র/ আমাদের সময়

শেয়ার করুন:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন

আরও

বোরকা পরে এসে চেয়ারম্যানকে গুলি

বোরকা পরে এসে চেয়ারম্যানকে গুলি

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার কৈখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিমকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় …

পুলিশের মোটরসাইকেলে আগুন, আ.লীগ প্রার্থীর বাড়িতে বিদ্রোহীদের হামলা-ভাঙচুর

পুলিশের মোটরসাইকেলে আগুন, আ.লীগ প্রার্থীর বাড়িতে বিদ্রোহীদের হামলা-ভাঙচুর

বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুল হালিম চৌধুরী মিলনের বাড়িতে বিদ্রোহী প্রার্থী রুমা …